জুড়ীতে পুড়িয়ে দেয়া বন্ধু পোল্ট্রি ফার্মের মালিকের বিরুদ্ধে আসামীর মামলা : তোলপাড় জুড়ীতে পুড়িয়ে দেয়া বন্ধু পোল্ট্রি ফার্মের মালিকের বিরুদ্ধে আসামীর মামলা : তোলপাড় – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:৫৫ অপরাহ্ন

জুড়ীতে পুড়িয়ে দেয়া বন্ধু পোল্ট্রি ফার্মের মালিকের বিরুদ্ধে আসামীর মামলা : তোলপাড়

  • শনিবার, ২২ আগস্ট, ২০২০
  • ৩০০ বার পড়া হয়েছে

এইবেলা, জুড়ী ::

জুড়ীর বন্ধু পোল্ট্রি ফার্ম ভাংচুর, লুটপাট ও পুড়ানো মামলার আসামীরা জামিনে বেরিয়ে বাদী ও স্বাক্ষীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়েরের অভিযোগ উঠেছে। ঘটনার ৪ মাস পর খামার হারিয়ে পথে বসা খামারী দীনবন্ধু সেনের বিরুদ্ধে আসামীদের মামলা দায়েরের ঘটনায় এলাকায় তোলপাড় চলছে।

জানা গেছে, উপজেলার আমতৈল গ্রামের দীনবন্ধু সেন কয়েক বছর পূর্বে চার বন্ধুকে নিয়ে ‘বন্ধু পোল্ট্রি’ নামে একটি খামার গড়ে তুলেন। ধার-দেনার মাধ্যমে ৪০-৫০ লাখ টাকা বিনিয়োগ করে ফার্মটিতে আড়াই হাজার লেয়ার মোরগী তুলেন। খামারটি জামায়াত নেতা আব্দুল মতিন, মইন উদ্দিন, আহমদ আলী, সিলেট মহানগর ছাত্রশিবিরের নেতা মাহবুব আলম, সাইদুল, হোসেন মোল্লা প্রমুখের বাড়ির পাশে হওয়ায় তারা নানা অজুহাতে দীনবন্ধুকে পোল্ট্রি ফার্ম বন্ধ করার হুমকি-ধমকি দিতে থাকে। তাদের একের পর এক হুমকিতে সংখ্যালঘু দীনবন্ধু সেন খামার রক্ষায় মৌলভীবাজার সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে হুমকি দাতাদের বিরুদ্ধে মামলা করেন। এ মামলাই তার জন্য কাল হয়ে দাঁড়ায়। গত ১ মে রাতে জাময়াত নেতাকর্মীরা খামারে ব্যাপক ভাংচুর ও লুটপাট চালায়। খবর পেয়ে ৩ গ্রামের মানুষ হামলাকারীদের ধাওয়া করে। তারা জামায়াত নেতা সাইদুলের বাড়িতে অবস্থান নিলে ক্ষুব্দ এলাকাবাসী প্রায় ২ ঘন্টা তাদেরকে অবরুদ্ধ করে রাখে। পরে পুলিশ তাদেরকে উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় দীনবন্ধু সেন হামলাকারীদের বিরুদ্ধে জুড়ী থানায় মামলা করেন। এতে আরো ক্ষীপ্ত হয়ে অস্ত্রসস্ত্রে সজ্জিত তারা ২৪ মে গভীর রাতে খামারে আগুন ধরিয়ে দেয়। আগুন দেখে পুলিশে খবর দিলে থানার ওসি পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নেভানোর কারণে অল্পের জন্য রক্ষা পায় খামারটি। অবশেষে ৩১ মে গভীর রাতে জামায়াত নেতা আব্দুল মতিন, মইন উদ্দিন, আহমদ আলী, হোসেন মোল্লা গংরা খামারে আগুন ধরিয়ে দেয়। এতে ২২শ’ মোরগীসহ সম্পুর্ণ খামারটি ভস্মিভুত হয়। এ ঘটনায় খামার মালিক দীনবন্ধু সেন গত ১ জুন আব্দুল মতিনের ছেলে শিবির নেতা মাহবুব আলমসহ ৫ জনকে সন্দেহভাজন আসামী করে থানায় মামলা করেন।

দীনবন্ধু সেনের মামলায় জামায়াত নেতা আব্দুল মতিন, তার ছেলে মাহবুব আলম, সাইদুল ইসলাম, মইন উদ্দিন, বদরুল, আহমদ আলী প্রমুখ আদালত থেকে জামিনে বেরিয়েই গত ৮ আগস্ট ফার্ম ভাংচুর, লুটপাট মামলার ৪নং আসামী আব্দুল মতিন দীনবন্ধুকে প্রধান এবং তার মামলার সাক্ষীদের বিরুদ্ধে প্রায় ৪ মাস আগের একটি ঘটনা সাজিয়ে মৌলভীবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ৬ নং আমলী আদালতে মামলা করেছেন। ক্ষতিগ্রস্থ খামার মালিকের বিরুদ্ধে এজাহার নামীয় আসামীর মামলা দায়েরের খবরে এলাকায় তোলপাড় চলছে।

‘বন্ধু পোল্ট্রি’র মালিক দীনবন্ধু সেন জানান, যে আশা নিয়ে পোল্ট্রি ফার্মটি করেছিলাম তা ওরা ভেস্তে দিয়েছে। পরিকল্পিতভাবে জামায়াত নেতাকর্মীরা আমার পোল্ট্রি ফার্ম পুড়িয়ে অর্ধ কোটি টাকার ক্ষতি করেছে। আমি এখন নিঃস্ব। ন্যায় বিচারের জন্য তাদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেছি। আমার একটি মামলায় জামিন নিয়ে ৪ নং আসামী জামায়াত নেতা আব্দুল মতিন আমাকে প্রধান এবং সাক্ষীদের আসামী করে আদালতে মিথ্যা মামলা করেছে।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews