তত্ত্বাবধায়ক সরকার ভুলে যান : ওবায়দুল কাদের তত্ত্বাবধায়ক সরকার ভুলে যান : ওবায়দুল কাদের – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ১১:১১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বড়লেখা ফাউন্ডেশন ইউকে’র ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ মেয়রের আন্তরিকতায় উন্নয়নের ছোঁয়া পেলো কুলাউড়া দক্ষিণবাজার থেকে স্টেশনরোড কুলাউড়া উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদকের ঈদ শুভেচ্ছা কুলাউড়া মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতির ঈদ শুভেচ্ছা মৌলভীবাজার জেলা সাংবাদিক ফোরামের ইফতার মাহফিল সম্পন্ন হাকালুকি হাওরে আধা পাকা বোরো ধান কাটা শুরু করেছেন কৃষকরা বড়লেখায় দুস্ত পরিবার ও ক্বিরাত প্রশিক্ষকদের শাহবাজপুর কল্যাণ সমিতি ফ্রান্সের অর্থ সহায়তা বন্যার আগাম সংকেত পাওয়া যাবে ছয় মাস পূর্বেই জুড়ীতে এ এস বি ফাউন্ডেশনের ঈদ উপহার ও ইফতার বিতরণ জুড়ীতে দারুল ক্বিরাতের পুরস্কার বিতরণ

তত্ত্বাবধায়ক সরকার ভুলে যান : ওবায়দুল কাদের

  • রবিবার, ২৩ অক্টোবর, ২০২২

এইবেলা ডেস্ক:: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকার ভুলে যান। উচ্চ আদালত তা বাদ করেছে, আমাদের কী? সংবিধানে যা আছে সেভাবেই নির্বাচন হবে। সরকার কোনো হস্তক্ষেপ করবে না। বিএনপির মতো গুণ্ডা দিয়ে ১১টার আগে ভোট শেষ করা হবে না।

ইসদাইরের ওসমানী স্টেডিয়ামে নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি উপস্থিতিদের উদ্দেশ্যে প্রশ্ন ছুড়ে আরও বলেন,  খেলা হবে, কী খেলা হবে? ভোট চুরির বিরুদ্ধে খেলা হবে। ভোট জালিয়াতির বিরুদ্ধে খেলা হবে। লুটপাটের বিরুদ্ধে খেলা হবে। দুর্নীতির বিরুদ্ধে খেলা হবে। রাজপথে মোকাবেলা হবে। আসল খেলা হবে ডিসেম্বরে।

তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জের মানুষ সংগ্রামী মানুষ। শামীম ওসমান নিজে অলরাউন্ডার ব্যাটসম্যান। নারায়ণগঞ্জের শক্তি হচ্ছে এরা লক্ষ লক্ষ লোক আজ এখানে। মাঠে যা বাইরে তার চেয়েও বেশি।

বিএনপির উদ্দেশে তিনি বলেন, কাপুরুষের মতো মুচলেকা দিয়ে লন্ডনে চলে যায় কে সে? খেলা হবে হাওয়া ভবনের বিরুদ্ধে। শেখ হাসিনার চেয়ে ভালো ও সৎ মানুষ রাজনীতিতে নেই। আগামী নির্বাচনে সৎ মানুষকেই জয়ী করবে। শেখ হাসিনাই আসবে। বাংলার মানুষ চেহারা দেখে ভোট দেয় না। উন্নয়ন দেখে ভোট দেয়। বৈশ্বিক সংকটের জন্য আমাদের দোষ দেবেন না। আগে বিদ্যুৎ গ্যাসের সংকট ছিল না।

দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, বসন্তের কোকিলরা আছে, দুঃসময়ের কর্মীরা নেই। কোকিলদের আওয়ামী লীগে দরকার নাই। কে কি করেন তা সব শেখ হাসিনা জানেন। পয়সা খেয়ে যারা কমিটি করে তারা দলের শত্রু। ভালো হয়ে যান। সুসময়ের নেতাদের দরকার নেই।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল হাইয়ের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবু হাসনাত মো. শহিদ বাদলের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন- বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট কাজী নজিবুল্লাহ হিরু, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, কার্যকারি পরিষদের সদস্য অ্যাডভোকেট রিয়াজুল কবীর কাওছার, কার্যকরি পরিষদের সদস্য আনোয়ার হোসেন, কার্যকরি পরিষদের সদস্য সাহাবউদ্দিন ফরাজী, পাট ও বস্ত্র মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী, নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শামীম ওসমান এমপি, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম বাবু এমপি, নারায়ণগঞ্জ সিটি মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২ - ২০২৪
Theme Customized By BreakingNews