কুলাউড়ার গৃহবধু ফেঞ্চুগঞ্জে ট্রেন থেকে পড়ে মারা গেলেন : নেপথ্যে পারিবারিক কলহ কুলাউড়ার গৃহবধু ফেঞ্চুগঞ্জে ট্রেন থেকে পড়ে মারা গেলেন : নেপথ্যে পারিবারিক কলহ – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:৫৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
আমেরিকার নিউইয়র্ক সিটির ব্রঙ্কস বোরো প্রেসিডেন্ট হলেন কুলাউড়ার জুয়েল কুলাউড়ায় ব্যাংক ম্যানেজারদের সাথে ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দের মতবিনিময় কুড়িগ্রামের চিলমারীতে উপ নির্বাচনে যুবলীগ সভাপতি জামান বিজয়ী কুড়িগ্রামে মাদক বিরোধী অভিযানে আটক-১ কুলাউড়ার রবিরবাজারে ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের উপ-শাখার উদ্বোধন কমলগঞ্জে আরডব্লিউডি ওয়াই মুভস প্রকল্পের ত্রৈমাসিক সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত কমলগঞ্জ উপজেলা পুষ্টি সমন্বয় কমিটির সভা অনুষ্ঠিত কমলগঞ্জে ২ হাজার দরিদ্র পরিবারের মাঝে জিআর এর চাল বিতরণ কুলাউড়ায় ঘাস কাটা নিয়ে হামলায় এক কিশোর আহত জুড়ীতে ভাড়াটিয়া কর্তৃক দোকান মালিক হয়রানীর অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

কুলাউড়ার গৃহবধু ফেঞ্চুগঞ্জে ট্রেন থেকে পড়ে মারা গেলেন : নেপথ্যে পারিবারিক কলহ

  • বুধবার, ৯ জুন, ২০২১
  • ৪০৬ বার পড়া হয়েছে

এইবেলা, কুলাউড়া :::

ফেঞ্চুগঞ্জ ও মাইজগাঁও স্টেশনের মধ্যবর্তী স্থানে মঙ্গলবার (০৮ জুন) ট্রেন থেকে ঝাঁপিয়ে পড়ে  রিনা পাল (৫৫) নামক এক গৃহবধু মারা গেছেন । নিহত রিনা পাল কুলাউড়া উপজেলার জয়চন্ডী ইউনিয়নের রামপাশা গ্রামের অরুন পালের স্ত্রী ও ২ সন্তানের জননী। পারিবারিক কলহের কারণে তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সিলেট রেলওয়ে থানার ওসি মো. আব্দুস সাত্তার বলেন, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম থেকে সিলেটগামী আন্তঃনগর পাহাড়িকা এক্সপ্রেস মাইজগাঁও স্টেশন থেকে সিলেটের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়ার সময় স্টেশনের অদূরে ট্রেন থেকে হঠাৎ ঝাঁপ দেন রিনা পাল। এতে তার ডান পা কাটা পড়ে।

দীর্ঘক্ষণ ঘটনাস্থলে পড়ে থাকায় অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়েছে। ফেঞ্চুগঞ্জ থানা পুলিশ তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

খবর পেয়ে রেলওয়ে সিলেট থানা পুলিশ এসে হাসপাতাল থেকে লাশ উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য প্রেরণ করে। এ ব্যাপারে রেলওয়ে সিলেট থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

এদিকে লাশের ময়না তদন্ত শেষে বুধবার বিকেলে লাশ দাহ করা হয়। স্থানীয় লোকজন জানান, গৃহবধু রিনা পালের ছেলের অত্যাচার নির্যাতনে অতিষ্ঠ ছিলেন। শুধু রিনা পাল নয় তার স্বামী অরুন পাল ছেলের অত্যাচার নির্যাতনে অতিষ্ঠ। শারিরিকভাবেও বাবা মাকে নির্যাতন করতো ছেলে মুন্না পাল। ফলে নির্যাতন থেকে মুক্তি পেতে রিনা পাল আত্মহত্যার পথ বেছে নেন।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews