পুকুরে ঢিল ছোঁড়ায় বড়লেখায় ৬ বছরের শিশুর ওপর নির্মম নির্যাতন পুকুরে ঢিল ছোঁড়ায় বড়লেখায় ৬ বছরের শিশুর ওপর নির্মম নির্যাতন – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ০২:৫৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ত্রাণ বিতরণে অনিয়ম হলে কঠোর ব্যবস্থা : ইউএনও, বড়লেখা কুলাউড়ায় পানীবন্দি মানুষদের মাঝে জামায়াতের উপহার! কুলাউড়ায় ৫ ইউনিয়নে বন্যার্তদের মাঝে খাদ্য সহায়তা প্রদান কুলাউড়ায় রেললাইনে পানি, ট্রেন চলাচলে নতুৃৃন নির্দেশনা বড়লেখায় আশ্রয়কেন্দ্রে ছুটছে দুর্গতরা, ত্রাণের জন্য হাহাকার বড়লেখায় ৭ হাজার গ্রাহকের সংযোগ বিচ্ছিন্ন, পানিবন্দী মানুষের চরম ভোগান্তি বড়লেখায় ঢলের পানিতে ডুবে স্কুলছাত্রীর মৃত্যু স্পেনে যুবলীগ কাতালোনিয়া শাখার উদ্যোগে ঈদ পুনর্মিলনী ও আলোচনা মৌলভীবাজারে বন্যার পানিতে ডুবে ২ জনের মৃত্যু কুলাউড়ায় বন্যা আশ্রয় কেন্দ্র পরিদর্শণ করলেন মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক

পুকুরে ঢিল ছোঁড়ায় বড়লেখায় ৬ বছরের শিশুর ওপর নির্মম নির্যাতন

  • বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী, ২০২২

বড়লেখা প্রতিনিধি:

বড়লেখার দক্ষিণভাগ উত্তর (কাঁঠালতলী) ইউনিয়নের মাধবগুল গ্রামের ষাটোর্ধ এক প্রভাবশালী ব্যক্তি পুকুরে ঢিল ছোঁড়ার অপরাধে ৬ বছরের এক শিশুর ওপর অমানবিক নির্যাতন চালিয়েছে। গত তিনদিন ধরে শিশুটি শয্যাসায়ী। এব্যাপারে আহত শিশুর মা রীনা বেগম থানায় অভিযোগ করেছেন। নির্যাতনকারী ব্যক্তি প্রভাবশালী হওয়ায় স্থানীয় একটি মহল নির্মম ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার অপচেষ্টা লিপ্ত হয়েছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার মাধবগুল গ্রামের হতদরিদ্র রিকশা চালক আলিম উদ্দিনের ৬ বছরের শিশুপুত্র হাবিবুর রহমান মুন্না রোববার বিকেলে সাথী শিশুদের সাথে বাড়ির পাশের মাঠে খেলা করছিল। প্রতিবেশী আইনুল ইসলামের (৬০) পুকুর পাড়ের গাছে একটি পাখি দেখে সে ঢিল ছুঁড়ে। মুন্নার ঢিলটি প্রভাবশালী আইনুল ইসলামের পুকুরে পড়ে যাওয়ায় তিনি অবোঝ শিশুটিকে ধরে এনে বাশের কঞ্চি দিয়ে হাতে-পিঠে বেধড়ক পিটিয়ে ও পুকুরের পানিতে চুবিয়ে গুরুতর আহত করেন। তাতেও ক্ষান্ত হননি, দুই হাতে উপরে তুলে মাটিকে আচড় দিলে থাকলে শিশুটি পায়খানা করে ফেলে। তবুও নির্যাতন বন্ধ করেননি। পরে অবশ অবস্থায় পাশের নির্জন স্থানে ফেলে দেন।

নির্মম নির্যাতনের শিকার শিশু হাবিবুর রহমান মুন্নার মা রীনা বেগম জানান, সন্ধ্যায় বাড়ি না ফেরায় মুন্নাকে খুঁজতে থাকেন। খেলার সাথীদের তথ্যে সন্ধ্যার পর রাস্তার পাশে অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন। সেখান থেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন। সোমবার এব্যাপারে তিনি আইনুল ইসলামের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। পুলিশ ঘটনা তদন্ত করায় সে ক্ষীপ্ত হয়ে আমার রিকশা চালক স্বামীকে মাদক ও ডাকাতি মামলায় ঢুকিয়ে দেওয়ার হুমকি ধমকি দিচ্ছে। থানার অভিযোগ তুলে নেওয়ার জন্য স্থানীয় প্রভাবশালীরা নানাভাবে ভয়ভীতি দেখাচ্ছে।

থানার ওসি মো. জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার জানান, ঘটনাটি অত্যন্ত অমানবিক। থানার একজন এসআই পাঠিয়ে অভিযোগটি তদন্ত করেছেন। এব্যাপারে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২ - ২০২৪
Theme Customized By BreakingNews