কুলাউড়ার বরমচাল থেকে পরিত্যক্ত গ্রেনেড উদ্ধার! কুলাউড়ার বরমচাল থেকে পরিত্যক্ত গ্রেনেড উদ্ধার! – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৫:১৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বড়লেখায় বনভূমিতে অবৈধ ঘর নির্মাণ, আসামীর বিরুদ্ধে কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ডের রায় বড়লেখার কাতার প্রবাসীর সাথে প্রতারণা, লভ্যাংশসহ মুলধন আত্মসাৎ বড়লেখায় যুক্তরাজ্য ও কানাডা প্রবাসী ২ কমিউনিটি নেতাকে সংবর্ধনা কমলগঞ্জ আব্দুল গফুর চৌধুরী মহিলা কলেজে নবীন বরণ কমলগঞ্জে কীটনাশকমুক্ত শীতকালীন সবজী চাষে সফল শিক্ষক শান্তু মনি কমলগঞ্জে রেল লাইনের পাশে থেকে শিশুর মরদেহ উদ্ধার বড়লেখায় জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহের উদ্বোধন ও বিজ্ঞান অলিম্পিয়াড বোয়াইলভীর বিএম কলেজে ক্লাস উদ্বোধন ও নবীন বরণ অনুষ্ঠিত দৃষ্টিনন্দন ‘শিশুপার্ক’ পেয়ে খুশি আত্রাইয়ে আশ্রয়ন প্রকল্পের শিশুরা কমলগঞ্জে জুয়ারিদের হামলায় পুলিশসহ আহত ৫ : আটক-৫

কুলাউড়ার বরমচাল থেকে পরিত্যক্ত গ্রেনেড উদ্ধার!

  • শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর, ২০২০

এইবেলা ডেক্স, কুলাউড়া ::

মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার বরমচাল থেকে একটি পরিত্যক্ত গ্রেনেড উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (২৩ অক্টোবর) সন্ধ্যা পরে এ গ্রেনেডটি উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, বরচাল ইউনিয়নের আকিলপুর নন্দনগর এলাকার ইলেক্ট্রিশিয়ান সাহান মিয়া নিজ বাড়ির আঙ্গিনায় একটি পুকুর খনন শুরু করান। খননের এক পর্যায়ে শুক্রবার বিকালে প্রায় ১০ ফুট নিছে গ্রেনেডের মতো একটি বস্তু দেখতে পায় মাটি খোঁড়ার কাজে নিয়োজিত শ্রমিকরা। বস্তুটি শ্রমিকেরা চিনতে না পারায় সাহান মিয়াকে জানান। তাৎক্ষনিক স্থানীয় শতাধিক লোকজন ঘটনাস্থলে জড়ো হন।

খবর পেয়ে কুলাউড়া থানা পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে গ্রনেডটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। উদ্ধারকৃত গ্রেনেডটিতে পিওএফ ১৯৬৯ (POF-1969) লিখা রয়েছে। এটি পাকিস্তান আমলের ১৯৬৯ সালে মাটির গভীরে পুতে রাখা শক্তিশালী গ্রেনেড হ‌তে পা‌রে এমনটি ধারণা প্রশাসনসহ স্থানীয় লোকজনদের।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কুলাউড়া অফিসার ইনচার্জ ইয়ারদৌস হাসান জানান, পরিত্যক্ত অবস্থায় গ্রেনেডটি উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধারকৃত গ্রেনেডটি অব্যবহৃত এবং ৫০-৫২ বছর আগের। দেখে মনে হচ্ছে এটি অকেজো হয়ে গেছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews