- জাতীয়, ব্রেকিং নিউজ, মৌলভীবাজার, স্লাইডার

স্কুল ছাত্রী রাবিনার হত্যাকারী দেলোয়ারের দৃষ্ঠান্তমূলক শাস্তি দাবিতে মানবন্ধন

এইবেলা, কমলগঞ্জ, ১৯ আগস্ট :: মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের ভান্ডারীগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী রাবিনা বেগমকে গত ১২ জুলাই প্রেমের ফাঁদে ফেলে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে হত্যার পর ধলাই নদে ফেলেছিল প্রতারক প্রেমিক ঘাতক দেলোয়ার হোসেন। ছাত্রীর বাবার দায়ের করা হত্যা মামলার গ্রেফতার হওয়া আসামী দেলোয়ারের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে শনিবার বিদ্যালয়ের সামনের সড়কে সহস্রাধিক শিক্ষার্থী, শিক্ষক, অভিভাবক ও এলাকাবাসী মানববন্ধণ কর্মসূচী পালন করে।

শনিবার সকাল ১১টায় ভান্ডারীগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে রাস্তায় এ বিদ্যালয়ের সহস্রাধিক ছাত্র-ছাত্রী ব্যানার নিয়ে দাঁড়িয়ে আসামীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করে।

প্রখর রোদের মাঝে দাঁড়ানো শিক্ষার্থীদের সাথে সংহতি প্রকাশ করে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সুলেমান মিয়া, প্রচুর সংখ্য অভিভাবক ও গ্রামবাসী এসে মানববন্ধন কর্মসূচীতে যোগ দেন।

মানববন্ধন চলাকালে ভান্ডারীগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: খুরশেদ আলী বলেন, গত ১২ জুলাই ছাত্রী রাবিনা অর্ধ বার্ষিক পরীক্ষা দিয়ে বাড়ি ফিরে গেলে সন্ধ্যায় প্রতারক তাকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে এ ঘটনাটি ঘটিয়েছে। তিনি আসামীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করে বলেন, যাতে ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনা আর না ঘটে সে জন্য সবাইকে সচেতন হতে হবে।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সুলেমান মিয়া বলেন, তিনিও শিক্ষার্থীদের দাবির প্রতি এক মত। ইসলামপুর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড সদস্য মৃনাল কান্তি সিংহ বলেন, আদালত আসামীকে এমন শাস্তি দিবে বলে এ শাস্তির কথা ভেবে আর কেউ এ ধরনের ঘটনা ঘটাতে সাহস পাবে না।

উল্লেখ্য, ইসলামপুর ইউনিয়নের ভান্ডারীগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির এক ছাত্রী রাবিনা বেগমকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে গত ১২ জুলাই সন্ধ্যায় বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে বেশ কয়েক দিন আটকিয়ে রেখে হত্যা করে পরে লাশটি ধলাই নদে ফেলেছিল। ছাত্রীর বাবা কাইয়ুম উদ্দীনের দায়ের করা সাধারন ডায়েরী সূত্রে এ ঘটনায় পুলিশ সন্দেহমূলকভাবে দেলওয়ার হোসেনকে বৃহস্পতিবার (১০ আগষ্ট) রাতে আটক করে।

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *