কুলাউড়ায় চা-শ্রমিকদের টাকা ফেরত দিতে ইউএনও’র নির্দেশ! কুলাউড়ায় চা-শ্রমিকদের টাকা ফেরত দিতে ইউএনও’র নির্দেশ! – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৫:৫৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বড়লেখায় বনভূমিতে অবৈধ ঘর নির্মাণ, আসামীর বিরুদ্ধে কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ডের রায় বড়লেখার কাতার প্রবাসীর সাথে প্রতারণা, লভ্যাংশসহ মুলধন আত্মসাৎ বড়লেখায় যুক্তরাজ্য ও কানাডা প্রবাসী ২ কমিউনিটি নেতাকে সংবর্ধনা কমলগঞ্জ আব্দুল গফুর চৌধুরী মহিলা কলেজে নবীন বরণ কমলগঞ্জে কীটনাশকমুক্ত শীতকালীন সবজী চাষে সফল শিক্ষক শান্তু মনি কমলগঞ্জে রেল লাইনের পাশে থেকে শিশুর মরদেহ উদ্ধার বড়লেখায় জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহের উদ্বোধন ও বিজ্ঞান অলিম্পিয়াড বোয়াইলভীর বিএম কলেজে ক্লাস উদ্বোধন ও নবীন বরণ অনুষ্ঠিত দৃষ্টিনন্দন ‘শিশুপার্ক’ পেয়ে খুশি আত্রাইয়ে আশ্রয়ন প্রকল্পের শিশুরা কমলগঞ্জে জুয়ারিদের হামলায় পুলিশসহ আহত ৫ : আটক-৫

কুলাউড়ায় চা-শ্রমিকদের টাকা ফেরত দিতে ইউএনও’র নির্দেশ!

  • রবিবার, ৫ জুলাই, ২০২০

এইবেলা ডেক্স রিপোর্ট :

মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলায় চা-শ্রমিকদের অনুদান প্রদানের জন্য তালিকা তৈরি করতে গিয়ে কয়েকটি বাগানে পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি-সম্পাদক অনিয়মতান্ত্রিকভাবে শ্রমিকদের কাছ থেকে কাগজপত্র ঠিক করার নামে যে টাকা উত্তোলন করেছেন সেগুলো ফেরত দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার এটিএম ফরহাদ চৌধুরী। রোববার দুপুরে উপজেলা পরিষদ হলরুমে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, বিভিন্ন চা-বাগানের ব্যবস্থাপক ও বাগানের শ্রমিক পঞ্চায়েত কমিটির প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করে এ নির্দেশ দেন তিনি।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, ‘চা-শ্রমিকদের জীবনমান উন্নয়ন প্রকল্পের’ আওতায় সমাজসেবা অধিদপ্তর এবার উপজেলার ১৯টি চা-বাগানের ৩ হাজার ৭৩৫ জন শ্রমিককে এককালীন ৫ হাজার টাকা করে মোট প্রায় ১ কোটি ৮৬ লাখ টাকা অনুদান প্রদানের উদ্যোগ নিয়েছে। এর মধ্যে সিরাজনগর বাগানে তা দেয়া হয়ে গেছে।

সম্প্রতি উপজেলার জয়চন্ডী ইউনিয়নের বিজয়া, দিলদারপুর, ক্লিভডনসহ কয়েকটি বাগানের শ্রমিক পঞ্চায়েত কমিটির নেতারা অনুদান পাওয়ার জন্য বিভিন্ন কাগজপত্র ঠিক করার কথা বলে শ্রমিকদের কাছ থেকে বিভিন্ন হারে অর্থ আদায় করেন। এ বিষয়ে সাধারণ শ্রমিকদের পক্ষ থেকে উপজেলা নির্বাহী অফিসার এটিএম ফরহাদ চৌধুরী এর কাছে লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়।

এরই প্রেক্ষিতে রোববার ৫ জুলাই বেলা ১ টার দিকে উপজেলা পরিষদের সভাকক্ষে বৈঠক শুরু হয়। ইউএনও এ টি এম ফরহাদ চৌধুরী এতে সভাপতিত্ব করেন। সভায় বিভিন্ন বাগানের শ্রমিক পঞ্চায়েত কমিটির নেতারা দাবি করেন, উপকারভোগীদের ছবি তোলা, ফটোকপি, মাস্টাররোল তৈরি ও যাতায়াত খরচ বাবদ টাকা নেওয়া হয়েছে।

এসময় বৈঠকে বক্তব্য দেন, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মোহাম্মদ ইব্রাহীম, ক্লিভডন চা-বাগানের ব্যবস্থাপক মো. হাছিব মিয়া, কর্মধা ইউপির চেয়ারম্যান এম এ রহমান অতিক, ব্রাহ্মণবাজার ইউপির চেয়ারম্যান মমদুদ হোসেন, শরীফপুর ইউপির চেয়ারম্যান জোনাব আলী প্রমুখ।

কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার এটিএম ফরহাদ চৌধুরী বলেন, ‘প্রতিবছরই অনুদান প্রদানে অনিয়ম হয়ে থাকে। এবার পাঁচ-ছয়টি বাগান থেকে অভিযোগ এসেছে। এ পরিস্থিতিতে অনিয়ম ঠেকাতে সংশ্লিষ্ট সবাইকে ডেকে আলোচনা করেছি। অনুদান পাইয়ে দিতে বিভিন্ন খরচের কথা বলে নেয়া টাকা দ্রুত ফেরত দিতে বলা হয়েছে। ছবি তোলা ও ফটোকপির কাজে বাগানের ব্যবস্থাপকেরা সহযোগিতা করবেন বলেছেন। অন্যান্য ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা সহযোগিতা করবেন। অনুদান নিয়ে যাতে কোনো অনিয়ম না ঘটে, সে ব্যাপারে সবাইকে সজাগ দৃষ্টি রাখতে বলা হয়েছে। এরপরও কোথাও অনিয়ম ঘটলে জড়িত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews