কুলাউড়ায় গণধোলাই দিয়ে ৩ বলৎকারকারীকে পুলিশে সোপর্দ কুলাউড়ায় গণধোলাই দিয়ে ৩ বলৎকারকারীকে পুলিশে সোপর্দ – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ০৭:৩২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বড়লেখায় হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সস্মুখ থেকে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার মৌলভীবাজারে প্রধান শিক্ষক সমিতির জেলা কমিটি গঠন : সভাপতি জহর সম্পাদক সিরাজুল কমলগঞ্জে পানি সংকটে ৬শ’ হেক্টর জমিতে এখনো বোরো চাষাবাদ ব্যাহত হতাশ কৃষকরা বড়লেখা থানায় দ্বি-বার্ষিক পরিদর্শণে অ্যাডিশনাল ডিআইজি বিপ্লব বিজয় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন পরিবেশমন্ত্রী মোঃ শাহাব উদ্দিন বড়লেখায় কানাডা প্রবাসীর উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ জুড়ীতে ছাত্রলীগের মাস্ক কম্বল বিতরণ বড়লেখায় ছাত্রলীগের সাবেক সেক্রেটারি জাকির হোসাইনের কম্বল বিতরণ এক সপ্তাহ পর অনশন ভেঙেছেন শাবির শিক্ষার্থীরা কুড়িগ্রামে হাফেজ ছাত্রদের পাগড়ী প্রদান উপলক্ষে তাফসিরুল কোরআন মাহফিল

কুলাউড়ায় গণধোলাই দিয়ে ৩ বলৎকারকারীকে পুলিশে সোপর্দ

  • বৃহস্পতিবার, ৫ নভেম্বর, ২০২০

এইবেলা,  কুলাউড়া ::

কুলাউড়া উপজেলার হাজিপুর ইউনিয়নে ১৬ বছরের এক কিশোরকে বলৎকারের অভিযোগে ৩ যুবককে স্থানীয় লোকজন আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে।

০৪ নভেম্বর বুধবার রাতে মামলাটি নথিভুক্ত করে পুলিশ এবং আটক ৩ জনকে বৃহস্পতিবার সকালে মৌলভীবাজার আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

লিখিত অভিযোগ থেকে জানা যায়, ঘটনার দিন রাত সাড়ে ৯টায় ওই বলৎকারের শিকার কিশোরকে ব্যাডমিন্টন খেলার কথা বলে বিলেরপাড় গ্রামের মো. তছির আলীর পুত্র আতিক মিয়া (১৮) খেড়টিলা নামক স্থানে নিয়া যায়। সেখানে তার সহযোগি ইয়ামিছ আলীর ছেলে আনছার মিয়া (২৯), কুতুব আলীর ছেলে মো. ছামাদ মিয়া (২৮), মৃত ইরফান আলীর ছেলে শফিক মিয়া (২৮), মৃত মাছিম মিয়ার ছেলে সুমন মিয়া (১৯), শওকত আলীর ছেলে পাপ্পু হোসেন (১৮), আলাউদ্দিন (১৮)সহ তাদের অপর ২-৩ জন সহযোগি মিলে কিশোরকে মুখ চেপে ধরে জোরপূর্বক বলৎকার করে। একপর্যায়ে কিশোরের চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এলে বলৎকারকারীরা পালিয়ে যায়। স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় কিশোরের পিতা তাকে উদ্ধার করে কুলাউড়া হাসপাতালে ভর্তি করেন। কিশোরের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

এদিকে কিশোরের পিতা ০৩ নভেম্বর মঙ্গলবার রাতে কুলাউড়া থানায় ৭ জনের নামোল্লেখ করে আরও অজ্ঞাতনামা ২-৩ জনের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। ০৪ নভেম্বর রাতেই পুলিশ মামলাটি নথিভুক্ত করে। মঙ্গলবার রাতে স্থানীয় জনতা ঘটনার মুলহোতা আতিক মিয়া, শফিক মিয়া, সুমন মিয়াকে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করে।

কুলাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. ইয়ারদৌস হাসান জানান, আটক ৩জনকে ০৫ নভেম্বর বৃহস্পতিবার সকালে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতার পুলিশের চেষ্টা অব্যাহত আছে।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews