জুড়ীতে দুর্গন্ধে অতিষ্ট এলাকাবাসী! জুড়ীতে দুর্গন্ধে অতিষ্ট এলাকাবাসী! – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ০৬:২৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বড়লেখায় ঢলের পানিতে ডুবে স্কুলছাত্রীর মৃত্যু স্পেনে যুবলীগ কাতালোনিয়া শাখার উদ্যোগে ঈদ পুনর্মিলনী ও আলোচনা মৌলভীবাজারে বন্যার পানিতে ডুবে ২ জনের মৃত্যু কুলাউড়ায় বন্যা আশ্রয় কেন্দ্র পরিদর্শণ করলেন মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক বড়লেখায় জেলা প্রশাসকের বন্যাদুর্গত এলাকা পরিদর্শন ও খাদ্যসামগ্রী বিতরণ সিলেটে ৮ জুলাই পর্যন্ত এইচএসসি পরীক্ষা স্থগিত কুলাউড়ায় লক্ষাধিক মানুষ পানি বন্দি, বাড়ছে পানি, বাড়ছে দুর্ভোগ! দুর্যোগ মোকাবেলায় বিশ্বে বাংলাদেশ রোলমডেল : দুর্যোগ ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী হাকালুকি হাওরপারে বন্যার অবণতি-বড়লেখায় ২৫২ গ্রাম প্লাবিত, আশ্রয় কেন্দ্রে ২২০ পরিবার, লাখো মানুষ পানিবন্দি মৌলভীবাজারে বন্যা কবলিত ৪৩২ গ্রাম, পানিবন্দি প্রায় ২ লাখ মানুষ

জুড়ীতে দুর্গন্ধে অতিষ্ট এলাকাবাসী!

  • বুধবার, ২৪ মে, ২০২৩

স্টাফ রিপোর্ট:: জুড়ী উপজেলার পশ্চিম ভবানীপুর গ্রামের জামে মসজিদ সংলগ্ন স্থানের একটি অবৈধ লেয়ার মুরগির খামারের দুর্গন্ধে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ হয়েছেন। জনবহুল এলাকায় নোংরা পরিবেশে ‘নিরব পোল্ট্রি ফার্ম’ নামক এই মুরগির খামারকে জনস্বার্থে প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তরের নিবন্ধন ও পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র প্রদান না করতে ভোক্তভোগী এলাকাবাসী বুধবার পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক ও উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা বরাবর লিখিত আবেদন করেছেন।

ভোক্তভোগী এলাকাবাসী লিখিত আবেদনে জানান, উপজেলার জায়ফরনগর ইউনিয়নের পশ্চিম ভবানীপুর জামে মসজিদ সংলগ্ন রাস্তার ২০ ফুট দুরত্বে সমছু মিয়ার ছেলে আবুল কাশেম পরিবেশ আইনের তোয়াক্কা না করে ‘নিরব পোল্ট্রি ফার্ম’ নামে একটি মুরগির ফার্ম স্থাপন করেন। দীর্ঘদিন ধরে তিনি নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে লেয়ার মুরগির ফার্ম চালিয়ে যাওয়ায় আশপাশের লোকজন এর দুর্গন্ধে মারাত্মক দুর্ভোগ পোয়ান। বিশেষ করে কোমলমতি শিক্ষার্থীরা শ্বাসকষ্টসহ নানা অসুখবিসুখে আক্রান্ত হতে থাকে। এই পোল্ট্রি ফার্মের দুর্গন্ধে ইতিমধ্যে শ্বাসকষ্ট রোগে আক্রান্ত হয়ে স্থানীয় নাসির মিয়ার স্ত্রী হতু বেগম ও মইয়ব আলীর দুই শিশু সন্তান মারা গেছে।

এখান থেকে পোল্ট্রি ফার্মটি অন্যত্র সরানোর অনুরোধ স্বত্তে¡ও এর মালিক আবুল কাশেম তাতে কর্নপাত করেননি। নিরুপায় হয়ে এলাকাবাসী এই অবৈধ মুরগির ফার্মের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পরিবেশ অধিদপ্তরের সিলেট ও মৌলভীবাজার কার্যালয়ে লিখিত অভিযোগ করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে কর্মকর্তারা সরেজমিনে পরিদর্শণ করে পরিবেশ আইন লঙ্ঘন করার অভিযোগে আবুল কাশেমকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। এরপর কিছুদিন ফার্মের কাযক্রম বন্ধ রাখলেও বর্তমানে তিনি আগের মত মুরগির ফার্ম দেওয়ার পায়তারা করছেন। এতে এলাকাবাসীর মধ্যে চাপা উত্তেজনা বিরাজ করছে। এর জের ধরে যে কোন সময় অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটার আশংকা রয়েছে।

ভোক্তভোগীরা জনস্বার্থের কথা বিবেচনায় নিয়ে আবুল কাশেমকে নিবন্ধন ও পরিবেশ ছাড়পত্র প্রদান না করতে জুড়ী উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা এবং পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালকের প্রতি জোর দাবী জানিয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২ - ২০২৪
Theme Customized By BreakingNews