‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌কুলাউড়ায় জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ দেয়াল ভেঙ্গে গাছ কাটা ও শ্লীলতাহানির অভিযোগ ‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌কুলাউড়ায় জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ দেয়াল ভেঙ্গে গাছ কাটা ও শ্লীলতাহানির অভিযোগ – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১০:১৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ব্যাড বয় হয়ে পর্দায় আসছেন সীমান্ত রেমালের তান্ডব : ১০ জনের মৃতু, ৩৫ হাজার ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত, বিদ্যুৎহীন ২ কোটি ৩৫ লাখ গ্রাহক সাধারণ সম্পাদকের দায়ীত্ব ফিরে পেলেন ডিপজল আত্রাইয়ের প্রতিটি বাজারে পাওয়া যাচ্ছে সুস্বাদু লিচু দামে চড়া ভালো অভিনেত্রী হয়ে একাকিত্বে জীবন কাটাতে চাইনি – প্রীতি জিনতা কুলাউড়ায় বিএনপির তিন নেতা কারাগারে কুলাউড়ার সীমান্তবর্তী শরীফপুরে ঝড়ে গাছ পড়ে ৩ সন্তানের জননীর মৃত‌্যু কুলাউড়ার সদপাশা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিদায় সংবর্ধনা কমলগঞ্জে মণিপুরি কমিউনিটি বেইজড ট্যুরিজম বিষয়ক মতবিনিময় ফুলবাড়ীর মানুষের দাবি বাংটুর ঘাটে ব্রিজ চাই

‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌কুলাউড়ায় জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ দেয়াল ভেঙ্গে গাছ কাটা ও শ্লীলতাহানির অভিযোগ

  • রবিবার, ৫ নভেম্বর, ২০২৩

কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি :: মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার শরীফপুর ইউনিয়নের তেলিবিল গ্রামে জমি সংক্রান্ত পূর্ব বিরোধের জের ধরে রোববার দুপুরে জোরপূর্বক প্রতিপক্ষের মালিকানাধীন বাড়ির দেয়াল ভেঙ্গে ভেতরে প্রবেশ করে ৭টি গাছ কেটে ফেলা এবং বাউন্ডারী দেয়াল ভাঙ্গার চেষ্টা করে। এসময়ে বাঁধা দিতে গেলে এক নারীকে মারধোর ও শ্লীলতাহানির অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনায় ফাতেমা বেগম বাদী হয়ে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে মৌলভীবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ৫নং আমলী আদালতে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

অভিযোগে জানা যায়, জমি সংক্রান্ত পূর্ব বিরোধের জের ধরে শরীফপুর ইউনিয়নের হরিপুর গ্রামের হিরন খাঁনের নের্তৃত্বে একই গ্রামের ফারুক মিয়া, বাবুল মিয়া, তেলিবিল গ্রামের পারভেজ মিয়া, জয়নাল আবেদীনসহ সংঘবদ্ধ দল এলকাছুর রহমানের বাড়ির বাউন্ডারি দেয়াল ভেঙ্গে বাড়িতে জোরপূর্বক প্রবেশ করে। এ সময় বাড়ির পুরুষ সদস্যরা বাড়িতে ছিলেন না। এরপর তারা বাড়ির উঠানে দু’টি কাঁঠাল গাছ, একটি পেয়ারা গাছ ও ৪টি কদম গাছ কাটতে থাকে ও পাকা বাউন্ডারী দেয়ালের একাংশ ভেঙ্গে ফেলে। এতে তাদেও প্রায় লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধিত হয়।

অভিযোগ করে মামলার বাদী ফাতেমা বেগম বলেন, আমার ছেলে জামাল মিয়ার স্ত্রী সুমাইয়া আক্তারকে প্রতিপক্ষরা মারধোর, টানাহেচড়া করে শ্লীলতাহানি ঘটায়।

এঘটনায় ১২ জনকে আসামী করে মৌলভীবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ৫নং আমলী আদালতে মামলা দায়ের করেছি।

এদিকে আদালতে মামলা করার পর বিবাদী পক্ষের লোকজন বাদী পক্ষের লোকদের নানাভাবে হুমকি প্রদান করছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

অভিযোগ বিষয়ে হিরন খাঁন বলেন, উভয়পক্ষের দাওয়াত পেয়ে আমি সালিশ বিচাওে ছিলাম। এসময় কিছুটা উত্তপ্ত হলে আমি বেরিয়ে আসি। এরপর কোন ঘটনা ঘটতে পারে।

ঘটনার ব্যাপারে জানতে চাইলে শরীফপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. খলিলুর রহমান জানান, দু’পক্ষের রাস্তা নিয়ে বিরোধ ছিলো। ঘটনার দিন সালিশ বিচারে ছিলাম, তবে কোন সিদ্ধান্ত না হওয়ায় চলে আসি। আসার পর শুনেছি ঘটনা ঘটেছে। তবে বিষয়টি সামাজিকভাবে সমাধানের চেষ্টা চলছে।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২ - ২০২৪
Theme Customized By BreakingNews