জাদুকাটার খেয়াতরী ভাঙ্গা সড়কে জনদুর্ভোগ জাদুকাটার খেয়াতরী ভাঙ্গা সড়কে জনদুর্ভোগ – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৫২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
শ্রীমঙ্গলে করোনাকালীন সংকটে স্বাস্থ্যসেবার বর্তমান অবস্থা নিয়ে মতবিনিময় শীতের আগমনী বার্তায় আত্রাইয়ে খেজুর রস সংগ্রহে ব্যস্ত গাছিরা কুলাউড়া পৌরসভার আয়োজনে সম্প্রীতি শোভাযাত্রা মৌলভীবাজার জাতীয় পার্টির দুই নেতা বহিষ্কার কমলগঞ্জে চা জনগোষ্ঠি প্রতিবন্ধী উন্নয়ন পরিষদের সেলাই প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের উদ্বোধন ‘বীর নিবাস’ এর গুণগতমান বজায় রাখুন-মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী বড়লেখায় দুই রিয়াজের হাতে উপজেলা জাতীয় পার্টি দায়িত্ব সাম্প্রদায়িক সহিংসতার প্রতিবাদে কমলগঞ্জে বিক্ষোভ সমাবেশ মানববন্ধন ও স্মারকলিপি শান্তি  বড়লেখায় প্রাক্তন শিক্ষক খুন : ৫ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল

জাদুকাটার খেয়াতরী ভাঙ্গা সড়কে জনদুর্ভোগ

  • বুধবার, ২৬ মে, ২০২১
  • ৯৬ বার পড়া হয়েছে

হাবিব সরোয়ার আজাদ ,অতিথি প্রতিবেদক ::

দেশ বিদেশের পর্যটক ভ্রমণ পিপাসুরা সুনামগঞ্জের তাহিরপুরের দর্শনীয় স্থান গুলো দেখতে এসে সীমান্তনদী জাদুকাটার খেয়াতরী পাড়ি দেয়ার পর ফের দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন বারেকটিলার ভাঙ্গা সড়কে চলাচল করতে গিয়ে।

১৯৯০ সাল পরবর্তী প্রায় তিন দশক পুর্বে তৎকালীন সংস্থাপন সচিব ড. শাহ মোহাম্মদ ফরিদের প্রচেষ্টায় জাদুকাটার নদীর বড়গোপ খেয়াঘাটের পশ্চিম উওর ঘেষা জনবিচ্ছিন্ন বারেকটিলার উপর দিয়ে জন চলাচলে জন্য এলজিইডি ১ কিলোমিটার সরু পাকা সড়ক নির্মাণ করা হয়।

ভোক্তভোগী ও স্থানীয় লোজনের অভিযোগ গত দুই দশ পেড়িয়ে গেলেও বারেকটিলার উপর থাকা (ল্উারগড়-মহেষখোলা) আকা বাঁকা প্রায় ১ কিলোমিটার সরু সড়কটি সংস্কার, পুন:নির্মাণ কিংবা প্রশস্থ করা হয়নি।

উপজেলার জাদুকাটার নদীর লাউরগড় বড়গোপ খেয়াঘাট, বারেকটিলা এলাকায় সরজমিনে গিয়ে দেখা যায় দেশ বিদেশের বিভিন্ন স্থান হতে সুনামগঞ্জ হয়ে তাহিরপুরের জাদুকাটা নদী, বারেকটিলা, জয়নাল আবেদীন শিমুল বাগান,রাজাই ঝরণাধারা, টেকেরঘাট শহীদ সিরাজ লেক, লাকমা ছড়া, লালঘাট ঝরণা ধারা, টেকেরঘাট স্কুল ঝরণা ধারা, টাঙ্গুয়ার হাওর দেখতে আসা নানা শ্রেণি পেশার লোকজন, স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরা সেতু না থাকায় লাউরগড় বাজারে এসে চার চাকার যানবাহন রেখে জীবন ঝুঁকি নিয়ে জাদুকাটার খেয়াতরী পাড়ি দিচ্ছেন।

কেউ কেউ ভাড়ায় চালিত কিংবা ব্যাক্তিগত মোটরসাইলে নিয়ে খেয়াতরী পাড়ি দিয়ে প্রবেশ করছেন বারেকটিলায়। আবার টিলার নিচে অপেক্ষরত থাকছে ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেল,অটো রিক্সা. সিএনজি।

বুধবার ভ্রমণে আসা চট্রগ্রাম বিশ্ব বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আতাহারুল বাবরুল বলেন, বারেকটিলার উপর দিয়ে মোটরসাইকেল বা অটো রিক্সা নিয়ে চলাচলের ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় ঝুঁকি রয়েছে। কারন টিলার সরু সড়কটিতে কয়েক’শ ভাঙ্গা গর্ত, আবার সড়কটির একাধিক স্থানে সিমেন্টের ঢালাই খসে গিয়ে অসংখ্য গর্ত সৃষ্টি হয়েছে। দুটি মোটরসাইকেল বা অটো রিক্সা এ সরু সড়ক ক্রসকালে দূর্ঘটনাকে মেনে নিয়েই মানুষজনকে চলাচল করতে হচ্ছে।

উপজেলার রাজাই এলাকার বাসিন্দা বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরামের কেন্দ্রীয় কমিটির অর্থ সম্পাদক এন্ড্রো সলোমার এ প্রতিবেদকে জানান, প্রতিনিয়ত সরু সড়কের উপর মোটরসাইকেল, অটো রিক্সা দুর্ঘটনা ঘটেই যাচ্ছে, এতে কেউ কেউ মারাত্বকভাবে আহত হয়ে পঙ্গুত্ব বরণ করতে হয়েছে। তিনি বলেন জন চলাচলের এ ব্যস্ততম ভাঙ্গা সড়কটি প্রশস্থ করণ ও সংস্কারে সড়ক ও জনপথ বিভাগ(সওজ), স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি)’র নজরই পড়েনি দুই যুগের বেশী সময়কাল ধরে।

তাহিরপুর কয়লা আমদানিকারক গ্রপের সভাপতি হাজি আলকাছ উদ্দিন খন্দকার বলেন, তাহিরপুরের বড়ছড়া, চারাগাঁও বাগলী এ তিন শুল্ক ষ্টেশনে সুনামগঞ্জ-নেত্রকোনা,ময়মনসিংহ সীমান্ত সড়ক হয়ে হাজারো ব্যবসায়ী, শ্রমিক, সাধারণ মানুষজনকে বারেকটিলার উপর সরু সড়ক ব্যবহার করে যাতায়াত করতে হয় কিন্তু বছরের পর বছর ধরে সওজ কিংবা এলজিইডির দায়িত্বশীলদের অনুরোধ করার পরও তারা মাত্র ১ কিলোমিটার সড়ক পুন:নির্মাণে কোন উদ্যোগই নিচ্ছেন না।

বুধবার বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সুনামগঞ্জ ২৮ ব্যাটালিয়ন অধিনায়ক লে. কর্ণেল তসলিম এহসান পিএসসি এ প্রতিবেদককে বলেন,বারেকটিলার পশ্চিমে চাঁনপুরসহ মাটিরাবন অবধি ৭টি বিওপিতে থাকা বিজিবি সদস্যরা এমনকি ব্যাটালিয়ন হতে অফিসারগণ বারেকটিলার উপর থাকা সড়কটি ব্যবহার করে যাতায়াত করতে হয়, টিলার এ জনগুরুত্বপূর্ণ সড়কটি দ্রুত প্রশস্থ করলে সীমান্ত জনপদে যোগাযোগ ব্যবস্থার সুফল পাবেন সর্বমহল।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews