ওয়ার্ল্ড সাইকিয়াট্রিক এসোসিয়েশনের কংগ্রেসে ডা. সাঈদ এনাম ও ডা. সাইফুন নাহারের গবেষণা ওয়ার্ল্ড সাইকিয়াট্রিক এসোসিয়েশনের কংগ্রেসে ডা. সাঈদ এনাম ও ডা. সাইফুন নাহারের গবেষণা – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ০১:৫৭ পূর্বাহ্ন

ওয়ার্ল্ড সাইকিয়াট্রিক এসোসিয়েশনের কংগ্রেসে ডা. সাঈদ এনাম ও ডা. সাইফুন নাহারের গবেষণা

  • শুক্রবার, ২২ অক্টোবর, ২০২১

এইবেলা্ ডেস্ক ::

ওয়ার্ল্ড সাইকিয়াট্রিক এসোসিয়েশন (WPA)এর ২১তম আন্তর্জাতিক কংগ্রেস ও সায়েন্টিফিক সেমিনারে (১৮-২১ অক্টোবর ২০২১) দুই বাংলাদেশী চিকিৎসকের দুটি গবেষণাপত্র উপস্থাপন হচ্ছে। ওই দুইজন চিকিৎসক হলেন সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজের সহকারী অধ্যাপক ডা. সাঈদ এনাম ও ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব মেন্টাল হেলথ এর সহকারী অধ্যাপক ডা. সাইফুন নাহার সুমি।

তারা দুইজন আমেরিকান সাইকিয়াট্রিক এসোসিয়েশন যথাক্রমে ইন্টারন্যাশনাল ফেলো ও মেম্বার। এছাড়া ডা. সাঈদ এনাম রয়েল কলেজ অব সাইকিয়াট্রিস্ট ইংলান্ডের মেম্বার ও ডা. সাইফুন নাহার সুমি ইউরোপিয়ান সাইকিয়াট্রিক এসোসিয়েশনের মেম্বার। তারা উভয়েই আমেরিকান ও ইউরোপিয়ান সাইকিয়াট্রিক এসোসিয়েশন এর সায়েন্টিফিক সেমিনারে তাদের গবেষণা পত্র এবং কেইস স্টাডি উপস্থাপন করে থাকেন।

ডা. সাইফুন নাহার এর গবেষণার বিষয়বস্তু বিবাহিত মহিলার সেক্সুয়াল ডিসওর্ডার সম্পর্কিত এবং ডা. সাঈদ এনাম এর গবেষণার বিষয়বস্তু ‘স্ট্রোক পরবর্তী ডিপ্রেশন ও মানসিক সমস্যা’ এবং সাথে একটি ‘একটি কেইস হিস্ট্রি’। মুক্তিযুদ্ধের সময় মাথায় বুলেট বিদ্ধ হন বাংলাদেশের এক নারী। সেই বুলেট নিয়ে তিনি দীর্ঘ ৫০ বছর ধরে বেঁচে আছেন। ব্রেইনের ভিতর বুলেট থাকায় সৃষ্ট মানসিক সমস্যা নিয়ে ডা. সাঈদ এনামের কেইস স্টাডি’টি লিখিত। এছাড়া রয়েল কলেজ অব সাইকিয়াট্রিস্ট ইংল্যান্ড এর ফ্যাকাল্টি অব একাডেমিক সাইকিয়াট্রির কনফারেন্স হচ্ছে আজ। সেখানেও মুক্তিযোদ্ধা নুরজাহান বেগম কে নিয়ে লেখা গবেষণা পত্রটি প্রেজেন্টেশন হবে। একমাত্র বাংলাদেশী হিসেবে ডা. সাঈদ এনামের গবেষণাটি প্রেজেন্টেশন হচ্ছে বলে জানা গেছে।

উল্লেখ্য যে, গত এপ্রিলে দীর্ঘদিন যাবৎ মাথাব্যাথা ও ভুলে যাওয়া সমস্যা নিয়ে ডা. সাঈদ এনামের কুলাউড়ার চেম্বারে নূরজাহান বেগম নামের এক নারী মুক্তিযোদ্ধা (মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় হানাদার বাহিনীর ছোড়া মর্টার শেলের টুকরো নিয়ে ৫০ বছর ধরে বেঁচে থাকা) রোগী আসেন। পরীক্ষায় নারী মুক্তিযোদ্ধার মাথার ব্রেইনের ভিতর একটি বুলেটের অস্তিত্ব খুঁজে পান ডা. সাঈদ এনাম। এরপর তাঁর পরামর্শে ওই নারীকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে হাসপাতালের নিউরোসার্জারি বিভাগের অধ্যাপক খ্যাতিমান চিকিৎসক ডা. জাহেদ হোসেন এর তত্ত্বাবধানে কিছুদিন চিকিৎসা নেন। কিছুদিন চিকিৎসা নিয়ে বর্তমানে নূরজাহান তাঁর বাড়িতে অবস্থান করছেন এবং ডা. সাঈদ এনামের তত্বাবধানে চিকিৎসাধীন আছেন। নূরজাহানের বাড়ি কুলাউড়া উপজেলার টিলাগাঁও ইউনিয়নের লংলা খাসের নতুন বস্তি এলাকায়।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews