কুলাউড়ার পালকিছড়া বাগানে শিশুদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা উপকরণ বিতরণ কুলাউড়ার পালকিছড়া বাগানে শিশুদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা উপকরণ বিতরণ – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২, ১০:১৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বড়লেখা ও জুড়ীতে মজুরী বৃদ্ধির দাবীতে চা শ্রমিকদের কর্মবিরতি বড়লেখায় ছুটি কাটিয়ে দুবাই যাওয়া হল না দুবাই প্রবাসী হাদীর বেতন ভাতা বৃদ্ধিতে ৩৪ চা বাগানে শ্রমিকদের কর্মবিরতি চলছে বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম কমছে, দেশেও কমবে : অর্থমন্ত্রী কুলাউড়ায় বখাটেপনার প্রতিবাদ করায় শতাধিক পানগাছ কাটার অভিযোগ জুড়ীতে অধ্যক্ষ ফখর উদ্দিন ও অধ্যাপক সেলিনা বেগমকে সংবর্ধনা কুলাউড়া যুবলীগের আজীবন সভাপতি খসরুজ্জামানের ২১তম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত বড়লেখার সুজানগরে বন্যার্তদের জন্য ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প মাধবকুণ্ডে অসামাজিক কর্মকান্ডে আটক ৮ কিশোক-কিশোরী কুলাউড়া উপজেলা প্রকৌশলীর উপর হামলা : আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভায় নিন্দা

কুলাউড়ার পালকিছড়া বাগানে শিশুদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা উপকরণ বিতরণ

  • বৃহস্পতিবার, ১২ নভেম্বর, ২০২০

এইবেলা, কুলাউড়া ::

মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলা সীমান্তবর্তী শরীফপুর ইউনিয়নের পালকিছড়া চা বাগানে কোভিড-১৯ এ ক্ষতিগ্রস্থ চা শ্রমিক পরিবারের ২৬৫ জন শিশুর মাঝে খাদ্য সামগ্রীসহ স্বাস্থ্য সু-রক্ষার উপকরণ বিতরণ করা হয়। এসব বুধবার ১১ নভেম্বর বিকেলে মধ্য ও দক্ষিণ বাংলাদেশ শিশু উন্নয়ন প্রকল্প পালকিছড়ার আয়োজনে আনুষ্ঠানিকভাবে এসব বিতরণ করেন কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ টি এম ফরহাদ চৌধুরী।

মধ্য ও দক্ষিণ বাংলাদেশ শিশু উন্নয়ন প্রকল্প পালকিছড়ার আহ্বায়ক রেভারেন্ট জন ব্রাইট গাজীর সভাপতিত্বে ও প্রকল্প ব্যবস্থাপক শ্যামুয়েল রোকন মল্লিকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শরীফপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জুনাব আলী। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইউপি সদস্য গনেশ লাল গোয়ালা, ইউপি সদস্য সুকরা ভল, অগ্নেষ গমেজ, প্রভোধ রায় প্রমুখ। শিশুদের মাজে বক্তব্য রাখে সুমন দাস ও ময়নামতি ভর।

খাদ্য সামগ্রী ও স্বাস্থ্য সু-রক্ষা উপকরণ বিতরণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি শরীফপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জুনাব আলী বলেন, এ প্রকল্পের কার্যক্রম দীর্ঘ দিন ধরে সুমানের সাথে পরিচালিত হচ্ছে।

প্রধান অতিথি কুরাউড়া উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা এ টি এম ফরহাদ হোসেন বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর জন্য উন্নয়নে চেষ্টা করে যাচ্ছে। তিনি বিশ্বাস করেন যে সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি সংস্থা সমূহ এক হয়ে যেভাবে কাজ করছে তাতে ২০২১ সালে বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের দেমে পরিণত হবে। উপস্থিত শিশুদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন তোমরাই আগামীর ভবিষ্যৎ। শীতকালে কোভিড-১৯ সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য মা, শিশু ও প্রতিবেশীদের মাস্ক পরতে পরামর্শ প্রদান করেন। প্রকল্পে অবহেলিত অষহায় শিশুদের দায়িত্ব নেয়া এবং শিশুদের পারিবারিক শিক্ষার গুরুত্ব আরোপ করেন।

মা ও শিশুরা সমাজে সবচেয়ে বেশী অবহেলিত। তাদের প্রতি উদারতা ও মানবতা দেখানো এই বিশেষ কাজের জন্য তিনি প্রকল্পের সকলকে ধন্যবাদ জানান। তিনি আরো বলেন প্রকল্পের জন্য যদি বিশেষ সুযোগ থাকে তার পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগিতা থাকবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

অনুষ্ঠানে প্রতিটি শিশুকে ১৪ কেজি করে চাল, দেড় কেজি মুসুর ডাল, আধা লিটার, ৪ কেজি আলু, ১টি করে লাইফবয় সাবান, ১টি হুইল সাবান, ৮টি মাস্ক ও ১টি ব্যাগ প্রদান করা হয়।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews