জুড়ী-বটুলি শুল্ক স্টেশন সড়কে বিকল্প সড়ক না করেই কালভার্ট নির্মাণ : ভোগান্তিতে জনসাধারণ জুড়ী-বটুলি শুল্ক স্টেশন সড়কে বিকল্প সড়ক না করেই কালভার্ট নির্মাণ : ভোগান্তিতে জনসাধারণ – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ১২:৪৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ত্রাণ বিতরণে অনিয়ম হলে কঠোর ব্যবস্থা : ইউএনও, বড়লেখা কুলাউড়ায় পানীবন্দি মানুষদের মাঝে জামায়াতের উপহার! কুলাউড়ায় ৫ ইউনিয়নে বন্যার্তদের মাঝে খাদ্য সহায়তা প্রদান কুলাউড়ায় রেললাইনে পানি, ট্রেন চলাচলে নতুৃৃন নির্দেশনা বড়লেখায় আশ্রয়কেন্দ্রে ছুটছে দুর্গতরা, ত্রাণের জন্য হাহাকার বড়লেখায় ৭ হাজার গ্রাহকের সংযোগ বিচ্ছিন্ন, পানিবন্দী মানুষের চরম ভোগান্তি বড়লেখায় ঢলের পানিতে ডুবে স্কুলছাত্রীর মৃত্যু স্পেনে যুবলীগ কাতালোনিয়া শাখার উদ্যোগে ঈদ পুনর্মিলনী ও আলোচনা মৌলভীবাজারে বন্যার পানিতে ডুবে ২ জনের মৃত্যু কুলাউড়ায় বন্যা আশ্রয় কেন্দ্র পরিদর্শণ করলেন মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক

জুড়ী-বটুলি শুল্ক স্টেশন সড়কে বিকল্প সড়ক না করেই কালভার্ট নির্মাণ : ভোগান্তিতে জনসাধারণ

  • মঙ্গলবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০২১

বড়লেখা প্রতিনিধি ::

মৌলভীবাজারের জুড়ী-ফুলতলা-বটুলি শুল্ক স্টেশন সড়কের সমাই বাজার এলাকায় ডাইভার্সন সড়ক (বিকল্প সড়ক) তৈরী না করেই কালভার্ট নির্মাণের শুরু করায় দুর্ঘটনায় পড়ছে এ সড়কে চলাচলকারি ভারি ও হালকা যানবাহন। মঙ্গলবার দুপুরে অল্পের জন্য উল্টে পড়ে মারাত্মক দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেয়েছে একটি যাত্রীবাহী বাস। স্থানীয়দের অভিযোগ জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ রেজাউর রহমান সুমন উক্ত কালভার্ট নির্মাণ কাজের উপ-ঠিকাদার। এধরণের কালভার্ট নির্মাণে তার কোনো পূর্ব অভিজ্ঞতা নেই। তার অনিয়মেই ঝুঁকিতে পড়েছেন স্থানীয় জনসাধারণ ও গুরুত্বপূর্ণ এ সড়কে চলাচলকারী যানবাহন।

জানা গেছে, জুড়ী-ফুলতলা-বটুলি শুল্ক স্টেশন সড়কের জরাজীর্ণ ৮টি কালভার্ট নির্মাণের দায়িত্ব পায় ঢাকার ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ‘ইউনুছ এন্ড ব্রাদার্স’। কিন্তু এ ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান থেকে ৮টি কালভার্টের নির্মাণ কাজের সাবলীজ নেন মৌলভীবাজার জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ রেজাউর রহমান সুমন। সম্প্রতি জুড়ী-ফুলতলা সড়কের সমাই বাজারের সম্মুখের বড়ডহর নামক কালভার্টির বিকল্প সড়ক না করেই তা ভেঙ্গে তিনি নির্মাণ কাজ শুরু করেন। এতে স্থানীয় জনসাধারণ ও যানবাহনগুলো মারাত্মক দুর্ভোগ ও দুর্ঘটনা ঝুঁকির সম্মুখিন হয়ে পড়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরে সরেজমিনে দেখা গেছে বিকল্প সড়ক না থাকায় ৪০ সিটের যাত্রীবাহী একটি বাস অল্পের জন্য উল্টে পড়া থেকে রক্ষা পেয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দা শামীম আহমদ, উসমান আলী ও ব্যবসায়ী ইকবাল হোসেন স্বপন জানান, জুড়ী-ফুলতলা সড়কটি জেলা সড়ক হওয়ায় এ সড়কে ভারি যানবাহন প্রতিনিয়ত চলাচলের অনুমোদন রয়েছে। ভারত-বাংলাদেশ পণ্য আমদানী রপ্তানীর ক্ষেত্রেও সড়কটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কিন্ত সাব-ঠিকাদার জেলা যুবলীগের সম্পাদক হওয়ায় নিয়ম কানুনের তোয়াক্কা না করে ডাইভার্সন রোড তৈরী ছাড়াই কালভার্ট ভেঙ্গে নির্মাণ কাজ শুরু করেছেন। এতে দুর্ঘটনার ঝুঁকি নিয়ে সবধরণের যানবাহন চলছে। ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এখানে ভাল মানের ডাইভার্সন নির্মাণ না হলে বড় ধরণের দুর্ঘটনার আশংকা রয়েছে।

সড়ক ও জনপথ বিভাগের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী পার্থ সরকার জানান, ৮টি কালভার্ট নির্মাণের সাব-ঠিকাদার জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ রেজাউর রহমান সুমন। ডাইভার্সন সড়ক সঠিক না হলে ঝুঁকি নিয়ে যানবাহন চলাচল করতে গিয়ে দুর্ঘটনা ঘটাই স্বাভাবিক। মঙ্গলবার দুপুরে যাত্রীবাহী বাস উল্টে দুর্ঘটনার উপক্রম হওয়ার খবর পেয়েছেন। তিনি ঠিকাদারকে দ্রুত যথাযথভাবে বিকল্প সড়ক নির্মাণের তাগিদ দিয়েছেন।

এব্যাপারে জানতে মৌলভীবাজার জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ রেজাউর রহমান সুমনের মোবাইল ফোনে মঙ্গলবার সন্ধায় যোগাযোগ করা হলে ‘রিং’ বাজতেই তিনি ফোন কেটে দেন। বারবার চেষ্টা করেও তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২ - ২০২৪
Theme Customized By BreakingNews