লক্ষ্মীপুরে স্ত্রী নির্যাতনের মামলায় ইউপি সদস্য কারাগারে লক্ষ্মীপুরে স্ত্রী নির্যাতনের মামলায় ইউপি সদস্য কারাগারে – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০১:৩৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কুলাউড়ার জয়চন্ডীতে পঞ্চায়েত প্রধানের উপর হামলা: ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী প্রধানমন্ত্রী চান না খাদ্যাভাবে কোনে মানুষ মারা যাক : প্রতিমন্ত্রী শফিক চৌধুরী এমপি বড়লেখায় এলজিইডি’র নারী কর্মীদের সঞ্চয়ের সোয়া কোটি টাকার চেক বিতরণ বড়লেখার বোবারথলের রাস্তা ও কালভার্ট বিধ্বস্ত-চরম দুর্ভোগ কুলাউড়ার পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু  কুলাউড়ায় পথে পথে গরুর হাট : বাজারবিমুখ ক্রেতারা কুলাউড়ার বরমচালে শিশুর মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে হামলা ও ঘরবাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ বড়লেখা থানা পুলিশের অভিযানে ৫ চোরাই গরু উদ্ধার, গ্রেফতর ২ কমলগঞ্জে মাগুরছড়া ট্র্যাজেডি দিবস পালিত ১৪ হাজার কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ দাবি ১৪ জুন কমলগঞ্জের মাগুরছড়া বিস্ফোরণের ২৭ বছর

লক্ষ্মীপুরে স্ত্রী নির্যাতনের মামলায় ইউপি সদস্য কারাগারে

  • মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই, ২০২০

আবীর আকাশ, লক্ষ্মীপুর ::

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে অশ্লীল ছবি তুলে যৌতুক দাবি ও নির্যাতনের অভিযোগে স্ত্রীর মামলায় ইউপি সুদস্য সুমন মিঝিকে (৩৪) আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ। সোমবার সন্ধায় স্থানীয় মোল্ললারহাট বাজার থেকে গ্রেফতারের পর মঙ্গলবার সকালে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃত সুুুমন মিঝি দক্ষিণ চরবংশী ইউনিয়নের এক নাম্বার ওয়ার্ড ইউপি সদস্য ও একই এলাকার শাহ আলম মিঝির ছেলে।

মামলার এজাহার সুত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে ইউপি সদস্য সুমন অন্য নারীর সাথে পরকিয়া ও নেশাগ্রস্থ থাকতো। এসবের প্রতিবাদ করলে সুমন তার স্ত্রী গৃহবধু ও বামনী ইউপির সাইচা গ্রামের সফিকুল ইসলামের মেয়ে শাহানা আক্তার মিকার উপর নির্যাতন করতো। এসব নির্যাতন থেকে বাঁচতে একপর্যায়ে গত বছরের ২৩ নভেম্বর সুমনকে তালাক দেয়ার পর সে মাফ চাওয়ায় ও শিশু সন্তানের কথা চিন্তা করে ২৩ ডিসেম্বর তা প্রত্যাহার করে নেয় শাহানা আক্তার। কিন্তু এসব ভূলে গিয়ে সুমন আবার নির্যাতন করে ও তিন লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে। মিকা অপারগতা প্রকাশ করলে সুমন তার পরিবারের সদস্যদের দিয়ে শারিরিক নির্যাতন করা হয়। অশ্লীল ছবি তুলে যৌতুক দাবি ও মারধর করার ঘটনায় ৯ জুলাই গৃহবধু মিকা বাদী হয়ে সুমনসহ তার মা, বোন ও ভাইকে আসামী করে থানায় মামলা করেন।

এঘটনায় দক্ষিন চরবংশী-ইউপি সদস্য সুমনের পরিবার জানান, তাদের গৃহবধু মিকার মামলা সাজানো। তাকে নির্যাতন বা যৌতক চাওয়া হয়নি। আমাদের মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে।

রায়পুর থানার এসআই শামসুল আরেফিন জানান, স্ত্রীকে নির্যাতন ও যৌতুকের মামলার প্রধান আসামী ইউপি সদস্য সুমন মিঝিকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অন্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২ - ২০২৪
Theme Customized By BreakingNews