বড়লেখায় ভারত যাওয়ার সময় সীমান্তে ৭ রোহিঙ্গা আটক বড়লেখায় ভারত যাওয়ার সময় সীমান্তে ৭ রোহিঙ্গা আটক – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:১৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বড়লেখা ফাউন্ডেশন ইউকে’র ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ মেয়রের আন্তরিকতায় উন্নয়নের ছোঁয়া পেলো কুলাউড়া দক্ষিণবাজার থেকে স্টেশনরোড কুলাউড়া উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদকের ঈদ শুভেচ্ছা কুলাউড়া মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতির ঈদ শুভেচ্ছা মৌলভীবাজার জেলা সাংবাদিক ফোরামের ইফতার মাহফিল সম্পন্ন হাকালুকি হাওরে আধা পাকা বোরো ধান কাটা শুরু করেছেন কৃষকরা বড়লেখায় দুস্ত পরিবার ও ক্বিরাত প্রশিক্ষকদের শাহবাজপুর কল্যাণ সমিতি ফ্রান্সের অর্থ সহায়তা বন্যার আগাম সংকেত পাওয়া যাবে ছয় মাস পূর্বেই জুড়ীতে এ এস বি ফাউন্ডেশনের ঈদ উপহার ও ইফতার বিতরণ জুড়ীতে দারুল ক্বিরাতের পুরস্কার বিতরণ

বড়লেখায় ভারত যাওয়ার সময় সীমান্তে ৭ রোহিঙ্গা আটক

  • বৃহস্পতিবার, ২৫ আগস্ট, ২০২২

বড়লেখা প্রতিনিধি:

মৌলভীবাজারের বড়লেখায় অবৈধভাবে ভারতে যাওয়ার সময় সীমান্ত এলাকা থেকে আটক ৭ রোহিঙ্গাকে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পাঠানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে তাদের উখিয়ার কুতুপালং থ্যাংখালী (এফডিএমএন) ক্যাম্পে পাঠানো হয়েছে বলে থানা পুলিশ জানিয়েছে।

এর আগে বুধবার সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে উপজেলার উত্তর শাহবাজপুর ইউনিয়নের কুমারশাইল সীমান্ত এলাকা দিয়ে অবৈধভাবে ভারতে যাওয়ার সময় কুমারশাইল মাদ্রাসার পাশ থেকে স্থানীয় লোকজন তাদের আটক করেন। পরে তাদের লাতু বিজিবি (বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ) ক্যাম্পে তুলে সোপর্দ করা হয়। ওইদিন সন্ধ্যায় লাতু বিজিবি তাদেরকে থানায় হস্তান্তর করে।

আটক রোহিঙ্গা মুসলমানরা হলেন, মো. শফিকুল (১৯), সমিন আরা (১৮), রুজিনা আক্তার (১৭), শুকতারা বেগম (১৫), ফাতেমা খাতুন (১৭), মল্লিকা বেগম (১৫) ও আছিয়া (১৬) আক্তার।

সূত্র জানায়, আটককৃত রোহিঙ্গারা দালালের মাধ্যমে ভারতে যাওয়ার জন্য কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং থ্যাংখালী (এফডিএমএন) ক্যাম্প থেকে পালিয়ে বড়লেখায় এসেছিলেন।

থানা পুলিশ, বিজিবি ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, গত বুধবার সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে বড়লেখা উপজেলার উত্তর শাহবাজপুর ইউনিয়নের কুমারশাইল মাদ্রাসার পাশ থেকে সন্দেহজনক চলাফেরার কারণে ওই দুই তরুণ-তরুণীসহ ৭ কিশোরীকে আটক করেন। আটককৃতরা রোহিঙ্গা মুসলমান নিশ্চিত হওয়ার পর স্থানীয় লোক আটক তাদেরকে লাতু বিজিবির ক্যাম্পে সোপর্দ করেন। বিজিবির প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে রোহিঙ্গারা কুমারশাইল সীমান্ত দিয়ে ভারতে প্রবেশের চেষ্টা করছিল বলে স্বীকার করেছে। পরে ওইদিন সন্ধ্যায় বিজিবি তাদেরকে থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছে।

উত্তর শাহবাজপুর ইউপির চেয়ারম্যান রফিক উদ্দিন আহমদ বৃহস্পতিবার বিকেলে জানান, তার ইউনিয়নাধীন কুমারশাইল এলাকা থেকে সাত রোহিঙ্গাকে আটক করেন স্থানীয় লোকজন। পরে তাদের বিজিবির হাতে তুলে দেয়া হয়েছে। তারা ভারতে যাওয়ার চেষ্টা করেছে বলে বিজিবির কাছে স্বীকার করেছে। ধারণা হচ্ছে, স্থানীয় কোনো দালাল চক্র তাদেরকে ভারতে পাচার করছিল।

বড়লেখা থানার ওসি জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার বলেন, কুমারশাইল এলাকা থেকে আটক রোহিঙ্গাদের বিজিবি থানায় হস্তান্তর করেছে। বিজিবির প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে রোহিঙ্গারা কুমারশাইল সীমান্ত দিয়ে ভারতে যাওয়ার চেষ্টা করেছে বলে স্বীকার করেছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে তাদের পুলিশ স্কটের মাধ্যমে উখিয়ার কুতুপালং থ্যাংখালী (এফডিএমএন) ক্যাম্পে পাঠানো হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২ - ২০২৪
Theme Customized By BreakingNews