কুলাউড়া হাসপাতালে অ্যাম্বুলেন্স অচল : বেসরকারিতে গুনতে হচ্ছে দ্বিগুণ ভাড়া কুলাউড়া হাসপাতালে অ্যাম্বুলেন্স অচল : বেসরকারিতে গুনতে হচ্ছে দ্বিগুণ ভাড়া – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৩৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কমলগঞ্জে মসজিদের কমিটি নিয়ে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত-৩ কমলগঞ্জে ব্যবসায়ী নেতার বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ বড়লেখায় পুষ্টি বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষে ইমামদের প্রশিক্ষণ কুলাউড়ায় এক ভুক্তভোগী পরিবারের সংবাদ সম্মেলন : মামলার বাদীসহ স্বাক্ষীদের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল  বড়লেখা চৌকি আদালত লিগ্যাল এইড বিশেষ কমিটির মাসিক সভা কমলগঞ্জে প্রেম সংক্রান্ত জেরে বন্ধুর ছুরিকাঘাতে বন্ধু আহত কমলগঞ্জে আড়াই মাস পর শিশুধর্ষণ চেষ্টাকারী পুলিশের হাতে আটক মৌলভীবাজারে সাংবাদিকদের প্রধানমন্ত্রীর চেক বিতরণ তালিকায় অনিয়ম মুরগি-ডিমের টাকাও আত্মসাৎ করল এহসান গ্রুপ! বড়লেখা চৌকি আদালত লিগ্যাল এইড বিশেষ কমিটির সভা

কুলাউড়া হাসপাতালে অ্যাম্বুলেন্স অচল : বেসরকারিতে গুনতে হচ্ছে দ্বিগুণ ভাড়া

  • বৃহস্পতিবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ১৬০ বার পড়া হয়েছে

এইবেলা, কুলাউড়া ::

মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলা ৫০ শয্যা হাসপাতালের অ্যাম্বুলেন্সটি গত ৮ দিন থেকে অচল। ফলে অ্যাম্বুলেন্স সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে রোগিরা দ্বিগুণ ভাড়ায় বেসরকারি অ্যাম্বুলেন্স ভাড়া নিতে বাধ্য হচ্ছেন।

সরকারি অ্যাম্বুলেন্স চালক লিটন মিয়া জানান, গত ১২ ফেব্রুয়ারি অ্যাম্বুলেন্সের এসি পাম্প হঠাৎ করে নষ্ট হয়ে যাওয়া গাড়িটি অচল হয়ে পড়ে। বিষয়টি তিনি সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাকে জানিয়েছেন। কিন্তু গত ৮দিন থেকে অ্যাম্বুলেন্স অচল থাকায় কুলাউড়া হাসপাতাল থেকে রেফার্ড করা মৌলভীবাজার সদর ও সিলেট ওসমানী হাসপাতালের রোগিরা সরকারি অ্যাম্বুলেন্স সেবা থেকে বঞ্চিত। দিনে ২ থেকে ৩ বার সরকারি অ্যাম্বুলেন্স রোগিরা ব্যবহার করতো স্বল্প ভাড়ায়। গাড়ি অচল হওয়ায় রোগিদের মৌলভীবাজার কিংবা সিলেট যেতে ভাড়া গুনতে হচ্ছে দ্বিগুণ।

জানা যায়, সরকারি অ্যাম্বুলেন্সের জরুরি মেরামত কাজের উদ্যোগ নিতে হবে। সেই বৃটিশ আমলের মত গাড়ি নষ্ট হওয়ার পর টেমোতে জানানো। তারা এসে সঠিকতা যাচাই করে রিপোর্ট প্রদানের পর গাড়ি মেরামত করার সেই দীর্ঘসূত্রিতার কারণে শুধু শুধু সময় বিলম্ব করা হয়। ফলে একটা সমস্যা সমাধানের আগে অন্য ত্রুটি দেখা দেয়।

কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. নুরুল হক জানান, সরকারি গাড়ি নষ্ট হলে ঢাকায় টেমো নামাক প্রতিষ্ঠানকে জানাতে হয়। তারা এসে গাড়ির যন্ত্রাংশ সত্যতা যাচাই করে রিপোর্ট দেবে। তারপর সেই যন্ত্রাংশ সরকারি টাকায় কিনে লাগাতে হয়। ফলে কিছুদিন সময়তো যাবেই। এসি পাম্প লাগাতে প্রায় ২৫ হাজারের বেশি টাকা খরচ পড়বে।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews