নতুন পরিচয়ে শাকুর মজিদ নতুন পরিচয়ে শাকুর মজিদ – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০২:১৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কমলগঞ্জে পূজা উদযাপন পরিষদের বৃক্ষরোপন কুড়িগ্রামে শিশুদের প্রতি সহিংসতা বন্ধে স্থানীয় স্টেক হোল্ডারদের সাথে সংলাপ সুজানগর ইউপি : বন্যার্তদের ২০ লাখ টাকার খাদ্যসামগ্রী দিচ্ছেন প্রবাসীরা ইউপি চেয়ারম্যান উপ-নির্বাচন-বড়লেখায় প্রতীক পেয়েই প্রচারণায় প্রার্থীরা কুলাউড়ায় বন্যা কবলিত এলাকায় শিশু খাবার পানি বিশুদ্ধকরণ টেবলেট ও খাবার স্যালাইন বিতরণ কুলাউড়ায় আশ্রয়ন প্রকল্পে ঘর বরাদ্দের নামে অসহায় মহিলার ভিক্ষার টাকা আত্মসাত! ব্যারিস্টার সুমনকে হত্যার হুমকি দাতা কুলাউড়ার সোহাগ গ্রেফতার! ওসমানীনগরে শতাধিক শিক্ষার্থী পেল স্কুল ড্রেস বার্সেলোনায় সাংবাদিক নেতৃবৃন্দের সাথে বাংলার মেলা আয়োজক সংঠনের মতবিনিময় কুলাউড়া পৌরসভার ৬৯ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা

নতুন পরিচয়ে শাকুর মজিদ

  • বৃহস্পতিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২২
স্থপতি শাকুর মজিদ

এইবেলা বিনোদন ডেস্ক :: অনেক পরিচয়ে পরিচিত স্থপতি শাকুর মজিদের নতুন পরিচয়ে আসছেন দর্শকদের মাঝে।আনুষ্ঠানিকভাবে এবার গীতিকার হিসেবে আবির্ভাব হলো তাঁর। মূলত তিনি নাট্যকার, ভ্রমণ কাহিনীকার । এখন পর্য়ন্ত নির্মাণ করেছেন বহু তথ্যচিত্রও। লিখেছেন অসংখ্য কবিতা ও গল্প ।

প্রথমবারের মতো গান লিখেছেন শাকুর মজিদ। বাংলাদেশে কর্মরত স্থপতিদের পেশাদারী সংগঠন বাংলাদেশ স্থপতি ইনস্টিটিউট (বাস্থই) এর ৫০ বছর পূর্তি অনুষ্ঠানের থিম সংটি তাঁর লেখা।

আধুনিক স্থাপত্যকলার পথিকৃৎ মাজহারুল ইসলাম বাস্থই এর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন। শুক্রবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) সংগঠনটির ৫০ বছর পূর্তি। এ নিয়ে অন্য সবার মতোই উচ্ছ্বসিত শাকুর মজিদ, বাড়তি পাওনা হিসেবে পেয়েছেন থিম সং লেখার দায়িত্ব! সুবর্ণজয়ন্তী ঘিরে থিম সংটি ইতোমধ্যে সম্পন্ন বলে জানিয়েছেন ‘বুয়েটকাল’ এর এই লেখক।

‘বিধাতার গড়া এই সুন্দর ধরাতে/ মানুষের প্রয়োজন নিত্য মিটাতে/সুঠাম সবল করা ব্যবহারী ভবনে/ সুচারু আকার দিতে সুন্দর ভুবনে/ মানুষের হাত পড়ে গড়ে ওঠে শেষটা/ থেকে যাবে অবিরাম ভালো লাগা রেশটা’- এমন কথায় গানটির সুর ও সংগীত করেছেন নকীব খান।

গানটি নিয়ে শাকুর মজিদ বলেন, বাংলাদেশ স্থপতি ইনস্টিটিউটের ৫০ বছর পূর্তি শুক্রবার। বছরব্যাপী যে অনুষ্ঠান হবে, তার উদ্বোধন এদিন সন্ধ্যা ৬টায়। অনুষ্ঠানের শুরুতে একটি গান প্রচার হবে, ইনস্টিটিউট থেকে সেই সুবর্ণজয়ন্তী সংগীতটি আমাকে লিখতে বলা হয়। যেটা লিখেছি, সেটাই থিম সং হিসেবে ব্যবহার হবে।

প্রখ্যাত এই লেখক ও স্থপতি জানান, এই গানটি লেখার ক্ষেত্রে আমি তিনটি জিনিস চিন্তা করেছি, যার উপর ভিত্তি করে গানটি লেখা। স্থাপত্য বিষয়টা কী, আমাদের দেশের স্থাপত্য ও কী অবস্থার মধ্য দিয়ে আমরা আছি, এবং এই দেশকে এই দেশের স্থপতিরা কী দিতে পারেন! পুরো বিষয়টি গানে গানে বলার চেষ্টা করেছি।

অনেক পরিচয়ের সাথে এখন থেকে তাহলে ‘গীতিকার’ পরিচয়টিও যুক্ত হচ্ছে? এমন প্রশ্নে শাকুর মজিদ বলেন, এই থিম সং লেখার মধ্য দিয়ে নতুন একটি পরিচিতি যুক্ত হলো। এরআগে আমার ছেলের জন্য একটি গান লিখেছিলাম আমি, গানটির নাম ছিলো ‘শৈশব’। আমার ছেলে ব্যান্ড সংগীত চর্চা করতো, তার অনুরোধেই সেই গানটি লিখেছিলাম। তবে সেই গানের কোথাও গীতিকার শাকুর মজিদ, এমনটা লেখা নাই। এই থিম সং লেখার মধ্য দিয়েই আসলে ফর্মাল গীতিকার হিসেবে আবির্ভাব হলো।
তিনি জানান, বাস্থই এর জন্য লেখা গানটির ভিজ্যুয়ালও তৈরী হচ্ছে। স্থপতি ও নৃত্যশিল্পী তামান্না রহমানের নেতৃত্বে একটি দল কাজ করেছে। নাচের মাধ্যমে গানটির কথায় যা বলা হয়েছে, সেগুলো প্রকাশ করবেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২ - ২০২৪
Theme Customized By BreakingNews