কমলগঞ্জে পুলিশ সদস্যের করোনা জয় কমলগঞ্জে পুলিশ সদস্যের করোনা জয় – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০৫:৫১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
রাজনগরে আন্তর্জাতিক রেটিং দাবা প্রতিযোগিতা ১৫ ডিসেম্বর বিমান বাহিনী ৫০ তম প্রশিক্ষন সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত বড়লেখায় এসএসসিতে ২৩৯ ও দাখিলে ৬ শিক্ষার্থীর জিপিএ-৫ অর্জন মৌলভীবাজারে এক্স ঢাবিয়ান ১৫ সদস্যবিশিষ্ট ডিইউ এক্স-স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়েশন গঠন বড়লেখায় বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ বিষয়ক সমন্বয় সভা কমলগঞ্জে সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের উপশাখার উদ্বোধন কুড়িগ্রামে পা দিয়ে লিখে জিপিএ-৫ পেয়েছে অদম্য মেধাবী মানিক  ৯৫ জিপিএ-৫ শমশেরনগর বিএএফ শাহীন কলেজে আত্রাইয়ে শাহাগোলা ইউনিয়ন আ’লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত  কমলগঞ্জে ১০ এমপির উপস্থিতিতে ‘মাই কন্সটিটিউয়েন্সি’ পরামর্শমূলক সভা
বেকারি ভাড়া দেয়া হবে
মৌলভীবাজার জেলার জুড়ী উপজেলা সদরে সম্পূর্ন চালু অবস্থায় একটি বড় বেকারি (৬ হাজার স্কয়ার ফুট) ভাড়া দেয়া হবে। গ্যাস, বিদ্যুৎসংযোগ, ওভেন ও তান্দুরি আছে।
যোগাযোগ- ০১৮১৯৯৭৮৫৫৫

কমলগঞ্জে পুলিশ সদস্যের করোনা জয়

  • শনিবার, ১৩ জুন, ২০২০

এইবেলা, কমলগঞ্জ ::

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার পতনউষার ইউনিয়নের শ্রীসূর্য্য গ্রামের বাসিন্দা বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর সদস্য পলাশ বৈদ্য করোনা জয় করেছেন। গত ৩০ মে নিজ কর্মস্থল সিলেটের কানাইঘাটে করোনা শনাক্ত হন। এরপর ৩১ মে থেকে বিভাগীয় পুলিশ হাসপাতালে ভর্তির পর গত ১০ জুন তিনি সুস্থ হয়ে উঠেন। করোনাজয়ী এই পুলিশ সদস্য সংশিøষ্ট সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

করোনা জয়ী পুলিশ সদস্য পলাশ বৈদ্য জানান, জ্বর, কাশি, সর্দি, গলা ব্যাথা এসব শারীরিক কিছু উপসর্গ দেখা দেওয়ার পর গত ২৯ মে কানাইঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নমুনা দেন। পরদিনের রিপোর্টে পজেটিভ আসে। এরপর ৩১ মে বিভাগীয় পুলিশ হাসপাতাল সিলেটে তাকে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালে চিকিৎসার পাশাপাশি আমি গরম পানি, আদা লেবুর রং চা, গড়গড়া এসব পদ্ধতি যথারীতি নিয়মিত সেবন ও ব্যবহার করি। প্রথমদিকে শারীরিকভাবে কিছুটা অবনতি দেখা দিলে নিজের দৃঢ় মনোবল, চিকিৎসা ব্যবস্থা ও অন্যান্য খাবার দাবারের কারণে এক সপ্তাহের মধ্যেই সুস্থ হয়ে উঠি। আমি সুস্থ হওয়ায় দ্বিতীয় দফা ১০ জুন নমুনা দিলে ১১ জুন নেগেটিভ আসে। বর্তমানে নিজে হোম কোয়ারেন্টিনে আছি।

পলাশ আরো জানান, করোনা আক্রান্ত হলে নিজের মনোবল চাঙ্গা রাখতে হবে। সবসময় ইতিবাচক চিন্তা চেতনায় মনকে ধাবিত করতে হবে। তবে হাসপাতালে চিকিৎসক, নার্স ও পুলিশ বিভাগের সংশিøষ্ট কর্মকর্তা, সদস্যবৃন্দ, আত্মীয়স্বজন এবং বন্ধু বান্ধবদের দিকনির্দেশনা, উৎসাহে নিজেকে সুস্থ হতে সÿম হয়েছি। এজন্য সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

পলাশ বৈদ্য কমলগঞ্জ উপজেলার পতনঊষার ইউনিয়নের শ্রীসূর্য্য গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত শিÿক নিখিল বৈদ্যের ছেলে। পড়ালেখা শেষে ২০১০ সনে পুলিশের কনস্টেবল পদে সুনামগঞ্জে যোগদান করেন। বর্তমানে সিলেটের কানাইঘাট থানার কম্পিউটার অপারেটর হিসাবে কর্মরত।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
সুরমা ব্রিকস্, ঢুলিপাড়া (মৈশাজুরী) কুলাউড়া, মৌলভীবাজার।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews