জানুয়ারি ২৪, ২০১৬
Home » ব্রেকিং নিউজ » ইউপি নির্বাচন : বড়লেখায় বিএনপি প্রস্তুতি নিচ্ছে জোরেশোরে

ইউপি নির্বাচন : বড়লেখায় বিএনপি প্রস্তুতি নিচ্ছে জোরেশোরে

এইবেলা, বড়লেখা, ২৪ জানুয়ারি :: সদ্য সমাপ্ত পৌরসভা নির্বাচনের এখনও এক মাস পূর্ণ হয়নি। এরই মধ্যে মৌলভীবাজারের বড়লেখায় বইছে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের হাওয়া। নির্বাচনী তফসিল ঘোষণার আগেই বড়লেখায় নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বিএনপি দলীয় সম্ভাব্য ২৪ চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী। সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীরা দলীয় মনোনয়ন আদায়ে জোর তৎপরতা চালাচ্ছেন বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে। গত ইউনিয়ন নির্বাচনে  ১০ইউনিয়নের মধ্যে আওয়ামীলীগ ৬টি , বিএনপি ৩টি ও জামায়েত ইসলামী সমর্থিত ১ জন চেয়ারম্যান বিজয় লাভ করে।

এবার বিএনপি আরো ইউনিয়নে বিজয় লাভের জন্য  কেন্দ্রীয়ভাবে ধানের শীষ প্রতীকে ইউপি নির্বাচনে বিএনপির অংশ গ্রহণের ঘোষণা আসায় মাঠে নেমেছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা। আর পৌর নির্বাচন শেষ হওয়ায় পাড়া-মহল্লায় স্থানীয়দের আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুও এখন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। ভোটারদের দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য বিভিন্ন ইউনিয়নে ব্যানার, বিলবোর্ড ও পোস্টারকেন্দ্রিক প্রচারের পাশাপাশি বাড়ি বাড়ি গিয়ে জনসংযোগও করছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা। ধর্মীয় ও সামাজিক উৎসবকে কেন্দ্র করে স্থানীয়দের সঙ্গে মতবিনিময়ের পাশাপাশি সম্ভাব্য চেয়ারম্যান পদ প্রার্থীরা দলের শীর্ষ পর্যায়ের নেতাদের সন্তুষ্টি লাভের জন্যও দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন।

Barlekh 1

জানা গেছে, সম্প্রতি মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি, কেন্দ্রীয় বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য ও প্রাক্তন প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট এবাদুর রহমান চৌধুরী এমপি তাঁর বড়লেখাস্থ বাসভবনে উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়নের নেতাকর্মীদের সাথে নির্বাচনে অংশগ্রহণ নিয়ে বৈঠক করেন। বৈঠকে নির্বাচনে অংশগ্রহণ নিয়ে প্রাথমিক আলোচনা ও কর্মীদের বিভিন্ন নির্দেশনা দেন প্রাক্তন এ প্রতিমন্ত্রী। তিনি তৃণমূল পর্যায়ে সকলকে নিয়ে প্রতি এলাকায় একজন জনপ্রিয় নেতাকে ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান, ওয়ার্ড ও সংরক্ষিত মহিলা ইউপি সদস্য পদে প্রার্থী করার জন্য প্রস্তুতি এবং দলীয় চেয়ারপার্সন যে নির্দেশনা দিবেন সে অনুয়ায়ী কাজ করার জন্য নেতাকর্মীদের পরামর্শ প্রদান করেন। এছাড়া সম্ভব হলে ২০ দলীয় জোটভূক্ত নেতৃবৃন্দের সাথেও যোগাযোগ করে সকলের মতামতের ভিত্তিতে প্রার্থী নির্ধারনের জন্য মতামত ব্যক্ত করেন তিনি।

বৈঠকে উপস্থিত বড়লেখা উপজেলা পরিষদ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ও কেন্দ্রীয় বিএনপির মানব সম্পদ উন্নয়ন বিষয়ক সম্পাদিকা রাহেনা বেগম হাসনা বলেন, ‘দলের প্রতি আনুগত্য ও ত্যাগ এবং তৃণমূলের মতামত যার পক্ষে থাকবে তাকেই ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দেওয়া হবে।’

এবারের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের জন্য বড়লেখা উপজেলার ১০টি ইউনিয়নে সম্ভাব্য যে সকল বিএনপির চেয়ারম্যান পদ প্রার্থীদের নাম শুনা যাচ্ছে, তাঁরা হলেন-বর্ণি ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন, ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি লোকমান উদ্দিন। সুজানগর ইউনিয়নের বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান নছিব আলী, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম ও নাদের আহমদ। দক্ষিণভাগ (দ:) ইউনিয়নে বিএনপি নেতা আব্দুল মুকিত লুলু, ইউপি মেম্বার ইকবাল হোসেন ও নজরুল ইসলাম টেক্কা। দাসেরবাজার ইউনিয়নে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান কমর উদ্দিন ও বিএনপি নেতা নজরুল ইসলাম। নিজ বাহাদুরপুর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান আলাল উদ্দিন, বর্তমান ইউপি মেম্বার ও ইউনিয়ন বিএনপির সম্পাদক মিছবাউল হক মিনু ও থানা ছাত্রদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি শরীফুল ইসলাম বাবলু। উত্তর শাহবাজপুর ইউনিয়নে অধ্যাপক আব্দুস সহিদ খান, জামাল উদ্দিন বক্স জমির মেম্বার। দক্ষিণ শাহবাজপুর ইউনিয়নের আব্দুল লতিফ আব্দুল, আব্দুল কুদ্দুছ স্বপন ও মোহাম্মদ শাহজাহান। সদর ইউনিয়নে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম মামুন ও ইসলাম উদ্দিন। তালিমপুর ইউনিয়নে মৌলভীবাজার জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম আহবায়ক দেলোয়ার হোসেন ও ইউপি বিএনপির সভাপতি আনোয়ার উদ্দিন। দক্ষিণভাগ (উ:) ইউনিয়নে ফজলুল হক ও অ্যাড. আবু নছর মো. মাসুদ।

এ ব্যাপারে মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি, কেন্দ্রীয় বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য ও প্রাক্তন প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট এবাদুর রহমান চৌধুরী এমপি ইউপি নির্বাচন নিয়ে বৈঠকের কথা নিশ্চিত করে বলেন, ‘পৌর নির্বাচনের পর বিএনপি এবার ধানের শীষে ইউপি নির্বাচনে অংশগ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বিএনপির এ নির্বাচনে অংশগ্রহণ আন্দোলনের অংশ। আন্দোলনের অংশ হিসেবে নেতাকর্মীরাও প্রস্তুতি নিচ্ছেন। চেয়ারম্যান পদে আগ্রহী প্রার্থী ও নেতাকর্মীদের এখন থেকে মাঠে কাজ করতে বলা হয়েছে।’
রিপোর্ট-লিটন শরীফ