বড় ভাইয়ের সম্পত্তিতে ছোট ভাই থাবা! বড় ভাইয়ের সম্পত্তিতে ছোট ভাই থাবা! – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ০১:২০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কমলগঞ্জে বিজয় দিবস উপলক্ষে উপজেলা প্রশাসনের প্রস্তুতি সভা কমলগঞ্জে পুষ্টি সমন্বয় কমিটির দ্বি-বার্ষিক সভা মানবিক অবদানের স্বীকৃতি পেলেন নিউইয়র্ক পুলিশ কর্মকর্তা বড়লেখার তৌফিক রাজনগরে আন্তর্জাতিক রেটিং দাবা প্রতিযোগিতা ১৫ ডিসেম্বর বিমান বাহিনী ৫০ তম প্রশিক্ষন সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত বড়লেখায় এসএসসিতে ২৩৯ ও দাখিলে ৬ শিক্ষার্থীর জিপিএ-৫ অর্জন মৌলভীবাজারে এক্স ঢাবিয়ান ১৫ সদস্যবিশিষ্ট ডিইউ এক্স-স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়েশন গঠন বড়লেখায় বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ বিষয়ক সমন্বয় সভা কমলগঞ্জে সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের উপশাখার উদ্বোধন কুড়িগ্রামে পা দিয়ে লিখে জিপিএ-৫ পেয়েছে অদম্য মেধাবী মানিক 
বেকারি ভাড়া দেয়া হবে
মৌলভীবাজার জেলার জুড়ী উপজেলা সদরে সম্পূর্ন চালু অবস্থায় একটি বড় বেকারি (৬ হাজার স্কয়ার ফুট) ভাড়া দেয়া হবে। গ্যাস, বিদ্যুৎসংযোগ, ওভেন ও তান্দুরি আছে।
যোগাযোগ- ০১৮১৯৯৭৮৫৫৫

বড় ভাইয়ের সম্পত্তিতে ছোট ভাই থাবা!

  • রবিবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০
প্রতীকি ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর সূত্রাপুরে বড় ভাইয়ের ফ্লাট দখলের অভিযোগ উঠেছে ছোট ভাইয়ের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় বড় ভাই মীর দেলোয়র হোসেন বাদী হয়ে ডিএমপি’র সূত্রাপুর থাকায় একটি লিখিত (জিডি নং ৬৪৫, তারিখ ১৩-০৭-২০২০) অভিযোগ দায়ের করেছেন।

মীর দেলোয়ার হোসেনের দায়ের করা অভিযোগ ও সরেজিমেন জানা যায়, সূত্রাপুরে ৩/১৩, প্রতাপ দাব লেনে বাড়িটি মীর দেলোয়ার হোসেনদের পৈত্রিক সম্পত্তি। বাবা-মা মারা যাওয়ার পরে উক্ত বাড়ীর কিছু অংশ সকল ভাই-বোন ও তাদের ওয়ারিশগণ এজমালীতে ভোগ দখল করছেন এবং বাড়ির কিছু অংশ দেলোয়রা ও তার তৃতীয় ভাই সৈয়দ মঞ্জুর হোসেন অন্যান্য ওয়ারিশদও নিকট হইতে একক ও যৌথভাবে ক্রয় করেন। এরমধ্যে ২০০৬ ইং সালে সৈয়দ মঞ্জুর হোসেনের কাছে তাদের ছোট ভাই সৈয়দ শাহ নেওয়াজ হোসেন ওয়ারিশ সূত্রে প্রাপ্ত ৩/১৩ প্রতাপ দাস লেনের জমির অংশের মালিকানা বিক্রয় করে। যাহার নতুন হোল্ডিং নং ৩/১৩ প্রতাপ দাস লেন। পরে ২০১৬ ইং সালে দেলোয়ার ও মঞ্জুর হোসেন নিকট তাদের দ্বিতীয় ভাই সৈয়দ বেলায়েত হোসেন এবং এক বোনের ওয়ারিশগণ তাদের ওয়ারিশ সূত্রে প্রাপ্ত ৩/১৩ প্রতাপ দাস লেনের জমির অংশের মালিকানা বিক্রয় করেন। যাহার নতুন হোল্ডিং নং ৩/১৩/বি প্রতাপ দাস লেন। ফলে সৈয়দ শাহ নেওয়াজ হোসেন ওয়ারিশ সূত্রে প্রাপ্ত জমির অংশ বিক্রয় করার কারণে তাদের আর কোনো কোনো মালিকানা নেই। এদিকে দোলোয়ার ও মঞ্জুর ৩/১৩/এ ও ৩/১৩/বি হোল্ডিংয়ের আলাদা নামজারী করে ভূমি অফিসে ও সিটি কর্পোরেশনে খাজনাদি পরিশোধ করে ভোগ দখল করছেন। অপরদিকে সৈয়দ শাহ নেওয়াজ হোসেনের কোনো মালিকানাই বিদ্যমান নেই এবং ভবিষ্যতেও তাহার কোনো ওয়ারিশ মালিকানা দাবী করতে পারবে না বা করিলেও তাহা সর্বাদালতে অগ্রাহ্য ও বাতিল হবে মর্মে গত ২০১৭ সালে একটি ‘না-দাবীনামা দলিল’ সম্পাদন করে দেন।

এদিকে শাহ নেওয়াজ কাউকে কিছু না জানিয়ে চলতি বছরের ৫ জুলাই দুপুর দেড়টার দিকে তার স্ত্রী নার্গিষ আক্তার ও ছেলে সৈয়দ ইকার হোসেনসহ বহিরাগত সন্ত্রাসী মহিলা ও পুরুষসহ ৭/৮জন উক্ত হোল্ডিংস্থ ভবনের ৩য় তলায় ফ্লাটটিতে ভাড়াটিয়া থাকাবস্থায় ঐ সময় ভাড়াটিয়াদের অনুপস্থিতিতে মূল দরজার তালা ভেঙে ঘরে প্রবেশ করে দখলে করে নেন এবং ভবনটির অন্য একটি ফ্লাট নিজের বলে দাবি করছেন। দেলোয়ার হোসেন তাকে বাঁধা দিলে উল্টো হুমকি দেয়া হয়। অন্যদিকে সৈয়দ মঞ্জুর হোসেন বর্তমানে স্বপরিবারে আমেরিকায় বসবাস করছেন। ঘটনা শুনার পর বৈশি^ক মহামারী করোনার কারনে আমেরিকা থেকে দেশে আসতে পারছেন না। এমতাবস্থায় শাহ নেওয়াজ বাসার অন্য ভাড়াটিয়াদের সরিয়ে পুরো বাসাটি দখলে নিয়ে নিতে পারে বলে আশংকা করছেন মীর দোলোয়র হোসেন ও মঞ্জুর হোসেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
সুরমা ব্রিকস্, ঢুলিপাড়া (মৈশাজুরী) কুলাউড়া, মৌলভীবাজার।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews