সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত আর নেই : সিলেটে ২ দিনের শোক সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত আর নেই : সিলেটে ২ দিনের শোক – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০৬:০৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বড়লেখায় ঘরে অবরুদ্ধ অর্ধমৃত গৃহবধুকে পুলিশের উদ্ধার কমলগঞ্জে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবলে কমলগঞ্জ পৌরসভা চ্যাম্পিয়ান       বড়লেখায় ভুমিসেবা সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘরপ্রাপ্ত ১৬ পরিবারকে জমির দলিল হস্তান্তর ভোরের কাগজের বিরুদ্ধে মামলা : বড়লেখায় প্রেসক্লাবের প্রতিবাদ সভা কুলাউড়ায় অগ্নিকান্ড জনিত দূর্যোগ মোকাবেলায় করণীয় বিষয়ক প্রশিক্ষণ সমাপ্ত রাজনগরে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সাথে পুলিশের গাড়ির ধাক্কা এসআই’র মৃত্যু কুলাউড়ায় চা শ্রমিক সমাবেশে নাদেল – চা শ্রমিকদের সকল সুবিধা নিশ্চিত করবে সরকার বড়লেখায় কেক কেটে ইউএনও’র বর্ষপূর্তি পালন বড়লেখায় সাংবাদিক লাভলুর চাচা আরব আলীর কোলখানি বড়লেখায় ইউএনও’র এক বছর পূর্ণ হচ্ছে ২০ মে

সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত আর নেই : সিলেটে ২ দিনের শোক

  • শনিবার, ৩০ এপ্রিল, ২০২২

সিলেট প্রতিনিধি :: সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত আর নেই। শুক্রবার রাত ১২টা ৫৬ মিনিটে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে তিনি শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্নালিল্লাহি… রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৮ বছর।

এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন আবুল মাল আবদুল মুহিতের ব্যক্তিগত সহকারী কিশোয়ার ভট্টাচার্য জনি।

বার্ধক্যের নানা জটিলতায় সাবেক অর্থমন্ত্রী বেশ কিছুদিন থেকে অসুস্থ ছিলেন। মাঝে তাকে কয়েক দফায় হাসপাতালে ভর্তিও করা হয়।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় গুলশান আজাদ মসজিদে প্রথম জানাজা, সকাল সাড়ে ১১টায় সংসদ প্লাজায় দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। দুপুর ১২টায় তার মরদেহ সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য শহিদ মিনারে নেওয়া হবে এবং এরপর দাফনের জন্য মরদেহ সিলেটে নেয়া হবে।

আবুল মাল আবদুল মুহিত ১৯৩৪ সালের ২৫ জানুয়ারি সিলেটে জন্মগ্রহণ করেন। তার মা সৈয়দা শাহার বানু চৌধুরী ও বাবা আবু আহমদ আবদুল হাফিজ। মা-বাবা দুইজনই তৎকালীন সিলেট জেলার রাজনীতিতে সক্রিয় ছিলেন। ১৪ ভাইবোনের মধ্যে তার অবস্থান তৃতীয়। পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন তার ছোট ভাই।

সিলেটে ২ দিনের শোক :: মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, ভাষাসৈনিক, সাবেক অর্থমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল মাল আবদুল মুহিতকে আগামীকাল রোববার সিলেটে সমাহিত করা হবে। তার মৃত্যুতে সিলেট আওয়ামী লীগ দুইদিনের শোক কর্মসূচি ঘোষণা করেছে।

শনিবার দুপুরে নগরীর হাফিজ কমপ্লেক্সে জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মো. জাকির হোসেন একথা জানান।

মুহিতের মৃত্যুতে দুইদিনের শোক কর্মসূচি ঘোষণা করেছে সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ। শনিবার ও রোববার দুই দিনব্যাপী শোক কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে কালোব্যাজ ধারণ, সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের অস্থায়ী কার্যালয়ে কালো পতাকা উত্তোলন, সিলেটের সব উপজেলায় ও সিলেট মহানগরের সব ওয়ার্ডের বিভিন্ন মসজিদ ও মন্দিরে মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনায় বিশেষ দোয়ার আয়োজন।

পবিত্র ঈদুল ফিতরের পরের দিন বাদ জোহর হযরত শাহজালাল (রহ.) মাজার মসজিদে মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনায় দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হবে।

রোববার দুপুর ২টায় সিলেট সরকারি আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে মুহিতের সর্বশেষ জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এর আগে রোববার দুপুর ১২টায় তার মরদেহ সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য তার পছন্দে নির্মিত সিলেট কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে নেওয়া হবে। জানাজা শেষে মুহিতের ইচ্ছানুযায়ী রায়নগরে ডিপুটি বাড়িতে তার পারিবারিক কবরস্থানে বাবা-মার কবরের পাশে তাকে সমাহিত করা হবে।

তার বয়স হয়েছিল ৮৮ বছর। বার্ধক্যজনিত নানা জটিলতায় সাবেক অর্থমন্ত্রী বেশ কিছুদিন ধরে অসুস্থ ছিলেন। মাঝে তাকে কয়েক দফায় হাসপাতালে ভর্তিও করা হয়। তিনি ২০০৯ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত সরকারের অর্থমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। অর্থমন্ত্রী হিসেবে আবুল মাল আবদুল মুহিত ১২টি বাজেট উপস্থাপন করেছেন।

আবুল মাল আবদুল মুহিত ১৯৩৪ সালের ২৫ জানুয়ারি সিলেটে জন্মগ্রহণ করেন। তৎকালীন সিলেট জেলা মুসলিম লীগের প্রতিষ্ঠাতা আবু আহমদ আবদুল হাফিজ ও সৈয়দা শাহার বানু চৌধুরীর ১৪ সন্তানের মধ্যে তিনি ছিলেন তৃতীয় সন্তান। পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন তার ছোট ভাই। স্ত্রী সৈয়দা সাবিয়া মুহিত একজন ডিজাইনার। তিন সন্তানের মধ্যে কন্যা সামিনা মুহিত ব্যাংকার ও আর্থিক খাতের বিশেষজ্ঞ। বড় ছেলে সাহেদ মুহিত বাস্তুকলাবিদ এবং ছোট ছেলে সামির মুহিত একজন শিক্ষক।

আবুল মাল আবদুল মুহিতের মৃত্যুতে তার জন্মস্থান ও নির্বাচনী এলাকা সিলেটে দলমত নির্বিশেষে সবার মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews