কুলাউড়ায় পুলিশের সহযোগীতায় অসহায় মহিলাকে ঘর উপহার কুলাউড়ায় পুলিশের সহযোগীতায় অসহায় মহিলাকে ঘর উপহার – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ০৭:৪১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
জুলাই মাসে ৬৩২টি সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৭৩৯ ও আহত ২০৪২ জন  বড়লেখায় সামাজিক সম্প্রীতি কমিটির সভা বড়লেখায় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ ৭০ পরিবারে ঢেউটিন বিতরণ নিম্নতম মজুরীর দাবিতে লংলা ভ্যালীর ৩৪ চা বাগানে আন্দোলন কর্মসূচি ঘোষণা কুলাউড়ায় মাছের সাথে শত্রুতা! কমলগঞ্জে মনু-দলই ভ্যালীতে শ্রমচুক্তি বিলম্বিত হবার প্রতিবাদে সভা কুড়িগ্রামে পেট্রোল পাম্পকে জরিমানা বড়লেখা নারীশিক্ষা একাডেমী কলেজে বড়লেখা ফাউন্ডেশন ইউকে’র মতবিনিময় ঘাটতি সমন্বয়ের নামে আইএমএফ’র শর্ত মানতে জ্বালানী তেলের দাম বৃদ্ধি : মেনন জ্বালানী তেলের মূল্যবৃদ্ধিতে ক্ষোভ, কমলগঞ্জে কাঁচা মরিচের দামে দিশেহার মানুষ

কুলাউড়ায় পুলিশের সহযোগীতায় অসহায় মহিলাকে ঘর উপহার

  • শনিবার, ২৩ জানুয়ারী, ২০২১

এইবেলা, কুলাউড়া ::

মৌলভীবাজারের কুলাউড়া পৌরশহরের জয়পাশা এলাকায় লক্ষাধিক টাকা ব্যয়ে আসমা বিবি নামে অসহায় এক বৃদ্ধা মহিলাকে ঘর উপহার দিলো বীর হিরো মানবিক টিম।

শনিবার ২৩ জানুয়ারি বিকেল ৪টায় আনুষ্ঠানিকভাবে ঘরটি হস্তান্তর করেন সিলেট রেঞ্জ ডিআইজি কার্যালয়ে কর্মরত পুলিশ সুপার জেদান আল মুসা। এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (কুলাউড়া সার্কেল) সাদেক কাওসার দস্তগীর, অফিসার্স ইনচার্জ বিনয় ভূষণ রায়, সিনিয়র সাংবাদিক এম. মছব্বির আলী, মোক্তাদির হোসেন, সাংবাদিক মাহফুজ শাকিল, শাকির আহমদ ও এম এ কাইয়ুমসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ বীর হিরো মানবিক টিমের সদস্যরা।

জানা যায়, মহামারি করোনা ভাইরাসের আবির্ভাবের পর থেকেই সিলেট ও মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় অসহায় মানুষের ধারে ধারে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিয়ে আসছে বীর হিরো মানবিক টিম। বিভিন্ন এলাকায় খাদ্য সামগ্রী দেওয়ার সুবাধে আসমা বিবি নামে ওই মহিলার সাথে দেখা হয় মানবিক টিমের সদস্যদের। তিন সন্তান নিয়ে খুবই কষ্টে দিনযাপন করছিলেন পৌরসভার জয়পাশা এলাকার বাসিন্দা আসমা বিবি। আসমা বিবি বীর হিরো মানবিক টিমের সদস্যদের কাছে বলেন তাঁর কষ্টের কথা। মাথা গোঁজাবার জন্য ছিলনা তার ঘর। সেই কথা শুনে বীর হিরো মানবিক টিমের সদস্যরা দীর্ঘদিনের প্রচেষ্টায় আসমা বিবিকে মাথা গোঁজাবার ঠাঁই করে দেয়। আসমা বিবির কষ্টের কথা শুনে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেন সিলেট রেঞ্জ ডিআইজি কার্যালয়ে কর্মরত এসপি জেদান আল মুসা, সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের মিডিয়ায় কর্মরত নায়েক মোঃ সফি আহমেদ, প্রবাসী নজরুল ইসলাম রিপন, ইঞ্জিনিয়ার হায়দার মোহাম্মদ শিমুল, প্রবাসী সাইমুল ইসলাম, প্রবাসী আনোয়ার মিয়া, প্রবাসী আরিফুল ইসলাম ও খালেদ। টিনশেড দিয়ে প্রায় লক্ষাধিক টাকা ব্যয়ে দুটি বেড রুম, রান্নাঘর ও একটি বাথরুম তৈরি করে দেওয়া হয়।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews