জুড়ীতে সাবেক প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীর উপবৃত্তির টাকা আত্মসাতের অভিযোগ জুড়ীতে সাবেক প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীর উপবৃত্তির টাকা আত্মসাতের অভিযোগ – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১১:১৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কুড়িগ্রামে ৯ উপজেলায় কৃষিতেই ১০৫ কোটি টাকা ক্ষতি সিলেটের কোম্পানীগঞ্জে খাসিয়াদের গুলিতে ২ বাংলাদেশি নিহত কমলগঞ্জে বিনামূল্যে চক্ষু শিবির অনুষ্ঠিত কুলাউড়ায় আশ্রয়ণের ঘর বরাদ্দের নামে অর্থ আত্মসাতে অভিযুক্ত ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু ব্যারিস্টার সুমনের সহযোগিতায় বাঁচার আকুতি প্রবাসে বন্দী যুবকের! সিলেটের বন্যাদুর্গত মানুষের পাশে মেডগ্লোবাল শিশু হত্যা মামলার সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার কোটা সংস্কারে আদালতের রায় না আসা পর্যন্ত কিছু করার নেই – প্রধানমন্ত্রী কমলগঞ্জে পূজা উদযাপন পরিষদের বৃক্ষরোপন কুড়িগ্রামে শিশুদের প্রতি সহিংসতা বন্ধে স্থানীয় স্টেক হোল্ডারদের সাথে সংলাপ

জুড়ীতে সাবেক প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীর উপবৃত্তির টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

  • শুক্রবার, ২ জুন, ২০২৩

বড়লেখা প্রতিনিধি:

জুড়ী উপজেলার পাতিলাসাঙ্গন উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক তাজুর রহমানের বিরুদ্ধে এক ছাত্রীর প্রায় ৪ বছরের উপবৃত্তির সমুদয় টাকা আত্মসাত করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। গত ২৫ মে ভোক্তভোগী ছাত্রী হালিমা বেগম এব্যাপারে ইউএনও বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযুক্ত তাজুর রহমান বর্তমানে শিলুয়া উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের প্রধান শিক্ষক হিসেবে কর্মরত।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ছাত্রী হালিমা বেগম ২০১৯ সালে পাতিলাসাঙ্গন উচ্চ বিদ্যালয়ে ষষ্ঠ শ্রেণিতে ভর্তি হয়। বর্তমানে সে ওই স্কুলের দশম শ্রেণীর ছাত্রী। ষষ্ঠ শ্রেণীতে অধ্যয়নকালীন তাকে উপবৃত্তির তালিকায় অর্ন্তভুক্ত করা হয়। কিন্তু অদ্যাবদি সে উপবৃত্তির কোন টাকাই পায়নি। সম্প্রতি উপবৃত্তির তালিকা থেকে হালিমা বেগম জানতে পারে প্রধান শিক্ষক তাজুর রহমান তালিকায় তার (ছাত্রীর) মোবাইল নম্বরের স্থলে স্ত্রীর মোবাইল নম্বর দিয়ে রাখেন। এজন্য উপবৃত্তির টাকা আসলে তিনি ছাত্রীকে না জানিয়ে উত্তোলন করায় সে কোন টাকা পায়নি। ২০১৯ সাল থেকে ২০২৩ সালের মার্চ মাস পর্যন্ত তার উপবৃত্তির টাকা সুকৌশলে স্ত্রীর মোবাইল নম্বরে নিয়ে সাবেক প্রধান শিক্ষক তাজুর রহমান আত্মসাত করেছেন। যোগাযোগ করলে কিছু টাকা দিয়ে মূখ বন্ধ রাখতে ও ঘটনাটি কাউকে না জানাতে ছাত্রীকে ভয়ভীতি দেখান।

এব্যাপারে তাজুর রহমান জানান, ওই ছাত্রী তার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দিয়েছে, সে সব টাকা পেয়েছে। বিষয়টি নিষ্পত্তি হয়েছে বলে তিনি দাবী করেন।

ইউএনও রঞ্জন চন্দ্র দে জানান, ভোক্তভোগী ছাত্রীর লিখিত অভিযোগ পেয়ে উক্ত বিষয়ে শুনানির জন্য মঙ্গলবার উভয় পক্ষকে তার কার্যালয়ে ডাকেন। উপবৃত্তির তালিকার প্রিন্ট কপি জমা দেওয়ার জন্য পাতিলাসাঙ্গন উচ্চ বিদ্যালয়ের বর্তমান প্রধান শিক্ষককে নির্দেশ দিয়েছেন। বিষয়টি তদন্তাধীন আছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২ - ২০২৪
Theme Customized By BreakingNews