আসছে ঈদে নিজস্ব প্রযোজনায় দীপ্ত টিভির ৭টি নাটক আসছে ঈদে নিজস্ব প্রযোজনায় দীপ্ত টিভির ৭টি নাটক – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৫:৫১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বড়লেখা সরকারী কলেজে খন্ডকালিন প্রভাষক নিয়োগে অনিয়মের অভিযোগ জেলার শ্রেষ্ট সহকারী শিক্ষিকা বড়লেখার নাজমা বেগম জুড়ীতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতা বিনয় ব্যানার্জী সংবর্ধিত দুর্গাপূজা নির্বিঘ্ন করতে সরকার সকল ব্যবস্থা গ্রহণ করছে-পরিবেশমন্ত্রী তারকা পেসার ইবাদত চৌধুরী ও তার পরিবারকে হয়রানির অভিযোগ বড়লেখায় বিশ্ব নদী দিবসে র‌্যালি ও আলোচনা সভা বড়লেখায় ৬৭৮ পিস ইয়াবাসহ যুবক গ্রেফতার কুলাউড়ায় বঙ্গবন্ধু প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করলেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের উপ আপ্যায়ন সম্পাদক সঞ্জয় কুলাউড়ায় বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতা সঞ্জয় পাশী জয়কে সংবর্ধনা শ্রীমঙ্গলে চা শ্রমিকের রহস্যজনক মৃত্যু!

আসছে ঈদে নিজস্ব প্রযোজনায় দীপ্ত টিভির ৭টি নাটক

  • মঙ্গলবার, ২১ জুলাই, ২০২০

বিনোদন ডেস্ক ::  স্বাস্থ্যবিধি মেনে আসছে কুরবানির ঈদে নিজস্ব প্রযোজনায় দীপ্ত টিভির ৭টি একক নাটক র্নিমাণ করা হচ্ছে । নাটকগুলো র্নিবাহী প্রযোজনা করছেন মোস্তফা মনন ও ফিরোজ কবির ডলার।

নাটকগুলো হলো- ১) বিয়ে ভাঙ্গা হারু ২) প্রিয় যোগাযোগ ৩) গর্ভধারিনী ৪) বিপন্নবাস ৫) ইদু মিয়ার মোরগ ৬) ভেরিফিকেশন ৭) প্রাণপ্রিয়

সুজিত বিশ্বাসের রচনায় ও মিলন ভট্টাচার্যের পরিচালনায় “বিয়ে ভাঙ্গা হারু” নাটকে অভিনয় করেছেন মীর সাব্বির, নাবিলা ইসলাম, কচি খন্দকার। নাটকটির গল্পে অবিবাহিত হারুনুজ্জামান। ডাক নাম হারু, বি এ পাশ করেও কোন চাকরি তার পছন্দ না। সে এক অভিনব পেশা বেছে নিয়েছে। তাতে আয় রোজগারও ভালোই হয়। তার পেশাটি হলো, বিয়ে ভাঙ্গা। এই জন্য বর্তমানে হারুনুজ্জামানের ডাক না হয়ে গেছে, “বিয়ে ভাঙ্গা হারু”। তার চেম্বারে যারা বিয়ে ভাঙ্গার জন্য আসে, তারা বেশি ভাগ বেকার যবুক যবতী। কোন প্রেমিকার অন্য কারো সাথে বিয়ে হয়ে যাচ্ছে, তখনি সেই প্রেমিক ছুটে আসে হারুর চেম্বারে। হারু টাকার বিনিময়ে সেই বিয়ে ভেঙ্গে দেয়।

সেতু আরিফ রচনায় ও সকাল আহমেদের পরিচালনায় “প্রিয় যোগাযোগ” নাটকে অভিনয় করেছেন ইরফান সাজ্জাদ, তাসনুভা তিশা, মাসুম বাসার। মাঝ রাতে এই শহরের রাস্তায় গল্প নিয়ে তৈরী হয়েছে প্রিয় যোগাযোগ নাটকটি। রাস্তায় অস্থির হয়ে অপেক্ষা করছে জুলি। এর মধ্যে তার কল দেওয়া ট্যাক্সি চলে আসে। জুলি বারবার ফোনে চেষ্টা করে যাচ্ছে কিন্তু ওপাশ থেকে ফোন রিসিভ করে না। কিন্তু জুলি তো এখন বাসায় ফিরতে পারবে না। জুলি এখন কি করবে? এবার কথা বলে ট্যাক্সি চালক তরুন রাফসান। রাফসান বুঝতে পেরেছে জুলি বাড়ি থেকে পালিয়েছে। এই মুহুর্তে রাফসান না পারছে জুলিকে ট্যাক্সি থেকে নামিয়ে দিতে, আবার না পারছে কোনো নিরাপদ জায়গায় নিয়ে যেতে! রাফসান জুলির কাছে জানতে চায় যে জুলি এখন কি করবে?

মেজবাউদ্দীন সুমনের রচনায় ও সাজ্জাদ সুমনের পরিচালনায় “গর্ভধারিনী” নাটকটিতে অভিনয় করেছেন ইরফান সাজ্জাদ, শবনম ফারিয়া। রাজীব ও মিতুর সংসার ভালোই কাটছিলো। হঠাৎ এক অ্যাক্সিডেন্টে বাম পা প্যারালাইজড হয় রাজীবের। দরকার পরে অনেক টাকার। তখন তাদের মনে পরে সেই প্রস্তাবের কথা যা তাদের পরিচিত লোক কবীর একদিন দিয়েছিলো। আগে রাজী না হলেও এখন টাকার প্রয়োজনে তারা ভেবে অবশেষে রাজী হয়। সারোগেট পদ্ধতিতে বাচ্চা নিতে চায় কবীর, কারণ তার স্ত্রীর জরায়ু শক্তিশালী না বলে বাচ্চা হয়েও মিসক্যারেজ হয়ে যায়। তাই বাচ্চা নেয়া হবে মিতুর গর্ভে। বিনিময়ে দেয়া হবে ১০ লক্ষ টাকা, ৫ লক্ষ অগ্রীম। বাচ্চা আসে মিতুর গর্ভে, বড় হতে থাকে। বাচ্চার সকল লক্ষণ দেখে বদলে যায় মিতু, সে তার গর্ভের বাচ্চা দিতে চায় না, রাজীবের মাঝেও জেগে উঠে পিতৃত্ব। স্বপ্ন দেখতে থাকে দুজন মিলে। তারা টাকা ফেরত দিয়ে দিতে চায় কাবীরকে। কিন্তু কবীর দম্পতি টাকা চায় না, বাচ্চা চায়।

আহমেদ খান হীরক ও সাগর শরিফুজ্জামানের রচনায় “বিপন্নবাস” নাটকটি পরিচালনা করেছেন শুভ্র খান। অভিনয়ে নাইম, তাসনুভা তিশা। ফিসবোলে আটকে পড়া দুই মাছের মতোই যেন ওদের জীবন। একই ঘেরাটোপে বন্দী। চার বছরের সংসার জীবনে এখন এতই তিক্ততা যে পরস্পরের মুখ দেখতেও আর প্রস্তুত না ওরা। বিয়ের দায় অনেক মিটিয়েছে, এবার ওরা চায় বিচ্ছেদে মুক্তি। কিন্তু বিচ্ছেদের আগেই করোনা-সময় ওদের আবার একত্রে থাকতে বাধ্য করায়। আর সেই বাধ্য সময়ে অবাধ্য দুই মানুষ পরস্পরকে চিনতে শেখে নতুন করে। ওরা রুনা আর শিহাব। বিপন্ন এ সময় ওদের দাঁড় করিয়ে দেয় এমন কিছুর মুখোমুখি, যা ওরা আগে কখনো দেখেনি।

সোহেল পারভেজ সামসির রচনা ও পরিচালনায় “ইদু মিয়ার মোরগ” নাটকটিতে অভিনয় করেছেন মনোজ ও নাদিয়া মিম।

আদিবাসী মিজানের রচনা ও পরিচালনায় “ভেরিফিকেশন” নাটকে অভিনয় করেছেন জাহিদ হাসান, সাজু খাদেম, আরফান, নাবিলা ইসলাম, জামিল হোসেন। পল্লি বিদ্যুৎ এর তিন সহকর্মী আলি হাবিব, ওমর ও নরেশবের হয় গ্রাম জুরেহোম লাইন ভেরিফিকেশনে। এর মাঝে দিয়ে ঘটতে থাকে নাটকের মজার সব কান্ড।

মিজানুর রহমান আরিয়ানের রচনা ও পরিচালনায় “প্রাণপ্রিয়”নাটকে অভিনয় করেছেন অপূর্ব ও মেহজাবিন।

এইবেলা/জেএইচজে

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews