কমলগঞ্জে আগুনে পুড়ে ছাঁই দরিদ্রের কুঁড়েঘর কমলগঞ্জে আগুনে পুড়ে ছাঁই দরিদ্রের কুঁড়েঘর – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ০২:৪২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বড়লেখা জামেয়া দাখিল মাদ্রাসার নির্মাণাধীন ভবনের নিচ ভরাটে বালুর পরিবর্তে মাটি মৌলভীবাজার পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত কাউকে বাদ দিয়ে নয় জোটের বিভাগীয় সমন্বয় কমিটি গঠন বড়লেখায় নবীন এগ্রো ফুডের ব্রাঞ্চ অফিস উদ্বোধন ও বর্ষপূর্তিতে দোয়া ওয়ার্কার্স পার্টির ঢাকা বিভাগীয় সমাবেশ সফল করার আহবান কমরেড মেননের আত্রাইয়ে শেখ রাসেল কম্পিউটার ল্যাবের ১৩টি ল্যাপটপ চুরি কমলগঞ্জে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যে বিদ্যা দেবীর আরাধনা নিয়োগ বাণিজ্য কমলগঞ্জে শিক্ষক নিয়োগের ফলাফর ৩ মাসেও প্রকাশ হয়নি কুলাউড়া প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলের কম্বল বিতরণ করেন প্রটোকল অফিসার রাজু ভাতিজির বাল্য বিবাহে বাঁধা দেওয়ায় কাল হলো চাচার পরিবারের 

কমলগঞ্জে আগুনে পুড়ে ছাঁই দরিদ্রের কুঁড়েঘর

  • বৃহস্পতিবার, ২৫ মার্চ, ২০২১

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি ::

আগুনে পুড়ে ছাই হলো হতদরিদ্র খোকন শব্দকরের কুঁড়ে ঘর, এখন তিনি সর্বস্ব হাড়া। বুধবার (২৪ মার্চ) দুপুর ৩টায় মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের আদমপুর ইউনিয়নের উত্তরভাগ গ্রামে শব্দকর পাড়ায় খোকন শব্দকরের কুঁড়ে ঘরে আগুন লেগে তার সর্বস্ব পুড়ে ছাঁই হয়ে গেছে।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, রান্না ঘরের চুলা থেকে এই আগুন লাগে,এসময় পরিবারে সবাই বাইরে কাজে ছিল,তখন কমলগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস দেওয়া হয়। ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে যাওয়ার আগেই আশেপাশের প্রতিবেশীরা মিলে আগুন নেবায়। আগুন লাগার ৩০ মিনিটের ভেতরে সবকিছু পুরে চাই হয়ে যায়।

খোকন শব্দকর কান্না জড়িত কন্ঠে জানান, কিভাবে আগুন ঘরে লাগলো বুজতে পারলাম না,মুহুতের সাথে সবকিছু পুড়ে চাই হয়ে যায়। এখন পথে বসার উপক্রম। আমার পরিবারে ৫জন সদস্য, এখন পরিবার পরিজন নিয়ে কি করবো বুজতে পারছি না।

এদিকে স্থানীয় ইউপি সদস্য বশির বক্স জানান, সম্ভবত রান্না ঘরের চুলা থেকে আগুনের সূত্রপাত হতে পারে। খবর পেয়ে তিনি প্রতিবেশীদের নিয়ে আগুন নিভানোর চেষ্টা করেন। তবে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরাও এ সময় ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। এখন সর্বস্ব হারিয়ে পরিবার পরিজন নিয়ে খোকন শব্দকরের এখন পথে বসার উপক্রম।

তিনি আরো বলেন, তাদের প্রায় ৭০ হাজার টাকার মতো ক্ষয়ক্ষতি হতে পারে। এসময় তিনি তাদেরকে নগদ অর্থ প্রদান করেন,এবং ঘটনাস্থালে ইউপি চেয়ারম্যান এসে তাদের চাল এবং ডালের ব্যবস্থা করেছেন। পরবর্তিতে তাদেরকে সকল প্রকার সহযোগীতা করা হবে।

কমলগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের লিডার ফারুকুল আসলাম জানান,এটা রান্না ঘরের চুলা থেকে এ আগুনের সূত্রপাত হয়েছে,চুলার উপড় গোভরের লাঠি ছিল,আর সেই লাঠি গুলো গরম হয়ে আগুন লেগে যায়। আমরা খবর পাওয়ার সাথে সাথে ঘটনাস্থালে গিয়েছি। তবে আমরা পৌছার আগেই আগুন নিভিয়ে ফেলে এলাকাবাসী। তাদের ক্ষতির পরিমান ৭০ হাজার টাকার মতো হবে। #

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews