বড়লেখায় প্রবাসীর স্ত্রী-শ্যালিকার শ্লীলতাহানী ও স্বর্ণালংকার লুট : মামলা তুলে নিতে হুমকি বড়লেখায় প্রবাসীর স্ত্রী-শ্যালিকার শ্লীলতাহানী ও স্বর্ণালংকার লুট : মামলা তুলে নিতে হুমকি – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ১২:৫০ পূর্বাহ্ন

বড়লেখায় প্রবাসীর স্ত্রী-শ্যালিকার শ্লীলতাহানী ও স্বর্ণালংকার লুট : মামলা তুলে নিতে হুমকি

  • বুধবার, ৭ অক্টোবর, ২০২০

বড়লেখা প্রতিনিধি :: বড়লেখায় পূর্ব বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের লোকজন দুবাই প্রবাসী অজয় বিশ্বাসের স্ত্রী ও শ্যালিকার শ্লীলতাহানী, হামলা ও পরনের স্বর্ণালংকার লুট করেছে। এঘটনায় প্রবাসীর স্ত্রী নীপা রাণী বিশ্বাস সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে প্রতিপক্ষের ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। শনিবার রাতে এ মামলার ২ নম্বর আসামী মামলা তুলে নিতে বাদীর বসতঘরের দরজা-জানালায় আঘাত করে প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছে।

জানা গেছে, উপজেলার পানিশাইল গ্রামের দুবাই প্রবাসী অজয় বিশ্বাসের স্ত্রী নীপা রাণী বিশ্বাস ৬ বছরের শিশু সন্তান ও স্কুল পড়–য়া ছোটবোনকে নিয়ে বসবাস করেন। পূর্ববিরোধের জেরে প্রতিবেশি লিটন বিশ্বাস, শীতিল বিশ্বাস, খকিল বিশ্বাস, রিপন বিশ্বাস প্রমুখ ৬ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় বসতবাড়িতে ঢুকে নীপা রাণী বিশ্বাস ও তার বোন মৌসুমী বিশ্বাসের ওপর হামলা চালায়। শ্লীলতাহানি ঘটিয়ে তাদের গায়ে থাকা ৮০/৯০ হাজার টাকার স্বর্ণালংকার লুট করে। এঘটনায় প্রবাসীর স্ত্রী ৯ সেপ্টেম্বর ৬ জনের নাম উল্লেখ করে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করেন।

মামলার বাদী প্রবাসীর স্ত্রী নীপা রাণী বিশ্বাস অভিযোগ করেন, শনিবার গভীর রাতে ২ নম্বর আসামী শীতিল বিশ্বাস ঘরের দরজা-জানালায় প্রচন্ড আঘাত ও অশ্লীল গালিগালাজ করে তাদের বিরুদ্ধে কোর্টে দায়েরকৃত মামলা তুলে নিতে প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছে। হুমকির বিষয়টি তিনি ওয়ার্ড মেম্বার কৌশিক বিশ্বাস, গ্রামের প্রধান মুরব্বি অকিল বিশ্বাসসহ অনেককে জানিয়েছেন।

এব্যাপারে জানতে সরেজমিনে গিয়েও অভিযুক্ত শীতিল বিশ্বাসকে না পাওয়ায় তার বক্তব্য মিলেনি।

ওয়ার্ডমেম্বার কৌশিক বিশ্বাস ও গ্রামের প্রধান মুরব্বি অকিল বিশ্বাস জানান, রাতে বসতবাড়িয়ে হামলা ও মামলা তুলে নিতে প্রাণনাশের হুমকির বিষয়টি নীপা রাণী বিশ্বাস তাদেরকে জানিয়েছেন।

এআর/জে

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews