কুলাউড়ায় আশ্রয়ন প্রকল্পের নির্মানাধীন ঘর পরিদর্শনে জেলা প্রশাসক কুলাউড়ায় আশ্রয়ন প্রকল্পের নির্মানাধীন ঘর পরিদর্শনে জেলা প্রশাসক – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮:৩৩ অপরাহ্ন
ভর্তি বিজ্ঞপ্তী

কুলাউড়া উপজেলা ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নবীন চন্দ্র সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ে ২০২৩ শিক্ষা বর্ষের ভর্তি বিজ্ঞপ্তী। ভর্তি জন্য বিদ্যালয় চলাকালীন সময়ে অফিস থেকে ফরম সংগ্রহ ও বিস্তারিত জানার অনুরোধ করা হইলো। প্রধান শিক্ষক

কুলাউড়ায় আশ্রয়ন প্রকল্পের নির্মানাধীন ঘর পরিদর্শনে জেলা প্রশাসক

  • সোমবার, ২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২২

এইবেলা, কুলাউড়া ::)

মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার ভাটেরা ইউনিয়নে মুজিববর্ষ উপলক্ষে আশ্রয়ন প্রকল্পের আওতায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার ভূমিহীন ও গৃহহীনদের গৃহ নির্মাণ কার্যক্রম পরিদর্শন করেছেন জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান। রোববার (২০ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে ভাটেরা ইউনিয়নের ইসলামপুর গ্রামে নির্মাণকাজের পরিদর্শন করেন তিনি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এটিএম ফরহাদ চৌধুরী, সহকারী কমিশনার (ভূমি) স্বজল মোল্লা, কুলাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বিনয় ভূষণ রায়, উপজেলা প্রকৌশলী আমিনুল ইসলাম মৃধা, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শিমুল আলী, ভাটেরা ইউপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলামসহ স্থানীয় এলাকার গণমান্য ব্যক্তিবর্গ।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস সূত্রে জানা যায়, আশ্রয়ন প্রকল্পের আওতায় তৃতীয় পর্যায়ের ১১৩ টি ঘরের মধ্যে প্রথম ধাপে ৬০টি ঘরের কাজ চলমান আছে। এরমধ্যে ভাটেরা ইউনিয়নে ২৬টি, হাজীপুর ইউনিয়নে ১২টি, পৃথিমপাশা ইউনিয়নে ২১টি, ব্রাহ্মণবাজার ইউনিয়নে ১টি ঘরের কাজ চলমান আছে। বাকি ৫৩টি ঘরের কাজ দ্রুত শুরু করা হবে। এর আগে উপজেলার ১৩ ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভায় প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপে ২১০টি গৃহহীন পরিবারের মাঝে ঘর প্রদান করা হয়।

পরিদর্শন শেষে গণমাধ্যমকর্মীদের সাথে আলাপকালে জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান বলেন, দেশের একজন মানুষও মুজিববর্ষে গৃহহীন থাকবে না। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়নে দেশের সকল ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান কার্যক্রম চলমান রয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় কুলাউড়ার ভাটেরায় নির্মিত ঘরগুলো পরিদর্শনে এসে দেখতে পাই ঘরের কাজ খুবই ভালো ও সুন্দরভাবে চলছে। ঘরের কাজের ডিজাইন ঠিক রেখে উপকরণ সর্বোচ্চ ভালো মানের দেয়া চেষ্টা করেছি। কেননা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সর্বোচ্চ আবেগের জায়গা হলো আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘরগুলো। ঘরের কাজের গুণগতমান ও টেকসইয়ের জন্য গুরুত্ব দিতে কাজে নিয়োজিতদের নির্দেশনা দেন তিনি। ঘরের কাজে কোন অনিয়ম যাতে না হয় সেজন্য সবসময় কাজগুলো তদারকি করার জন্য উপজেলা প্রশাসনকে নির্দেশনাও দেন তিনি। তিনি বলেন, মুজিব বর্ষের প্রতিশ্রুত ঘরগুলো চলতি বছরের মধ্যে জেলার সকল ভুমিহীনদের মধ্যে বিতরন করতে পারবো বলে আশাবাদী। এই কাজ বাস্তবায়নে উপজেলা প্রশাসনের পাশাপাশি স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা সক্রিয় ভূমিকা রাখছেন।

পরে সন্ধ্যায় বরমচাল ইউনিয়নের ইছলাছড়া পুঞ্জিতে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর বাসিন্দা লিটন স্নাল ও জয়া ধারকে দুটি ঘরের চাবি হস্তান্তর করেন জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান। সেখানে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এটিএম ফরহাদ চৌধুরী, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ফজলুল হক খান সাহেদ, সহকারী কমিশনার (ভূমি) স্বজল মোল্লা, ওসি বিনয় ভূষণ রায়, বরমচাল ইউপি চেয়ারম্যান খোরশেদ আহমদ খান সুইট প্রমুখ।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
সুরমা ব্রিকস্, ঢুলিপাড়া (মৈশাজুরী) কুলাউড়া, মৌলভীবাজার।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews