ছুটির জন্য এক‌ই নারীকে ৪ বার বিয়ে ছুটির জন্য এক‌ই নারীকে ৪ বার বিয়ে – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ১১:৩৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বড়লেখার ১০ ইউনিয়নে নৌকার মনোনয়ন চান ৫৩ জন কুমিল্লার ঘটনা সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রেরই অংশ : পরিবেশমন্ত্রী ড. আবেদ চৌধুরীর উদ্ভাবিত আমন ধান কাটা হলো নির্ধারিত সময়ের দেড় মাস আগে  বড়লেখায় সোয়া ৩ কোটি টাকার নদী খননে ব্যাপক লুটপাটের অভিযোগ কুলাউড়ায় ৩টি পূজামন্ডপ ভাঙচুরের ঘটনায় ৫ শতাধিক আসামী : ১০ গ্রামে গ্রেফতার আতঙ্ক কবি ও কথা সাহিত্যিক দিলারা রুমার দু’টি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন বড়লেখায় টিলা কাটায় ঘরে ফাটলে দুর্ঘটনার আশংকা কমলগঞ্জের লক্ষ্মীপুর সার্বজনীন পুজামন্ডপে সুবিধাবঞ্চিদের মধ্যে বস্ত্র বিতরণ  বিএনপি নেতার জামিনে আ’লীগ নেতাকর্মীদের আনন্দ মিছিল কুমিল্লার বিচ্ছিন্ন ঘটনায় দেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি যেন বিনষ্ট না হয়- সুলতান মো.মনসুর এমপি

ছুটির জন্য এক‌ই নারীকে ৪ বার বিয়ে

  • বৃহস্পতিবার, ৩ জুন, ২০২১
  • ১৩৪ বার পড়া হয়েছে

নিউজ ডেস্ক:-বিয়ে করলেই ৮ দিনের ছুটি দেবে অফিস। এই সুবিধা ভোগ করতে একই নারীকে পর পর ৪ বার বিয়ে করলেন ওই অফিসের এক কর্মী। এজন্য স্ত্রীকে ৩ বার ডিভোর্স দিতে হয়ে তাকে।

অদ্ভুত এই ঘটনা ঘটেছে তাইওয়ানের তাইপেতে। ২০২০ সালের এপ্রিলে এ কাণ্ডটি ঘটিয়েছেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক তাইপের এক ব্যাংকার।

ইনসাইডার ডট কমসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের খবর, তাইপেতে অবস্থিত ওই ব্যাংকের নিয়ম হলো- কোনো কর্মী বিয়ে করলে তাকে টানা ৮ দিনের ছুটি দেওয়া হবে। এই ৮ দিনের বেতনও পাবেন তিনি।

এই সুযোগ কাজে লাগাতে গত বছর ৬ এপ্রিল ওই ব্যাংকার প্রথম বিয়ে করেন। ব্যাংকের নিয়ম অনুযায়ী এর জন্য তিনি সবেতনে ৮ দিন টানা ছুটি পান। ১৬ এপ্রিল স্ত্রীকে ডিভোর্স দিয়ে দেন তিনি। পর দিন ১৭ এপ্রিল ফের সেই নারীকেই বিয়ে করেন। ২৮ এপ্রিলে আবার ডিভোর্স দেন। পরদিন ২৯ এপ্রিল সাবেক স্ত্রীকে তৃতীয়বারের মতো বিয়ে করেন। পরবর্তী মাসের ১১ তারিখে তৃতীয়বারের মতো স্ত্রীকে ডিভোর্স দেন ব্যাংকার। ঠিক আগের ৩ বারের মতো চতুর্থবার ১২ মে ওই নারীকে বিয়েকে করেন তিনি।

এভাবে তিনি ৪ বার বিয়ে করেন এবং ৩ বার ডিভোর্স দেন। টানা ৩২ দিন ছুটি কাটাতে এই ফন্দি আঁটেন ওই ব্যাংকার।

কিন্তু সফল হতে পারেননি তিনি। তার চালাকি বুঝে যায় ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। তাকে আর বাড়তি ছুটি দেয়নি তারা।

মূলত ওই ব্যক্তির দ্বিতীয় বিয়ে থেকেই তার পরিকল্পনা ছক ধরে ফেলে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। সেদিকে কান না দিয়ে সবেতনে ছুটি কাটাতে প্রতিবার বিয়ে করেছেন ওই ব্যাংকার। এবং প্রতিবারই ব্যাংকের কাছে ছুটির আবেদন করে গেছেন।

জানা গেছে, চতুর্থ বার বিয়ের পর ব্যাংক তার আবেদন নামঞ্জুর করলে তিনি আইনের দ্বারস্থ হন। আইন ভাঙার জন্য ওই ব্যাংকের ৫২ হাজার ৮০০ টাকা জরিমানা হয়। জরিমানার বিরুদ্ধে ব্যাংক মামলা করে।

এতে ফেঁসে যাচ্ছে ব্যাংক। কারণ বিষয়টি ওই ব্যক্তির ইচ্ছাকৃত হলেও তিনি কোনো আইন ভাঙেননি বলে জানিয়েছে আদালত। উল্টো ছুটি না দিতে ব্যাংক নিজেদের আইন মানেনি বলে জানানো হয়। সে কারণে জরিমানা মাফ করেনি আদালত।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews