কুড়িগ্রামে নদী ভাঙ্গনে নিঃস্ব হয়েছে ২০ গ্রামের লক্ষাধিক মানুষ কুড়িগ্রামে নদী ভাঙ্গনে নিঃস্ব হয়েছে ২০ গ্রামের লক্ষাধিক মানুষ – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ১০:১৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ত্রাণ বিতরণে অনিয়ম হলে কঠোর ব্যবস্থা : ইউএনও, বড়লেখা কুলাউড়ায় পানীবন্দি মানুষদের মাঝে জামায়াতের উপহার! কুলাউড়ায় ৫ ইউনিয়নে বন্যার্তদের মাঝে খাদ্য সহায়তা প্রদান কুলাউড়ায় রেললাইনে পানি, ট্রেন চলাচলে নতুৃৃন নির্দেশনা বড়লেখায় আশ্রয়কেন্দ্রে ছুটছে দুর্গতরা, ত্রাণের জন্য হাহাকার বড়লেখায় ৭ হাজার গ্রাহকের সংযোগ বিচ্ছিন্ন, পানিবন্দী মানুষের চরম ভোগান্তি বড়লেখায় ঢলের পানিতে ডুবে স্কুলছাত্রীর মৃত্যু স্পেনে যুবলীগ কাতালোনিয়া শাখার উদ্যোগে ঈদ পুনর্মিলনী ও আলোচনা মৌলভীবাজারে বন্যার পানিতে ডুবে ২ জনের মৃত্যু কুলাউড়ায় বন্যা আশ্রয় কেন্দ্র পরিদর্শণ করলেন মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক

কুড়িগ্রামে নদী ভাঙ্গনে নিঃস্ব হয়েছে ২০ গ্রামের লক্ষাধিক মানুষ

  • শনিবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২০
এইবেলা, কুড়িগ্রাম ::
কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীতে দুধকুমর নদীর ভাঙ্গনে নিঃস্ব হয়েছে ২০ গ্রামের লক্ষাধিক জনগণ। ঘন ঘন বন্যা প্রাকৃতিক দূর্যোগ ও করোনার মোকাবেলায় টিকে থাকলেও দুধকুমর নদীর ভাঙ্গনে সর্বশান্ত হয়ে পরেছে বামনডাঙ্গা, বেরুবাড়ী, বল্লভেরখাস ও কালিগঞ্জ ইউনিয়নবাসী।
এছাড়াও বড়মানী, পাচমাথা, আয়নালের ঘাট, মুড়িয়াহাট,
কালিগঞ্জসহ প্রায় ২০টি গ্রাম নদী ভাঙ্গনের কবলে পড়ে নিঃস্ব হয়েছে। নদী ভাঙ্গনের কবলে পড়ে অসংখ্য মধ্যবিত্ত লোক ঢাকা, কুমিল্লা সহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় দিন মজুরের কাজ করে সংসার চালাচ্ছে। শিক্ষা বঞ্চিত হয়ে পড়েছে অনেক শিশু। অভাবের তারনায় খেতে খামারে কাজ করে সংসারে যোগান দিচ্ছে এক সময়ের স্কুল পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা। অনেকে আবার অন্যের বসত ভিটায় ঠাই নিয়েছে।
বড়মানী এলাকায় চলতি মৌসুমে নাম মাত্র বালুর বস্তা ফেলেছে যা নদী ভাঙ্গায় রোধে যথেষ্ট নহে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা নদী শাসন সহ জরুরী ভিত্তিতে ব্লক ফেলিয়ে নদীর তীর রক্ষা করার দাবী জানিয়েছে। স্থানীয়রা বলেন “হামার সোনার সংসার ভাসিয়ে নিয়েছে দুধকুমর নদী”।
বামনডাঙ্গার স্থানীয় কৃষক আমিনুল বলেন- অবিলম্বে নদীতে বোল্ডার দিয়ে ভাঙ্গন বন্ধ করে ফসলি জমিসহ ভিটামাটি রক্ষার  উদ্যোগ নিতে হবে।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২ - ২০২৪
Theme Customized By BreakingNews