বড়লেখায় প্রবাসীর ভুমিতে ঘর নির্মাণে বাঁধা মামলা দিয়ে হয়রানীর অভিযোগ বড়লেখায় প্রবাসীর ভুমিতে ঘর নির্মাণে বাঁধা মামলা দিয়ে হয়রানীর অভিযোগ – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ০৫:১৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিজয়ী সাব্বির, জাহাঙ্গির ও ডালিয়া শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাচনে বিজয়ী ভানু লাল, রাজু দেব ও হাজেরা খাতুন উপজেলা নির্বাচন: কমলগঞ্জে বিজয়ী বুলবুল, ওহাব ও বিলকিস শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাচন : ৪ সহকারী প্রিসাইডিং অফিসারকে অব্যাহতি রাজনগরে অটোরিক্শায় চার্জ দিতে গিয়ে যুবকের মৃত্যু হবিগঞ্জে নির্বাচনে দায়িত্ব পালনকালে সহকারী প্রিসাইডিং অফিসারের মৃত্যু সানি খানের নিপূণ হাতে চিত্রগ্রহণ হচ্ছে ব্যাড গার্লস সিরিজ ‘আমি কষ্টকর ও অগোছালো জীবন চাইনা – প্রভা উপজেলা নির্বাচন, কমলগঞ্জে ভোট গ্রহণ কাল, বৈরী আবহাওয়ার মধ্যেও নির্বাচনের প্রস্তুুতি নদী ভাঙ্গনে বন্যা কবলিত কমলগঞ্জের বিভিন্ন এলাকা, ১০টি স্থান ঝুঁকিপূর্ণ

বড়লেখায় প্রবাসীর ভুমিতে ঘর নির্মাণে বাঁধা মামলা দিয়ে হয়রানীর অভিযোগ

  • মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই, ২০২০

মহিলা ইউপি মেম্বারের ক্ষমতার দাপট !

এইবেলা, বড়লেখা ::

বড়লেখার দক্ষিণভাগ দক্ষিণ ইউপির ৩, ৬ ও ৭ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত আসনের মহিলা মেম্বার পারুল বেগমের বিরুদ্ধে ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে একই ইউপির গজভাগ গ্রামের দুবাই প্রবাসী আব্দুল মন্নানের ক্রয়কৃত ভুমিতে স্থাপনা নির্মাণে বাধা দেয়ার এবং প্রবাসীসহ তার পরিবারের সদস্যদের মামলা-মোকদ্দমায় জড়িয়ে হয়রানী করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে প্রায় ৪ মাস ধরে প্রবাসীর নির্মাণ সামগ্রী পড়ে নষ্ট হচ্ছে।

জানা গেছে, দুবাই প্রবাসী আব্দুল মন্নান গজভাগ গ্রামের মৃত মনির আলীর ছেলে আবুল হোসেনের নিকট থেকে ২০১২ সালের ৪ অক্টোবর সাব-কাবালা (দলিল নং-৩৬০১) মুলে ৪ শতাংশ ভুমি ক্রয় করেন। আর্থিক অসচ্ছলতার জন্য তিনি স্থাপনা নির্মাণ করতে না পারলেও উক্ত ভুমিতে গাছের চারা রোপন করেন। গত ১৫ মার্চ প্রবাসীর স্ত্রী মনোয়ারা বেগম ও ভাই আব্দুল হান্নান ওই ভুমিতে সীমানা প্রাচীর নির্মাণের জন্য ইট, বালুসহ নির্মাণ সামগ্রী মজুত করেন। মিস্ত্রীরা কাজ শুরু করতে গেলে ওই ভুমিটি ইউপি মেম্বার পারুল বেগমের বাড়ির সম্মুখে হওয়ায় তিনি ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে তাদেরকে বাধা দেন। থানায় প্রবাসীর স্ত্রী, ভাইসহ স্বজনদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন।

সরেজমিনে গেলে প্রবাসীর স্ত্রী মনোয়ারা বেগম, ভাই আব্দুল হান্নান জানান, ২০১১ সালে আবুল হোসেন উক্ত ভুমি বিক্রির বায়নাপত্র করেন। আরো ১ বছর পর প্রবাসী আব্দুল মন্নানের নামে জমি রেজিষ্ট্রী করেন। টাকা পয়সা জোগাড় না হওয়ায় এতদিন বাড়িঘর তৈরী করতে পারেননি। স¤প্রতি সীমানা প্রাচীরের জন্য বিদেশ থেকে টাকা পাঠালে কাজ শুরু করতে গেলে মেম্বারনি পারুল বেগম বাধা দেন। গ্রামপঞ্চায়েতের সালিশ বিচারও মানছেন না। আমাদের বিরুদ্ধে থানায় মিথ্যা অভিযোগ দিয়েছেন। উক্ত ভুমির ওপর স্থিতাবস্থা জারির জন্য নির্বাহী ম্যজিস্ট্রেট আদালতে ফৌজদারী কার্যবিধির ১৪৪ ধারায় মামলা করেছেন। প্রবাসীর স্ত্রী অভিযোগ করেন, জনপ্রতিনিধির দাপট দেখিয়ে অন্যায়ভাবে পারুল বেগম প্রায় ৮ বছর পূর্বে আমার স্বামীর কেনা ভুমি জবরদখলের চেষ্টা চালাচ্ছেন।

ইউপি সদস্যা পারুল বেগম জনপ্রতিনিধির দাপট দেখানোর অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, উক্ত ভুমি ক্রয়ের জন্য তিনিও আবুল হোসেনের সাথে বায়নামা করেন। সে গোপনে আব্দুল মন্নানের কাছে বিক্রি করে দেয়ায় তিনি সফি মামলা করেছেন যা বিচারাধীন রয়েছে। এটা তার বাড়ির সামনের জায়গা, কোনভাবেই কাউকে দখল দিবেন না। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করে স্থিতাবস্থা জারি করেছেন।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২ - ২০২৪
Theme Customized By BreakingNews