পূর্ব বিরোধের জের-বড়লেখায় ৪ সংখ্যালঘু যুবকের ওপর সন্ত্রাসী হামলা পূর্ব বিরোধের জের-বড়লেখায় ৪ সংখ্যালঘু যুবকের ওপর সন্ত্রাসী হামলা – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০৪:৫১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বড়লেখায় ঘরে অবরুদ্ধ অর্ধমৃত গৃহবধুকে পুলিশের উদ্ধার কমলগঞ্জে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবলে কমলগঞ্জ পৌরসভা চ্যাম্পিয়ান       বড়লেখায় ভুমিসেবা সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘরপ্রাপ্ত ১৬ পরিবারকে জমির দলিল হস্তান্তর ভোরের কাগজের বিরুদ্ধে মামলা : বড়লেখায় প্রেসক্লাবের প্রতিবাদ সভা কুলাউড়ায় অগ্নিকান্ড জনিত দূর্যোগ মোকাবেলায় করণীয় বিষয়ক প্রশিক্ষণ সমাপ্ত রাজনগরে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সাথে পুলিশের গাড়ির ধাক্কা এসআই’র মৃত্যু কুলাউড়ায় চা শ্রমিক সমাবেশে নাদেল – চা শ্রমিকদের সকল সুবিধা নিশ্চিত করবে সরকার বড়লেখায় কেক কেটে ইউএনও’র বর্ষপূর্তি পালন বড়লেখায় সাংবাদিক লাভলুর চাচা আরব আলীর কোলখানি বড়লেখায় ইউএনও’র এক বছর পূর্ণ হচ্ছে ২০ মে

পূর্ব বিরোধের জের-বড়লেখায় ৪ সংখ্যালঘু যুবকের ওপর সন্ত্রাসী হামলা

  • শুক্রবার, ৬ মে, ২০২২

বড়লেখা প্রতিনিধি :

বড়লেখায় জমিজমা সংক্রান্ত পূর্ব-বিরোধের জেরে একই পরিবারের ৪ সংখ্যালঘু যুবকের ওপর সন্ত্রাসী হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে উভয়পক্ষের পক্ষের ৮জন আহত হয়েছে। আহতদের ৩ জনকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। হামলা-সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার সকাল সাড়ে ন’টার দিকে উপজেলার সুনামপুর গ্রামের দুদু মিয়ার বাড়ির সামনের রাস্তায়। হামলার ঘটনায় আহত সহোদরদের বাবা রসেন্দ্র দাস প্রতিপক্ষের ৯ জনের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।

আহত সংখ্যালঘু সহোদররা হচ্ছে- উপজেলার দাসেরবাজার ইউনিয়নের সুনামপুর গ্রামের রসেন্দ্র দাসের চার ছেলে বিমল চন্দ্র দাস (২২), নকুল চন্দ্র দাস (২৬), শিবুল দাস (২৪) ও ময়না দাস (২৮)।

হাসপাতাল ও ভুক্তভোগী সংখ্যালঘু পরিবার সূত্রে জানা গেছে, রসেন্দ্র দাসের সাথে গ্রামের নুর উদ্দিনের দীর্ঘদিন ধরে জমিজমা সংক্রান্ত মামলা মোকদ্দমা চলছে। বসতবাড়ির সামনে রাস্তার পাশে নুর উদ্দিনের একটি মুদির দোকান রয়েছে। শুক্রবার সকালে রসেন্দ্র দাসের ছেলে বিমল চন্দ্র দাস দোকানের সামনে আসামাত্র নুর উদ্দিনের ছেলে দেলোয়ার হোসেন বিমলকে হত্যার উদ্দেশ্যে দা দিয়ে মাথায় কোপ দেয়। তার চিৎকারে বিমলের ভাই নকুল চন্দ্র দাস, শিবুল চন্দ্র দাস ও ময়না চন্দ্র দাস ছোটভাইকে বাঁচাতে এগিয়ে গেলে নুর উদ্দিন, তার ছেলে দেলোয়ার হোসেন, ইকবাল হোসেন গংরা দেশিয় অস্ত্রসস্ত্রে তাদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। এতে সংখ্যালঘু চার সহোদরসহ উভয় পক্ষের ৮ ব্যক্তি আহত হয়েছেন। আহত চার যুবককে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এদের মধ্যে তিনজনের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাদেরকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে।

থানার ওসি (তদন্ত) রতন চন্দ্র দেবনাথ জানান, হামলার ঘটনায় আহতদের বাবা রসেন্দ্র চন্দ্র দাস ৯ জনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দিয়েছেন। তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews