কুলাউড়ায় ৩ সন্তানের জননীকে অমানবিক নির্যাতনের অভিযোগ কুলাউড়ায় ৩ সন্তানের জননীকে অমানবিক নির্যাতনের অভিযোগ – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ০৪:২০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কুলাউড়ায় ইয়াবা ব্যবসায়ী আটকে এলাকায় আনন্দ মিছিল জাতীয় শোক দিবসে বড়লেখার ১০০ দুস্ত পরিবার পেল বিজিবি’র খাদ্যসামগ্রী কুলাউড়ায় জাতীয় শোক দিবস পালিত ১৯ মাসেও বাস্তবায়ন হয়নি চা শ্রমিকদের মজুরি বৃদ্ধির চুক্তি বড়লেখায় প্রবাসী ব্যারিস্টার সুমনকে নাগরিক সংবর্ধনা বড়লেখায় জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল বড়লেখা ফ্রেন্ডস ক্লাব ইউ,কে’র মানবিক সহায়তা, অচ্ছল পরিবারকে ঘর হস্তান্তর শোক দিবস উপলক্ষে বিজিবি’র উদ্যোগে বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কুলাউড়ায় কৃষক গ্রুপ গঠন ও ওরিয়েন্টেশন কমলগঞ্জের কালীপ্রসাদ উচ্চ বিদ্যালয়ে বিজ্ঞান মেলা অনুষ্ঠিত

কুলাউড়ায় ৩ সন্তানের জননীকে অমানবিক নির্যাতনের অভিযোগ

  • রবিবার, ১০ এপ্রিল, ২০২২

এইবেলা, কুলাউড়া ::

কুলাউড়া উপজেলার কর্মধা ইউনিয়নে ৩ সন্তানের জননীকে অমানবিক নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এঘটনায় গৃহবধু লাভলী খানম রিয়া ০৯ এপ্রিল শনিবার কুলাউড়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

থানায় দায়েরকৃত অভিযোগ থেকে জানা যায়, ১০ বছর আগে কর্মধা উইনয়নের হেসনাবাদ গ্রামের সোহাগ মিয়ার ছেলে শাহিন মিয়ার সাথে লাভলী খানম রিয়ার বিয়ে হয়। তাদের ৩ কন্যা সন্তান রয়েছে। বিয়ের পর থেকে কারণে অকারণে শাহীন মিয়া স্ত্রী লাভলী খানম রিয়াকে নির্যাতন করতেন। কিন্তু তিনি সন্তানের কথা বিবেচনা করে নির্যাতন মুখ বুঝে সহ্য করতেন। প্রায় ৩ বছর আগে মারপিট করে ৩ সন্তানসহ বাড়ি থেকে বের করে দেন। নিরুপায় হয়ে একই গ্রামে গৃহবধু রিয়া মামা শ্বশুড়ের বাড়িতে আশ্রয় নেন। সেখানে ৩ সন্তান নিয়ে বসবাস করছেন।

এদিকে শাহিন মিয়া প্রথম স্ত্রী রিয়ার কোন প্রকার অনুমতি ছাড়া ২য় বিয়ে করে স্থানীয় রবিরবাজারে ২য় স্ত্রী নিয়ে বসবাস করেন।

গৃহবধু রিয়া ৩ সন্তান নিয়ে মামা শ্বশুড়ের বাড়িতে থেকে স্থানীয় ফানাই নদী থেকে বালু উত্তোলন করে তা বিক্রি করে সন্তানদের নিয়ে মানবেতর জীবন যাপ করছেন। এমতাবস্থায় শাহিন মিয়া শনিবার ০৯ এপ্রিল সকালে এসে গৃহবধু রিয়ার কাছে ২০ হাজার টাকা দাবি করেন। তিনি টাকা দিতে অস্বীকার করলে তাকে মারপিট করতে থাকে। অমানবিক নির্যাতনকালে গৃহবধুর রিয়ার চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এলে শাহিন মিয়া চলে যায়। স্থানীয় লোকজন গৃহবধুকে উদ্ধার করে কুলাউড়া হাসপাতালে ভর্তি করেন।

কুলাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ বিনয় ভূষণ রায় জানান, লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। এব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।##

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews