কুলাউড়ার হাজিপুর ইউনিয়ন : চেয়ারম্যান হয়েই ফের বেপরোয়া ওদুদ বখস ও তার সহযোগিরা কুলাউড়ার হাজিপুর ইউনিয়ন : চেয়ারম্যান হয়েই ফের বেপরোয়া ওদুদ বখস ও তার সহযোগিরা – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ০২:৪৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :

কুলাউড়ার হাজিপুর ইউনিয়ন : চেয়ারম্যান হয়েই ফের বেপরোয়া ওদুদ বখস ও তার সহযোগিরা

  • শনিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০২১

এইবেলা, কুলাউড়া ::

কুলাউড়া উপজেলার হাজিপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার ৩ দিনের মাথায় যুবলীগ নেতার বাড়ির নির্মাণাধীণ সীমানা প্রাচীর ভেঙে ফেলার অভিযোগ পাওয়া গেছে নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান ওদুদ বখস ও তার ভাইয়ের বিরুদ্ধে। শনিবার ০৪ ডিসেম্বর সংবাদ সম্মেলন করে এমন অভিযোগ করেন সিলেট মহানগর যুবলীগ নেতা ও হাজিপুর ইউনিয়নের পাইকপাড়া গ্রামের বাসিন্দা মাজহারুল আলম।

এঘটনায় নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান ওদুদ বখসকে প্রধান করে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এলাকায় দু’পক্ষে উত্তেজনা বিরাজ করছে। যেকোন সময় দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের আশঙ্কা রয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে মাজহারুল আলম অভিযোগ করেন, প্রায় একমাস পূর্বে উপজেলার হাজীপুরের রনচাপ মৌজার জে.এল নং ৮৮, খতিয়ান নং ৬২ এবং ৭৩০ ও ৭৭৫ নং দাগের ৪৫ শতক জায়গার চারপাশে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ শুরু করেন। সম্প্রতি অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনের আগে ওই ইউনিয়নের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান ও ইউপি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওয়াদুদ বক্সের ভাই ছালিক বক্স ২ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন। চাঁদা না দেওয়ায় নির্বাচনের ৩ দিনের মাথায় বৃহস্পতিবার দুপুরে ওয়াদুদ বক্সের ইন্দনে মেম্বার পদপ্রার্থী জাহাঙ্গীর হোসেন নামে স্থানীয় এক বাসিন্দা সীমানা প্রাচীরের পিলার ভেঙ্গে ফেলেন। পরদিন শুক্রবার আবারও ওয়াদুদ বক্সের ভাই ছালিক বক্স দেশীয় অস্ত্র ও লোকজন নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে নির্মাণাধীন সীমানা প্রাচীর ভাঙচুর করেন। এতে প্রায় ৫ লাখ টাকার ক্ষতি হয়।

ভাঙচুর শেষে ছালিক বক্স মুঠোফোনে মাজহারুলকে এ বিষয়ে কোন আইনী ব্যবস্থা গ্রহণের চেষ্টা করলে প্রাণনাশের হুমকি দেন। থানা পুলিশ ঘটনাস্থল সরেজমিনে পরিদর্শন করেন এবং পরিস্থিতি শান্ত করেন।
এ ঘটনায় শনিবার ভুক্তভোগী মাজহারুল আলম বাদি হয়ে হুকুমদাতা হিসেবে ওয়াদুদ বক্স, ছালিক বক্সকে প্রধান আসামী, জাহাঙ্গীর হোসেন, সামছুল হক, লিয়াকত আলী, রইছ আলী, মখন মিয়া, সিয়াম মিয়াকে অভিযুক্ত করে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

অভিযোগের ব্যাপারে জানতে চাইলে হাজীপুরের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান ওয়াদুদ বক্স জানান, আমার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সত্য নয়। রাস্তা নিয়ে স্থানীয় কয়েকটি গ্রামের বাসিন্দাদের সাথে মাজহারুল আলমের জায়গার সীমানা প্রাচীর নির্মাণ নিয়ে বিরোধ ছিলো। এলাকার লোকজনের বাঁধা না মেনে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করায় এলাকার লোকজনই উত্তেজিত হয়ে সীমানা প্রাচীর ভাঙচুর করেছে বলে তিনি দাবি করেন।

এ বিষয়ে কুলাউড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আমিনুল ইসলাম জানান, হাজীপুরে রাস্তার ওপর সীমানা প্রাচীর নির্মাণ নিয়ে স্থানীয় দুই পক্ষের বিরোধ চলছে। শুক্রবার সীমানা প্রাচীর ভাঙচুরের ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়েছে। দুই পক্ষের বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews