কুলাউড়ায় খাস জমি উদ্ধারে টানানো সরকারি সাইনবোর্ড অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন কুলাউড়ায় খাস জমি উদ্ধারে টানানো সরকারি সাইনবোর্ড অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ০৪:২৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কুড়িগ্রামে ৯ উপজেলায় কৃষিতেই ১০৫ কোটি টাকা ক্ষতি সিলেটের কোম্পানীগঞ্জে খাসিয়াদের গুলিতে ২ বাংলাদেশি নিহত কমলগঞ্জে বিনামূল্যে চক্ষু শিবির অনুষ্ঠিত কুলাউড়ায় আশ্রয়ণের ঘর বরাদ্দের নামে অর্থ আত্মসাতে অভিযুক্ত ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু ব্যারিস্টার সুমনের সহযোগিতায় বাঁচার আকুতি প্রবাসে বন্দী যুবকের! সিলেটের বন্যাদুর্গত মানুষের পাশে মেডগ্লোবাল শিশু হত্যা মামলার সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার কোটা সংস্কারে আদালতের রায় না আসা পর্যন্ত কিছু করার নেই – প্রধানমন্ত্রী কমলগঞ্জে পূজা উদযাপন পরিষদের বৃক্ষরোপন কুড়িগ্রামে শিশুদের প্রতি সহিংসতা বন্ধে স্থানীয় স্টেক হোল্ডারদের সাথে সংলাপ

কুলাউড়ায় খাস জমি উদ্ধারে টানানো সরকারি সাইনবোর্ড অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন

  • বৃহস্পতিবার, ৩১ আগস্ট, ২০২৩

কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি :: মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার শরীফপুর ইউনিয়নের সঞ্জরপুর বেরিগাঁও গ্রামে ‘সম্পত্তির মালিক সরকারের পক্ষে জেলা প্রশাসক’ সাইনবোর্ড টানানোর প্রতিবাদে ৩১ আগস্ট বৃহস্পতিবার চাতলাপুর স্থল শুল্কবন্দর সড়কে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা করেছে গ্রামবাসী।

স্থানীয় গ্রামবাসী অভিযোগ করে বলেন, দীর্ঘ কয়েক যুগ যাবত আমাদের পূর্বসূরীগন সঞ্জরপুর মৌজায় বসবাস করে গেছেন। বর্তমানে আমরা উত্তরসূরি হিসেবে বসবাস ও চাষাবাদ করে জীবিকা নির্বাহ করে আসছি। সম্প্রতি এই জমিতে সরকারি সাইনবোর্ড টানানো হয়েছে। এতে জমি হারানোর ভয়ে গরিব কৃষকরা উদ্বিগ্ন ও হতাশ। এই জমি হারালে তাদের না খেয়ে মরতে হবে বলে তারা দাবি জানান।

গরিব কৃষকদের ভোগদখলকৃত ভূমিতে কোন প্রকল্প বাস্তবায়ন না করার জন্য স্থানীয় শরীফপুর ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সুন্দর আলীর সভাপতিত্বে এবং মাওলানা সাইফুর রহমানের পরিচালনায় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন প্রাক্তন ইউপি চেয়ারম্যান জনাব আলী, তফাজ্জুল হক চিনু, মুক্তিযোদ্ধা সবুর মিয়া, ইসমাইল আলী, আক্কাস মিয়া, সজ্জাদ আলী, আসকির আলী, কৃষক মুমিন আলী, সমাজকর্মী জামাল উদ্দীন, সাবেক ইউপি সদস্য হারুন মিয়া, জাফর আলী, মাওলানা আব্দুল জব্বার, নজরুল ইসলাম, ফিরুজ আলী, সায়েদ আলী, জুনেদ মিয়াসহ মুক্তিযোদ্ধা সন্তানরা।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, জমিগুলো যাদের দখলে তারা খুবই গরিব ও অসহায় লোক। সরকারি খাসজমি ব্যতিত তাদের আর অন্য কোথাও জমি নেই। এই জমি এসব অসহায় নামে লিজ প্রদান করা হোক। ২০১৯ সালেও এখানে তৎকালীন ইউএনও আসার পর ২০ জন বীর মুক্তিযোদ্ধার আবেদনের ফলে সরকারি আবাসন নির্মাণ প্রকল্প বাতিল করে অন্যত্র আবাসন নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়ন করেন। এই বিষয়টি নিয়ে ইতিমধ্যেও গ্রামবাসীর পক্ষ থেকে বিভিন্ন দপ্তরে আবেদন জানানো হয়েছে বলে তারা দাবি করেন।

এব্যাপারে কুলাউড়া উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. মেহেদি হাসান জানান, এটা সরকারি খাস জমি। মাননীয় জেলা প্রশাসক মহোদয়ের নির্দেশে খাস জমি উদ্ধারের অংশ হিসেবে উদ্ধারকল্পে সাইনবোর্ড টানানো হয়েছে। সরকারি জমি অবৈধভাবে দখল করে রাখা যাবে না। #

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২ - ২০২৪
Theme Customized By BreakingNews