জুড়ী ছাত্রদলের কমিটিতে বিবাহিত ও ছাত্রলীগ! জুড়ী ছাত্রদলের কমিটিতে বিবাহিত ও ছাত্রলীগ! – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ১২:২১ অপরাহ্ন

জুড়ী ছাত্রদলের কমিটিতে বিবাহিত ও ছাত্রলীগ!

  • সোমবার, ১৮ জানুয়ারী, ২০২১
  • ১৪৬ বার পড়া হয়েছে

এইবেলা, জুড়ী ::

জুড়ী ছাত্রদলের আহবায়ক কমিটিতে স্থান পেয়েছেন বিবাহিত, বিএনপি, ছাত্রলীগ ও শিবিরের কর্মী। এনিয়ে উপজেলা জুড়ে ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

অভিভাবক সংগঠনগুলোর নেতাকর্মীদের মধ্যেও চলছে তোলপাড়। জানা যায় জেলার জুড়ী উপজেলায় দীর্ঘ প্রায় ৫ বছর পর আবারও কেন্দ্রীয় কমিটির নির্দেশে আহবায়ক কমিটির অনুমোদন দেয় মৌলভীবাজার জেলা ছাত্রদল। ওই কমিটিতে মুজাহিদুল ইসলাম জয়দুল নামের উপজেলা বিএনপির এক নেতাকে (সাবেক শিবির কর্মী) আহবায়ক করা হয়। সে জুড়ী উপজেলা বিএনপির ছাত্রবিষয়ক সম্পাদক এবং বিবাহিত। যা ছাত্রদলের গঠনতত্ত্বের পরিপন্থী বলে ছাত্রদল নেতাকর্মীরা অভিযোগ করেছেন। জেলা কমিটি অনুমোদীত ২১ সদস্যের ওই উপজেলা কমিটিতে ৪ জন বিবাহিত এবং একজন ছাত্রলীগের সক্রিয় নেতা বলে ক্ষোভের সাথে অভিযোগ করেছেন উপজেলা ও তৃণমূলের ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। জানা যায় সর্বশেষ ২০১৬ সালের ৩ মার্চ আজহার আহমেদ ওয়াসিমকে আহবায়ক করে ১৫ সদস্য বিশিষ্ট জুড়ী উপজেলা শাখা কমিটি অনুমোদন করে তৎকালীন জেলা কমিটি।

এরপর গত বছরের ২ ফেব্রুয়ারি কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় ছাত্রদল। দীর্ঘদিন কমিটি বিহীন থাকার পর গত ১৫ জানুয়ারি মৌলভীবাজার জেলা ছাত্রদলের সভাপতি রুবেল মিয়া ও সাধারণ সম্পাদক আকিদুর রহমান সোহান স্বাক্ষরিত জেলা ছাত্রদলের আওতাধীন উপজেলা,পৌর ও কলেজসহ ৯ টি শাখার আহবায়ক কমিটি ঘোষিত হয়। এরই সাথে ২১ সদস্য বিশিষ্ট জুড়ী উপজেলা শাখা কমিটিও অনুমোদন পায়। কমিটিতে উপজেলা বিএনপির ছাত্রবিষয়ক সম্পাদক মুজাহিদুল ইসলাম জয়দুলকে আহবায়ক এবং আব্দুল্লাহ আল ইমনকে সদস্য সচিব করে কমিটি ঘোষণা করা হয়।

অপর যুগ্ম আহবায়করা হলেন ফয়জুর রহমান,সোহেল আহমদ, তাহমিদ বিন আহমদ, জুবের আহমদ, সাইফুল ইসলাম, বদরুল ইসলাম শান্ত, দেওয়ান মারজান মেহেদী, লুৎফুর রহমান ইমন, তরিকুল ইসলাম, আ.স.ম. কিবরিয়া, রুহেল আহমদ, মারজান রহমান।

আর সদস্যরা হলেন হাসান আহমদ লিজন, রায়হান আহমদ, রিয়াজ উদ্দিন, সায়মন, লিটন আহমদ, জাবেল মিয়া,সাব্বির খান। এরমধ্যে মুজাহিদুল ইসলাম জয়দুল, আ.স.ম কিবরিয়া, সাইফুল ইসলাম, লিটন আহমদ, দেওয়ান মারজান মেহদী ও সায়মনের বিরুদ্ধে ছাত্রলীগ, বিবাহিত ও বিএনপি এমন গুরুতর অভিযোগ তোলেন ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। তাদের এমন আনীত অভিযোগের ভিত্তিতে বিভিন্ন (বিয়ের কাবিন, অন্য দলের দলীয় অনুষ্ঠানে নেতাদের সাথে অন্তরঙ্গ ছবি) তথ্য উপাথ্যও তোলেদেন গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে।

নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক উপজেলা ছাত্রদলের নতুন কমিটির এক যুগ্ম আহবায়কসহ উপজেলা ও তৃণমূলের একাধিক নেতাকর্মী ক্ষোভের সাথে বলেন এ কমিটি ছাত্রদলের কমিটি হতে পারে না। এই কমিটির আহবায়ক বিএনপি নেতা,ছাত্রলীগ ও বিবাহিত। জীবনে কোনদিন ছাত্রদলের অনুষ্ঠানে আসেনি তাদেরকেও উপজেলার নেতা বানানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে নতুন আহবায়ক মুজাহিদুল ইসলাম জয়দুল মুঠোফোনে বলেন, আমি বিবাহিত এটা ডাহা মিথ্যা রটানো। আমার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষরাই এই মিথ্যা রটাচ্ছে। তারা আগেও এরকম করেছিলো এখন করছে। তাছাড়া আমি বিএনপির কমিটি থেকে পদত্যাগ করে ছাত্রদলের জন্য লবিং করেছি। তাছাড়া ভূয়া কাবিন, ফেইক ফেসবুক আইডি ও অন্যের বিবাহের ছবি দিয়ে আমার নামে চালানো হচ্ছে। আমি এব্যাপারে থানায় জিডি করেছি। তবে কমিটিতে স্থান পাওয়া অনেকেই বিবাহিত আছেন তা এমনটি স্বীকার করেন।

জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আকিদুর রহমান সোহান এ বিষয়ে বলেন,  এখন যে ভাবে তথ্য উপাথ্য দিয়ে অভিযোগ আসছে প্রথম দিকে আমরা ওরকম পাইনি। কেন্দ্র থেকে আমাদেরকে যে ভাবে বলা হয়েছে আমরা ওই রকম কমিটি দিয়েছি। কেন্দ্রের বাহিরে তো আমরা কিছু করতে পারি না। তাছাড়া ওই উপজেলার অভিভাবক সংগঠনের (বিএনপি) সিনিয়র নেতৃবৃন্দকে অবগত করেই আমরা ওই কমিটির জন্য সুপারিশ করেছি। অভিযোগের বিষয়টি এখন আমরা অবগত হয়েছি। কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দকে বিষয়টি অবগত করব। বিবাহিত, বিএনপি এবং ছাত্রলীগ প্রমাণিত হলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews