কমলগঞ্জে সম্মুখ সমরযুদ্ধ স্মৃতিসৌধ রক্ষণাবেক্ষণের দাবিতে মানববন্ধন কমলগঞ্জে সম্মুখ সমরযুদ্ধ স্মৃতিসৌধ রক্ষণাবেক্ষণের দাবিতে মানববন্ধন – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২, ০২:১০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বড়লেখায় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ শিক্ষার্থীদের বাসমাশিসের নগদ অর্থ সহায়তা বন্যায় বীজতলার ভুমি নিমজ্জিত-বড়লেখায় বিকল্প ব্যবস্থায় ৪৮ বিঘা জমিতে রোপা আমনের চারা উৎপাদন কুলাউড়ার ভুকশিমইল ইউনিয়ন- দু’টি প্রকল্পের কাজ নিয়ে জনমনে অসন্তোষ কুলাউড়ায় প্রবাসীর স্ত্রীর লাশ উদ্ধার : জিজ্ঞাসাবাদের জন্য শ্বশুড় ননদ আটক ফুলবাড়ীতে সড়ক সংস্কারে অনিয়মের অভিযোগ   কুলাউড়ায় চা শ্রমিকদের ভূখা মিছিল সাংবাদিক আব্দুল বাছিত খানের উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে জুড়ীতে মানববন্ধন দায়সারাভাবে শোকদিবস পালন-বড়লেখায় চার প্রধান শিক্ষককে শোকজ বড়লেখায় চাচা-ভাতিজার ঝগড়া থামাতে গিয়ে হার্ট এ্যাটাকে মারা গেলেন বৃদ্ধা কমলগঞ্জ সাংবাদিকের উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের

কমলগঞ্জে সম্মুখ সমরযুদ্ধ স্মৃতিসৌধ রক্ষণাবেক্ষণের দাবিতে মানববন্ধন

  • রবিবার, ১৩ ডিসেম্বর, ২০২০

এইবেলা, কমলগঞ্জ ::

সারাদেশের ১৩টি সম্মুখ সমরযুদ্ধের স্মৃতিসৌধের মত ২০১২ সালে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর বিমানবন্দর এলাকায় নির্মিত হয়েছিল একটি সম্মুখযুদ্ধ স্মৃতিসৌধ। স্মৃতিসৌধ নির্মাণের পর এটি রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে পুরো স্মৃতিসৌধ এলাকা ঝোঁপঝাড়ে ভরে যায়। শমশেরনগর সম্মুখ সমরযুদ্ধ পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করে তা রক্ষণাবেক্ষণের দাবিতে রোববার ১৩ ডিসেম্বর সকাল সাড়ে ১১টায় স্থানীয় সামাজিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন “নবধারা” শমশেরনগর স্মৃতিসৌধের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে।

নবধারা শমশেরনগর এর সন্বয়ক মাহমুদুর রহমান আলতার নেতৃত্বে কমিটির সদস্যরা রোববার সকাল সাড়ে ১১টায় শমশেরনগর বিমানবন্দর এলাকায় মুক্তিযুদ্ধের সম্মুখ সমরযুদ্ধ স্মৃতিসৌধের সামনে অবস্থান নিয়ে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন। মানবন্ধন পালনকালে বক্তব্য রাখেন কমিটির সদস্য প্রভাষক কবি শাহজাহান মানিক, প্রভাষক আবু সাদাত মো. সায়েম, মোকারামীন চৌধুরী, শামছুল হক মিন্টু, জাহিদুল ইসলাম প্রমুখ। পরে সম্মুখ সমরযুদ্ধ স্মৃতিসৌধের ঝোঁপঝাড় পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করে। একই সাথে পার্শবর্তী শমশেরনগরে বধ্যভূমি স্মৃতিসৌধ ধোয়া মোছা করেন।

নবধারা শমশেরনগর-এর সমন্বয়ক মাহমুদুর রহমান আলতা বলেন, সম্মুখ সমর স্মৃতিসৌধ নির্মাণের পর থেকে ফটকে তালা দিয়ে রাখলেও স্থানীয় প্রশাসন বা কেউ তা রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব পালন করেনি। ফলে পুরো এলাকা ঝোঁপঝাড়ে আচ্ছাদিত হয়ে পড়ে। একই সাথের পাশের বধ্যভূমি স্মৃতিসৌধ অবহেলায় ও অযতেœ পড়েছিল। গত বছরও নবধারা শমশেরনগর এ দুটি স্মৃতিসৌধ পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করে ১৪ ডিসেম্বর বুদ্ধিজীবি দিবস ও ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসে পুষ্পার্পণ করে বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছে।

মানববন্ধনে তারা প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলা হয় দুটি স্মৃতিসৌধ রক্ষণাবেক্ষণের উদ্যোগ নিয়ে দায়িত্বশীল কারো কাছে ফটকের চাবি হস্তান্তর করলে মানুষজন সেখানে গিয়ে স্মৃতিসৌধে প্রবেশ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে পারবে।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews