কুলাউড়ায় ইয়াবা ব্যবসায়ী আটকে এলাকায় আনন্দ মিছিল কুলাউড়ায় ইয়াবা ব্যবসায়ী আটকে এলাকায় আনন্দ মিছিল – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ০৭:২৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কুড়িগ্রামে শিশুদের প্রতি সহিংসতা বন্ধে স্থানীয় স্টেক হোল্ডারদের সাথে সংলাপ সুজানগর ইউপি : বন্যার্তদের ২০ লাখ টাকার খাদ্যসামগ্রী দিচ্ছেন প্রবাসীরা ইউপি চেয়ারম্যান উপ-নির্বাচন-বড়লেখায় প্রতীক পেয়েই প্রচারণায় প্রার্থীরা কুলাউড়ায় বন্যা কবলিত এলাকায় শিশু খাবার পানি বিশুদ্ধকরণ টেবলেট ও খাবার স্যালাইন বিতরণ কুলাউড়ায় আশ্রয়ন প্রকল্পে ঘর বরাদ্দের নামে অসহায় মহিলার ভিক্ষার টাকা আত্মসাত! ব্যারিস্টার সুমনকে হত্যার হুমকি দাতা কুলাউড়ার সোহাগ গ্রেফতার! ওসমানীনগরে শতাধিক শিক্ষার্থী পেল স্কুল ড্রেস বার্সেলোনায় সাংবাদিক নেতৃবৃন্দের সাথে বাংলার মেলা আয়োজক সংঠনের মতবিনিময় কুলাউড়া পৌরসভার ৬৯ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা ওসমানীনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভুরিভোজ নিয়ে তোলপাড়!

কুলাউড়ায় ইয়াবা ব্যবসায়ী আটকে এলাকায় আনন্দ মিছিল

  • মঙ্গলবার, ১৬ আগস্ট, ২০২২

এইবেলা, কুলাউড়া ::  কুলাউড়ায় থানা পুলিশের অভিযানে ৬০২ পিছ ইয়াবাসহ মনু মিয়া (৪৫) নামক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়েছে। এদিকে মাদক ব্যবসায়ী মনুকে পুলিশ আটক করায় হায়দরগঞ্জ বাজারের স্থানীয় লোকজন আনন্দ মিছিল করেছে। মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) সকাল ১১টায় থানায় সংবাদ সম্মেলন করে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আমিনুল ইসলাম।

তিনি জানান, সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলার সীমান্তবর্তী কর্মধা ইউনিয়নের হায়দরগঞ্জ বাজার এলাকায় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আব্দুছ ছালেকের নেতৃত্বে এসআই মো. এনামুল হকসহ একদল পুলিশ মাদকবিরোধী বিশেষ অভিযান পরিচালনা করেন। এসময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কর্মধার টাট্টিউলি গ্রামের বাসিন্দা মৃত নানু মিয়ার ছেলে মনু মিয়াকে হায়দরগঞ্জ বাজারস্থ তার চায়ের দোকান থেকে ৬০২ পিছ ইয়াবাসহ আটক করা হয়।

পুলিশের হাতে আটক মনু মিয়া জানান, ১২ বছর ধরে স্থানীয় এলাকায় তার একটি চায়ের দোকান রয়েছে। তিনি চা বিক্রি করে সংসার চালান। তবে পুলিশের হাতে ৬০২ পিছ ইয়াবাসহ আটক প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমি প্রথম ইয়াবা ব্যবসা শুরু করেছি। জুড়ীর ফুলতলা এলাকার একজন আমাকে এই ইয়াবা দিয়েছেন বিক্রি করার জন্য।

থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আমিনুল ইসলাম জানান, মনুর বিরুদ্ধে থানায় মাদক আইনে মামলা (নং-১৬) দায়ের করা হয়েছে। সে দীর্ঘদিন ধরে মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত। তাকে গ্রেফতার করতে পুলিশের গোয়েন্দা নজরদারি ছিল দীর্ঘদিন থেকে। এছাড়া ২০১৮ সালে বিস্ফোরক আইনে তার বিরুদ্ধে একটি মামলাসহ একাধিক মামলা আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। তিনি আরো বলেন, সিলেট রেঞ্জ ডিআইজির সার্বিক দিকনির্দেশনা ও জেলা পুলিশ সুপারের নির্দেশে মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করায় কুলাউড়ায় পুলিশের মাদকবিরোধী অভিযান রয়েছে। #

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২ - ২০২৪
Theme Customized By BreakingNews