১৫ আগস্ট উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল করেছে যুবলীগ মনফালকনে গরিঝিয়া ১৫ আগস্ট উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল করেছে যুবলীগ মনফালকনে গরিঝিয়া – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
মঙ্গলবার, ৩০ মে ২০২৩, ০৮:৫২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ওসমানীনগরে প্রেমিকার প্রতারণা : প্রবাসী যুবকের আত্মহত্যার অভিযোগে থানায় মামলা আয়াকে দিয়ে মিথ্যা মামলা : মাদ্রাসার সভাপতি-সুপারের বিরুদ্ধে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনাকে ‘কটুক্তিকারী’ সেই যুবক ওয়ার্ড আ.লীগের সম্পাদক! নিরাপদ মাতৃত্ব দিবস: কমলগঞ্জে গর্ভবতী মায়েদের স্বাস্থ্যসেবা প্রদান কুলাউড়ায় রেললাইনের পাশ থেকে  অজ্ঞাত মহিলার লাশ উদ্ধার শ্রীমঙ্গলে বহুদলীয় প্লাটফর্ম পিস ফ্যাসিলিটেটর গ্রুপের কমিটি গঠন কুলাউড়ার গাজিপুর চা-বাগান- শ্রমিক গৃহ নির্মাণের নামে টিলা কাটার অভিযোগ কমলগঞ্জে সেটেলমেন্টের ভুলের কারণে মৌরসী সম্পত্তি হারানোর ভয়ে উদ্বিগ্ন জমির মালিকরা কমলগঞ্জে নবাগত জেলা প্রশাসকের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত আত্রাইয়ে সামাজিক বনায়ন বিষয়ক প্রশিক্ষন

১৫ আগস্ট উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল করেছে যুবলীগ মনফালকনে গরিঝিয়া

  • সোমবার, ১৬ আগস্ট, ২০২১
ইতালি প্রতিনিধি ::
ইতালি আওয়ামী যুবলীগ মনফালকনে গরিঝিয়া উদ্যোগে ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষে একটি আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার বিকালে মনফালকনে শহরের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও কর্মীবান্ধব যুবলীগ নেতা মোজাম্মেল আলম দিপু সভাপতিত্বে ও তৌফিক ইসলাম রুবেল এর পরিচালনায় অনুষ্ঠানের শুরুতেই কোরআন তেলাওয়াত,পাঠ সহ সকল শহীদদের স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু হয়।
উক্ত দোয়া মাহফিলের অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মনফালকনের আওয়ামীলীগ ও যুবলীগের বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ ছাড়াও দলীয় প্রবাসী কর্মীরা ।
 বক্তরা বলেন, ১৫ আগস্ট স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করা হয় ১৯৭৫ সালের এই দিনে। পরিকল্পনাটি ছিল সুদূরপ্রসারী। শুধু বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবকে হত্যা নয়, তাঁর আদর্শকেও নির্বাসনে পাঠানোর গভীর ষড়যন্ত্র করা হয়েছিল। ঘাতেকের বুলেট সেদিন ধানমন্ডরি ঐ বাড়িতে শেখ পরিবারের কাউকে রেহাই দেয়নি। এই জঘন্য হত্যাকাণ্ডের ঘটনাটি যে ঘাতকচক্রের পূর্ব পরিকল্পনা, তা স্পষ্ট হয় হত্যা পরবর্তী কর্মকাণ্ড থেকেই। ঘাতকরা বঙ্গবন্ধু বা তাঁর পরিবারের সদস্য ও ঘনিষ্ঠ সহকর্মীদের হত্যা করেই ক্ষান্ত হয়নি, এ দেশের রাষ্ট্রক্ষমতা কুক্ষিগত করে হত্যাকারীদের নিরাপদ জীবন নিশ্চিত করেছিল, পুরস্কৃত করেছিল। এই দেশের মানুষকে বঙ্গবন্ধু শুধু যে স্বাধীনতা দিয়েছেন তা কিন্তু না, জাতিকে দেখিয়েছেন স্বপ্ন, আর বেঁচে থাকার আত্মসম্মান। যারা স্বাধীনতা বিরোধী ছিলেন তারা তখন ও বাংলাদেশকে ধ্বংসের পাঁয়তারা করেছে এবং আজ ও করছে তবে অত্যন্ত দৃঢ় চেতনার অধিকারী প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর সেই স্বপ্নকে বাস্তবায়নের পথে একাগ্রচিত্তে কাজ করে চলেছেন। আলোচনা শেষে বঙ্গবন্ধু সহ পনেরোই আগস্ট নিহত সকল শহীদদের মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয় এবং দলীয় নেতাকর্মীদের মধ্য তোবারক বিতরণের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘঠে।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews