কুলাউড়ায় মিছিরা খাতুন একাডেমি নামক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উদ্বোধন কুলাউড়ায় মিছিরা খাতুন একাডেমি নামক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উদ্বোধন – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ০১:৫৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কুলাউড়ায় আশ্রয়ণের ঘর বরাদ্দের নামে অর্থ আত্মসাতে অভিযুক্ত ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু ব্যারিস্টার সুমনের সহযোগিতায় বাঁচার আকুতি প্রবাসে বন্দী যুবকের! সিলেটের বন্যাদুর্গত মানুষের পাশে মেডগ্লোবাল শিশু হত্যা মামলার সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার কোটা সংস্কারে আদালতের রায় না আসা পর্যন্ত কিছু করার নেই – প্রধানমন্ত্রী কমলগঞ্জে পূজা উদযাপন পরিষদের বৃক্ষরোপন কুড়িগ্রামে শিশুদের প্রতি সহিংসতা বন্ধে স্থানীয় স্টেক হোল্ডারদের সাথে সংলাপ সুজানগর ইউপি : বন্যার্তদের ২০ লাখ টাকার খাদ্যসামগ্রী দিচ্ছেন প্রবাসীরা ইউপি চেয়ারম্যান উপ-নির্বাচন-বড়লেখায় প্রতীক পেয়েই প্রচারণায় প্রার্থীরা কুলাউড়ায় বন্যা কবলিত এলাকায় শিশু খাবার পানি বিশুদ্ধকরণ টেবলেট ও খাবার স্যালাইন বিতরণ

কুলাউড়ায় মিছিরা খাতুন একাডেমি নামক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উদ্বোধন

  • শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০২২

এইবেলা, কুলাউড়া :: কুলাউড়া উপজেলার টিলাগাঁও ইউনিয়নে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানহীন এলাকা উত্তর বিজলীতে ০৩ ডিসেম্বর শনিবার মিছিরা খাতুন একাডেমির উদ্বোধন হয়েছে। মৌলভীবাজারের জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মিছবাহুর রহমান প্রধান অতিথি হিসেবে একাডেমির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

একাডেমির দাতা পরিবারের সদস্য জহির উদ্দিন আহমদের সভাপতিত্বে এবং ফাইজা ও রাইসার সঞ্চালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন টিলাগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মালিক, সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল মালিক, মৌলভীবাজার জেরা স্কাউটসের সেক্রেটারি ফয়জুর রহমান, প্রেসক্লাব কুলাউড়ার সভাপতি আজিজুল ইসলাম, একাডেমির প্রধান শিক্ষক সহিদুল ইসলাম চৌধুরী প্রমুখ।

উল্লেখ্য টিলাগাঁও ইউনিয়নের উত্তর বিজলী গ্রামের আশেপাশে কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান না থাকায় জহির উদ্দিন আহমদ ও তাঁর পরিবারের লোকজন মায়ের নামের মিছিরা খাতুন একাডেমি নামে এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি চালু করেন। বর্তমানে প্রাথমিক হলেও পর্যায়ক্রমে তা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে উন্নীত হবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মিসবাহুর রহমান বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার শিক্ষাবান্ধব সরকার। শিক্ষাক্ষেত্রে সরকার অত্যন্ত আন্তরিক তার প্রমান হলো শিক্ষার্থীদের বেতন দিতে হয় না। এখন লেখাপড়া করলে শিক্ষার্থীরা উল্টো টাকা পায়। বছরের প্রথম দিন বই পায়। এখন প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যারা শিক্ষকতা করেন তারা মাষ্টার্স পাস। ফলে শিক্ষা ব্যবস্থায় এখন পরিবর্তনের হাওয়া লেগেছে। তিনি একাডেমির জন্য শহীদ মিনার ও ভবন নির্মাণের প্রতিশ্রুতি দেন।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২ - ২০২৪
Theme Customized By BreakingNews