- লাইফ স্টাইল

সর্দি-কাশি থেকে বাঁচতে খাবেন যে ৬ খাবার

এইবেলা লাইফস্টাইল ডেস্ক, ২৯ মে: সর্দি-কাশি অনেক বিরক্তিকরও একটা ব্যপার। এটা একবার লেগে গেলে সহজে পিছু ছাড়তে চায় না। তখন ঔষধেও কাজ হয় না। কিন্তু যদি ৭ টি খাবার নিয়মিত খাদ্যতালিকায় রাখতে পারেন তবে খুব সহজেই এই সর্দি-ঠাণ্ডা ও গলা খুশখুসে ভাব থেকে বেঁচে যাবেন। তবে আসুন জেনে নেয়া সেই ৭টি খাবার সম্পর্কে :

কলা
কলা গলার খুশখুসে ভাব কমাতে বিশেষ ভাবে কার্যকরী। কারণ এটি নন-অ্যাসিডিক খাবার। এছাড়া এটি লো গ্লাইসেমিক খাবার হওয়াতে ঠাণ্ডা-সর্দি ভাব কমায়।

আদা চা

গলা খুশখুসে ভাব দূর করতে আদা চা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ২ কাপ পানিতে আদা কুচি দিয়ে ফুটিয়ে সামান্য মধু মিশিয়ে পান করলে খুশখুসে ভাব দূর হয়ে যাবে। কারণ আদা মধুর অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল ও অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি উপাদান গলার গ্ল্যান্ড ফুলে যাওয়া কমায় এবং ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণ থেকে বাঁচায়।

লেবু ও মধুর মিশ্রণ

লেবুর ও মধুর মিশ্রণ গলার ভেতরের ইনফ্লেমেশন কমায় এবং ঠাণ্ডা লেগে গলার ভেতর সরু হয়ে আসার ফলে যে সমস্যা তৈরি হয় তা দূর করে।

ডিমের সাদা অংশ

ঠাণ্ডা লেগে গলায় ব্যথা হওয়া সমস্যা দূর করতে সহায়তা করে ডিমের সাদা অংশ। কারণ ডিমের সাদা অংশ গলার ভেতরের গ্ল্যান্ড ফুলে যাওয়া কমায় এবং ইনফ্লেমেশন দূর করে।

চিকেন স্যুপ

ঠাণ্ডা-সর্দি ও খুসখুসে কাশি কমাতে গরম পানীয় ব্যবহার হয়ে আসছে। এর মধ্যে অন্যতম একটি নাম চিকেন স্যুপ। কারণ চিকেন স্যুপে রয়েছে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি উপাদান যা গলা খুসখুসের জন্য দায়ী ভাইরাস এবং মিউকাস কমায়।

সেদ্ধ গাজর

এইসব রোগ থেকে মুক্তি পাওয়ার সব চাইতে ভালো সবজি হচ্ছে এই গাজর। গাজরের ভিটামিন ও মিনারেলস দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়, যার ফলে সর্দি-ঠাণ্ডা ও কাশি থেকে মুক্তির জন্য কাজ করে থাকে। এ সময় সর্দি-ঠাণ্ডা ও কাশির সময় কাঁচা না খেয়ে সেদ্ধ করা গাজর খাওয়া উচিত।#
রিপোর্ট: শাকির আহমদ

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *