রাজনগরে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক বিধবা রাজনগরে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক বিধবা – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ০৭:৪০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বড়লেখায় হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সস্মুখ থেকে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার মৌলভীবাজারে প্রধান শিক্ষক সমিতির জেলা কমিটি গঠন : সভাপতি জহর সম্পাদক সিরাজুল কমলগঞ্জে পানি সংকটে ৬শ’ হেক্টর জমিতে এখনো বোরো চাষাবাদ ব্যাহত হতাশ কৃষকরা বড়লেখা থানায় দ্বি-বার্ষিক পরিদর্শণে অ্যাডিশনাল ডিআইজি বিপ্লব বিজয় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন পরিবেশমন্ত্রী মোঃ শাহাব উদ্দিন বড়লেখায় কানাডা প্রবাসীর উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ জুড়ীতে ছাত্রলীগের মাস্ক কম্বল বিতরণ বড়লেখায় ছাত্রলীগের সাবেক সেক্রেটারি জাকির হোসাইনের কম্বল বিতরণ এক সপ্তাহ পর অনশন ভেঙেছেন শাবির শিক্ষার্থীরা কুড়িগ্রামে হাফেজ ছাত্রদের পাগড়ী প্রদান উপলক্ষে তাফসিরুল কোরআন মাহফিল

রাজনগরে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক বিধবা

  • বুধবার, ১০ জুন, ২০২০

এইবেলা, রাজনগর ::

মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলার ৫৫ বছর বয়সী এক বিধবা নারী গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তিন ব্যক্তি মিলে পালাক্রমে গণধর্ষণ করেছে বলে দাবি করেছেন দুই সন্তানের জননী ওই বিধবা নারী।

গত ০৪ জুন রাতে ঘটনার পর থেকে ওই নারী মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। তবে পুলিশ বলছে, ওই মহিলা লিখিত অভিযোগে শ্লীলতাহানীর কথা উল্লে করেছেন।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার ০৪ জুন রাতে উত্তরভাগ ইউনিয়নের বাসিন্দা সনাতন ধর্মালম্বী ওই বিধবা নারী প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ঘরের বাইরে যান। এসময় পূর্ব হতে ওৎ পেতে থাকা পূর্ব সুরীখাল গ্রামের সুধীর বিশ্বাসের ছেলে বিজয় বিশ্বাস (২৫), মনসুর মিয়ার ছেলে সালমান শাহ (২০) সহ ৩ জন যুবক তার মুখ চেপে ধরে পাশের কচুক্ষেতে নিয়ে যায়। সেখানে ওই তিন যুবক পালাক্রমে তাকে ধর্ষণ করে। ধর্ষণ শেষে চলে যাওয়ার সময় তিনি তাদের চিনতে পেরে নাম ধরে চিৎকার করেন।

চিৎকার করায় ধর্ষকরা ওই নারীকে গলাটিপে শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা করে। এ সময় পাশের কুশিয়ারা নদীতে মাছ ধরতে যাওয়া কয়েকজন তার গোঙানির শব্দ শুনে এগিয়ে আসেন। জেলেদের এগিয়ে আসা বুঝতে পেরে ধর্ষকরা পালিয়ে যায়।

পরে ঘটনাস্থল থেকে ওই নারীকে উদ্ধার করে বাড়িতে পাঠানো হয়। পরদিন স্থানীয় ইউপি সদস্য ও চেয়ারম্যানকে বিষয়টি জানানো হলে তাদের পরামর্শে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে তাকে ভর্তি করা হয়।

ধর্ষণের শিকার ওই নারীর জানান, তাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করেছে তিন যুবক। তিনি দুজনকে চিনতে পরলেও একজনকে চিনতে পারেন নি।

স্থানীয় লোকজন জানান, ধর্ষণের ঘটনায় যাদের নাম উল্লেখ করা হয়েছে তারা আগে থেকেই গ্রামের নারীদের উত্ত্যক্ত করতো। এছাড়া এলাকায় চুরিসহ নানা অপকর্মে লিপ্ত হয়ে এলাকাবাসীকে অতিষ্ট করে তুলেছে তারা। এর আগেও গ্রামের এক নারীর (৩০) ঘরে ঢুকলে তিনি চিৎকার করেন। পরে তারা তাদের ব্যবহৃত কিছু জিনিস ফেলে পালিয়ে যায়। এলাকার মুরব্বিদের প্রমাণসহ বলার পরও তাদের বিচার করেননি।

রাজনগর থানার এসআই বিনয় ভূষণ চক্রবর্তী জানান, ওই নারী প্রথমে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ দিয়েছিলেন। ওই অভিযোগের প্রেক্ষিতেই আমি ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। তিনি এখন আবার নতুন করে অভিযোগ দিচ্ছেন।

রাজনগর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আবুল হাসিম জানান, ওই মহিলা লিখিত অভিযোগে শ্লীলতাহানীর কথা উল্লেখ করেছেন, ধর্ষণের কথা আগে উল্লেখ করেননি। এখন বলছেন তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে। তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে এমন অভিযোগ পেলে যথাযথ ব্যবস্থা নেবো।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews