বড়লেখার শিক্ষক বকুল নাথ শিক্ষার সাথে ছড়াচ্ছেন ফুলের সৌরভও বড়লেখার শিক্ষক বকুল নাথ শিক্ষার সাথে ছড়াচ্ছেন ফুলের সৌরভও – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ০৬:৪০ অপরাহ্ন

বড়লেখার শিক্ষক বকুল নাথ শিক্ষার সাথে ছড়াচ্ছেন ফুলের সৌরভও

  • বুধবার, ১ জুন, ২০২২

বড়লেখা প্রতিনিধি:

বড়লেখা উপজেলার দক্ষিণ বাগীরপার প্রাইমারি স্কুলের প্রধান শিক্ষক বকুল চন্দ্র নাথ। প্রায় ৩০ বছর ধরে শিক্ষার আলো বিলিয়ে দেয়ার সাথে ছড়াচ্ছেন ফুলের সুগন্ধও। সৌন্দর্য আর পবিত্রতার প্রতীক ফুল। আর এজন্য ফুলের প্রতি তার গড়ে উঠে এক অন্যরকম টান। এজন্যই বাড়ির আঙিনায়, ছাদে ও ফাঁকা জায়গায় লাগিয়েছেন নানা জাতের ফুল। শুধু নিজের বাড়িতেই ফুল লাগিয়েছেন, তা নয়। লাগিয়েছেন নিজের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে। পাশাপাশি যারা ফুল ভালোবাসেন তাদেরকেও ফুলের চারা দিচ্ছেন বিনামূল্যে। তার বাড়ির বাগানে স্থান পেয়েছে প্রায় ৪০০ ফুল গাছ।

ফুলপ্রেমী শিক্ষক বকুল চন্দ্র নাথের বাড়ি উপজেলার দাসেরবাজার ইউনিয়নের উত্তর বাগীরপারে। সম্প্রতি উপজেলার ১৫১টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তিনি বিভিন্ন জাতের ফুলের চারা দিয়েছেন। জেলা পরিষদ মিলনায়তনে ফুলের চারা বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ইউএনও খন্দকার মুদাচ্ছির বিন আলী। সভাপতিত্ব করেন উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মীর আব্দুল্লাহ আল মামুন। আলাপকালে ফুলের প্রতি ভালোবাসার গল্প শুনিয়েছেন শিক্ষক বকুল চন্দ্র নাথ। তিনি বলেন, ফুল হচ্ছে পবিত্র, সৌন্দর্যের প্রতীক। ফুল সবাই পছন্দ করেন। যখন আমি ফুল গাছের পরিচর্যা করি, তখন মন ভালো থাকে। এছাড়া ফুল গাছের নানা উপকারিতাও রয়েছে। তিনি জানান, বাড়ির পাশাপাশি নিজের কর্মস্থল দক্ষিণ বাগীরপার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়েও ফুলের গাছ লাগিয়েছেন। প্রায় ৩০ বছর ধরে বিভিন্ন স্থান থেকে ফুলের চারা সংগ্রহ করে বাড়ির আঙিনায়, ছাদে ও ফাঁকা জায়গায় লাগিয়েছি। নতুন একটা জায়গা করেছি ফুল গাছ লাগানোর জন্য। বর্তমানে আমার সংগ্রহে রয়েছে গোলাপ, এডোনিয়াম, জবা, রুয়েলিয়া, কসমস, ডালিয়া, রঙ্গন, সানসেট বেল, সন্ধ্যামালতী, নয়নতারা, পাতা বাহারসহ নানা জাতের ফুল। যারা আমার এখানে ফুল দেখতে আসেন, ফুল ভালোবাসেন, তারা ফুল নিতে চাইলে দিই। এছাড়া বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও ধর্মীয় উপাসনালয়ে বিনামূল্যে ফুলের চারা দিয়েছি। স¤প্রতি উপজেলার ১৫১টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিভিন্ন জাতের ফুলের চারা দিয়েছি।

মানুষগড়ার কারিগর শিক্ষক বকুল চন্দ্র নাথ সারাজীবন শিক্ষার আলো বিলিয়েছেন। চলতি বছরেই তিনি চাকরি থেকে অবসরে যাবেন। অবসর গেলেই তিনি উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ফুলের গাছ লাগানোর আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। এক্ষেত্রে তিনি এসব প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের সহযোগিতা চেয়েছেন।

বকুল চন্দ্র নাথ বলেন, আমার চাকরি শেষ পর্যায়ে। আর কিছুদিন পর অবসরে যাব। অবসর পেলে ইচ্ছা আছে উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিজের হাতে গিয়ে ফুল গাছ লাগাবো। যদি এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা আগ্রহী হন, সহযোগিতা করেন তাহলে আমি এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ফুলে ফুলে ভরে দিতে চাই।

বড়লেখা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক সমিতির সাংগঠনিক স¤পাদক মুহাম্মদ নাজিম উদ্দিন বলেন, বকুল স্যার সারা জীবন শিক্ষার আলো বিলিয়েছেন। এখন উপজেলার সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ফুলের চারা বিলাতে চাইছেন। তার প্রস্তাবকে স্বাগত জানাই। তাকে সহযোগিতায় আমরা প্রস্তুত। তার এমন নান্দনিক উদ্যোগকে উৎসাহ দেয়া ও মূল্যায়ন করা উচিত। উপজেলা প্রশাসন তাকে যথাযথ সহযোগিতা ও পুরস্কৃত করবেন বলে আশা করি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews