কুলাউড়া হাসপাতাল মসজিদের ইমামকে হাত পা বাঁধা অজ্ঞান অবস্থায় উদ্ধার কুলাউড়া হাসপাতাল মসজিদের ইমামকে হাত পা বাঁধা অজ্ঞান অবস্থায় উদ্ধার – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ০৫:৫২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
সানি খানের নিপূণ হাতে চিত্রগ্রহণ হচ্ছে ব্যাড গার্লস সিরিজ ‘আমি কষ্টকর ও অগোছালো জীবন চাইনা – প্রভা উপজেলা নির্বাচন, কমলগঞ্জে ভোট গ্রহণ কাল, বৈরী আবহাওয়ার মধ্যেও নির্বাচনের প্রস্তুুতি নদী ভাঙ্গনে বন্যা কবলিত কমলগঞ্জের বিভিন্ন এলাকা, ১০টি স্থান ঝুঁকিপূর্ণ দুদকে জি-সিরিজের বিরুদ্ধে অভিযোগ শিরোনামহীন ব্যান্ডের ফিলিস্তিনকে স্বাধীন রাষ্ট্রের স্বীকীত দিল স্পেন ও নরওয়ে ভারি বৃষ্টিপাত ও পাহাড়ী ঢলে প্লাবিত কুলাউড়ার বিভিন্ন এলাকা ব্যাড বয় হয়ে পর্দায় আসছেন সীমান্ত রেমালের তান্ডব : ১০ জনের মৃতু, ৩৫ হাজার ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত, বিদ্যুৎহীন ২ কোটি ৩৫ লাখ গ্রাহক সাধারণ সম্পাদকের দায়ীত্ব ফিরে পেলেন ডিপজল

কুলাউড়া হাসপাতাল মসজিদের ইমামকে হাত পা বাঁধা অজ্ঞান অবস্থায় উদ্ধার

  • রবিবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০২৩

এইবেলা, কুলাউড়া  :: মৌলভীবাজারের কুলাউড়া হাসপাতালের ইমাম ইকবাল হোসেন (৪২) কে হাসপাতাল কোয়ার্টার থেকে হাত পা বাঁধা অজ্ঞান অবস্থায় ১৭ নভেম্বর রোববার সকাল ১০টায় উদ্ধার করা হয়েছে। অজ্ঞান অবস্থায় তিনি কুলাউড়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শী ও হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, শনিবার এশার নামায শেষে হাসপাতালের বাসায় ফেরেন ইমাম ইকবাল হোসেন। স্কুলের বার্ষিক পরীক্ষা শেষ হওয়ায় স্ত্রী সন্তানকে দিনের বেলায় গ্রামের বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। রোববার সকাল ১০ টায় হাসপাতাল মসজিদে টাইলস কাজের মিস্ত্রি কাজ করার জন্য মসজিদে আসেন। চাবির জন্য খোঁজ পড়ে ইমামের। কিন্তু ইমামের মোবাইল ফোনও বন্ধ থাকায় সন্দেহ হয়। হাসপাতালের বাসায় গিয়ে দেখা যায়, দরজা ভেতর দিক থেকে বন্ধ। বিছানায় হাত পা বাঁধা অবস্থায় রয়েছেন ইমাম। হাসপাতালের লোকজন দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে অজ্ঞান ও মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে কুলাউড়া হাসপাতালে ভর্তি করেন।

হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. জাকির হোসেন জানান, তিনি নিজে উপস্থিত থেকে ইমামকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। হাত পা, মুখ বাঁধা ছিলো। চেতনানাশক কিছু ব্যবহার করেছে দুর্বৃত্তরা। বাসায় সবকিছু এলোমেলো ছিলো। ধারণা করা হচ্ছে এটা একটি দুর্বৃত্ত চক্রের কাজ।

এব্যাপারে কুলাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আলী মাহমুদ জানান, খবর পেয়ে তিনি হাসপাতালে ইমামকে দেখতে যান। তাঁর জ্ঞান না ফেরায় বুঝা যাচ্ছে না আসলে কি ঘটেছে? চিকিৎসার পর তিনি সুস্থ হলে অভিযোগ নেয়া হবে। কারা বা কেন এই ঘটনা ঘটিয়েছে?- এব্যাপারে তদন্ত চলছে।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২ - ২০২৪
Theme Customized By BreakingNews