পর্যটকদের পদচারণায় মুখর মাধবকুন্ড জলপ্রপাত ও ইকোপার্ক পর্যটকদের পদচারণায় মুখর মাধবকুন্ড জলপ্রপাত ও ইকোপার্ক – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ০২:২০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কুলাউড়ায় আশ্রয়ণের ঘর বরাদ্দের নামে অর্থ আত্মসাতে অভিযুক্ত ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু ব্যারিস্টার সুমনের সহযোগিতায় বাঁচার আকুতি প্রবাসে বন্দী যুবকের! সিলেটের বন্যাদুর্গত মানুষের পাশে মেডগ্লোবাল শিশু হত্যা মামলার সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার কোটা সংস্কারে আদালতের রায় না আসা পর্যন্ত কিছু করার নেই – প্রধানমন্ত্রী কমলগঞ্জে পূজা উদযাপন পরিষদের বৃক্ষরোপন কুড়িগ্রামে শিশুদের প্রতি সহিংসতা বন্ধে স্থানীয় স্টেক হোল্ডারদের সাথে সংলাপ সুজানগর ইউপি : বন্যার্তদের ২০ লাখ টাকার খাদ্যসামগ্রী দিচ্ছেন প্রবাসীরা ইউপি চেয়ারম্যান উপ-নির্বাচন-বড়লেখায় প্রতীক পেয়েই প্রচারণায় প্রার্থীরা কুলাউড়ায় বন্যা কবলিত এলাকায় শিশু খাবার পানি বিশুদ্ধকরণ টেবলেট ও খাবার স্যালাইন বিতরণ

পর্যটকদের পদচারণায় মুখর মাধবকুন্ড জলপ্রপাত ও ইকোপার্ক

  • শনিবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০২১

বড়লেখা প্রতিনিধি ::

বড়লেখার মাধবকু- জলপ্রপাত ও ইকোপার্কে বছর জুড়ে পর্যটকদের ভীড় লেগেই থাকে। তবে বিভিন্ন উৎসবে পর্যটকদের সমাগম একটু বৃদ্ধি পায়। এতে মুখরিত হয়ে উঠে পর্যটন এলাকা। হাসি ফুঠে স্থানীয় ব্যবসায়ীদের মুখে। এবার মহান বিজয় দিবসের ছুটিতে প্রকৃতির পরশ পেতে মাধবকুন্ডে ভীড় জমাচ্ছেন পর্যটকরা।

বনবিভাগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বিজয় উৎসবের দিন বৃহস্পতিবার থেকে শনিবার বিকেল সাড়ে চারটা পর্যন্ত মাধবকুন্ড জলপ্রপাতে প্রায় ৪ হাজার পর্যটকের সমাগম ঘটেছে। প্রতিদিন আশপাশের উপজেলার মানুষ ছাড়াও দেশের নানা প্রান্ত থেকে নানা বয়সী মানুষ ভীড় করছেন মাধবকুন্ডে । এতে বেচাকেনা ভালো হওয়ায় স্থানীয় ব্যবসায়ীদের মুখে হাসি ফুটে ওঠেছে।

সরেজমিনে শনিবার দুপুরে দেখা গেছে, দূর-দূরান্ত থেকে পরিবার-পরিজন, বন্ধু-বান্ধবসহ নানা বয়সী মানুষ বাস, মাইক্রোবাসসহ বিভিন্ন ধরনের ছোট-বড় যানবাহনে করে মাধবকুন্ডে বেড়াতে আসছেন। স্থানীয় দোকানগুলোতে জমজমাট বিকিকিনি হচ্ছে।

যশোর থেকে মাধবকুন্ডে ঘুরতে আসা আকলিমা বেগম বলেন, দীর্ঘদিন কোথাও ঘোরা হয়নি। করোনার কারণে ঘরবন্ধি ছিলাম। আমার স্বামী সরকারি চাকরিজীবী। বিজয় দিবসের কারণে তার (স্বামীর) ছুটি মিলেছে। তাই তাকে সঙ্গে নিয়ে সঙ্গে মাধবকুন্ডে ঘুরতে এসেছি। এখনকার প্রাকৃতিক পরিবেশ দেখে মুগ্ধ হয়েছি।

ফটিকছড়ি থেকে আসা ব্যবসায়ী নির্মল চক্রবর্তী বলেন, আমার দীর্ঘদিনের ইচ্ছা মাধবকু- দেখার। কিন্তু সময় পাচ্ছিলাম না। বিজয় দিবসে মাধবকুন্ডে আসব বলে পরিকল্পনা করে রেখেছিলাম। তাই পরিবার নিয়ে এসেছি। এখানে এসে বেশ ভালো লাগছে। রাস্তা-ঘাটও ভালো। আসতে কোনো সমস্যা হয়নি।

মাধবকুন্ডের আইন শৃঙ্খলার দায়িত্বে নিয়োজিত পর্যটন পুলিশের সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) প্রণীত চাকমা বলেন, পর্যটকের নিরাপত্তায় পুলিশ সবসময় কাজ করছে। আগত পর্যটকরা পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে যাতে পাহাড় চূড়ায় না উঠতে পারে, সেজন্য পুলিশ সর্তক আছে।

বনবিভাগের বড়লেখা রেঞ্জ কর্মকর্তা শেখর রঞ্জন দাস জানান, মাধবকুন্ডে বছরজুড়ে কমবেশি পর্যটকের আনাগোনা থাকে। তবে বিভিন্ন উৎসবে এখানে পর্যটক সমাগম বৃদ্ধি পায়। দেশের বিভিন্ন স্থানের পর্যটকের পাশাপাশি বিদেশী পর্যটকরাও মাধবকুন্ডে বেড়াতে আসেন। বিজয় দিবসের ছুটি পেয়ে এখানে অসংখ্য পর্যটক এসেছেন। পর্যটকের নিরাপত্তায় পুলিশ সবসময় কাজ করছে। পাশাপাশি আমাদেরও নজরদারি ছিল।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২ - ২০২৪
Theme Customized By BreakingNews