কুলাউড়ায় একমাস থেকে একঘরে একটি সনাতনী পরিবার কুলাউড়ায় একমাস থেকে একঘরে একটি সনাতনী পরিবার – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ০২:৫২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কুলাউড়ায় আশ্রয়ণের ঘর বরাদ্দের নামে অর্থ আত্মসাতে অভিযুক্ত ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু ব্যারিস্টার সুমনের সহযোগিতায় বাঁচার আকুতি প্রবাসে বন্দী যুবকের! সিলেটের বন্যাদুর্গত মানুষের পাশে মেডগ্লোবাল শিশু হত্যা মামলার সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার কোটা সংস্কারে আদালতের রায় না আসা পর্যন্ত কিছু করার নেই – প্রধানমন্ত্রী কমলগঞ্জে পূজা উদযাপন পরিষদের বৃক্ষরোপন কুড়িগ্রামে শিশুদের প্রতি সহিংসতা বন্ধে স্থানীয় স্টেক হোল্ডারদের সাথে সংলাপ সুজানগর ইউপি : বন্যার্তদের ২০ লাখ টাকার খাদ্যসামগ্রী দিচ্ছেন প্রবাসীরা ইউপি চেয়ারম্যান উপ-নির্বাচন-বড়লেখায় প্রতীক পেয়েই প্রচারণায় প্রার্থীরা কুলাউড়ায় বন্যা কবলিত এলাকায় শিশু খাবার পানি বিশুদ্ধকরণ টেবলেট ও খাবার স্যালাইন বিতরণ

কুলাউড়ায় একমাস থেকে একঘরে একটি সনাতনী পরিবার

  • শনিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২৩

মন্দিরে প্রবেশে বাধা দেয়ায় ৯ জনের বিরুদ্ধে লিগ্যাল নোটিশ-

এইবেলা, কুলাউড়া  ::  মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার টিলাগাঁও ইউনিয়নে সনাতনী সমাজপতিদের বিরুদ্ধে একটি পরিবারকে এক ঘরে করে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃদ্ধ জ্ঞানেন্দ্র সেন শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমিতে মন্দিরে প্রবেশে বাঁধা দেয়ায় ৯জনের বিরুদ্ধে লিগ্যাল প্রদান করা হয়।

জানা যায়, মিথ্যে কুৎসা রটিয়ে টিলাগাঁও ইউনিয়নের গন্ডারগড় গ্রামের জ্ঞানেন্দ্র সেন (খোকা) র ছেলে রানা সেনের পরিবারকে প্রায় এক মাস ধরে স্থানীয় তথাকথিত সমাজপতিদের নির্দেশে সামাজিক বিচ্ছিন্ন বা একঘরে রেখে সামাজিক নিপীড়ন করা হচ্ছে। সামাজিক, ধর্মীয় বিভিন্ন অনুষ্ঠানাদিতে তাদেরকে বঞ্চিত করা, সমাজ থেকে বিচ্ছিন্ন করে রাখাসহ অভিযুক্তরা অভিযোগকারীকে নিজ বাড়ি থেকে বের হতে বাধ্য করেছেন বলেও অভিযোগ করেছে ভুক্তভোগী পরিবার।

অভিযোগকারী রানা সেন জানান, বিগত কিছুদিন পূর্বে পারিবারিক কলহের জের ধরে তার স্ত্রী একমাত্র শিশু সন্তানসহ পিত্রালয়ে চলে যান, পরে এর সমাধান হলে আবার নিজ স্বামীর গৃহে ফিরে আসেন। আর এতেই বাদ সাধেন কিছু কুচক্রি সমাজপতিরা। ওই গৃহবধূর নামে নানান কুৎসা রটিয়ে মধ্যযুগীয় বর্বর নিয়মে প্রায়শ্চিত করে মাথা মুন্ডন করা, সমাজপতিদের পা ধরে ক্ষমা চাওয়াসহ বিভিন্ন ফতোয়া জারি করেন অভিযুক্তরা। এতে রাজী না হওয়ায় তাদের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে তাদের পরিবারকে তথাকথিত সমাজপতিরা সমাজ থেকে এক ঘরে করে রাখার নির্দেশ দেয় বলে জানান তিনি।

পরে রানা সেনকে সামাজিক নিপীড়নের মাধ্যমে নিজ বসত বাড়ি থেকে স্ত্রী সন্তানসহ বের হতেও বাধ্য করা হয় বলেও জানা গেছে। আর্থিকভাবে অস্বচ্ছল ভুক্তভোগীরা অন্য স্থানে একটি ভাড়া বাসায় থাকছে বলে জানায় তারা। এছাড়া সর্বশেষ গত ৬ সেপ্টেম্বর শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমী উপলক্ষে স্থানীয় একটি মন্দিরে পূজায় যোগ দিতে গেলে রানা সেনের পিতা বৃদ্ধ জ্ঞানেন্দ্র সেনকে অভিযুক্তদের ইন্ধনে একদল লোক শারীরিক লাঞ্চিত করে মন্দির থেকে বের করে দেয়।

এ বিষয়ে অভিযোগকারী রানা সেন গত ১০ সেপ্টেম্বর এলাকার ৯ জনের বিরুদ্ধে লিগ্যাল নোটিশ পাঠিয়েছেন। মৌলভীবাজার জজ কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট প্রিতম দত্ত রানা সেনের পক্ষে এই লিগ্যাল নোটিশ প্রেরণ করেন।

যাদের বিরুদ্ধে লিগ্যাল নোটিশ প্রদান করা হয় তারা হলেন গন্ডারগড়গ্রামের সিতাংশু দে, অনিমেষ দত্ত, পার্শ্ববর্তী তাজপুর গ্রামের শ্রীকেন্দু দে, মনোজ দত্ত, মুকুল সেন, দক্ষিণা দে, নিতাই দত্ত, খন্দখার গ্রামের চন্দন ধর ও টিংকু ধর।

গন্ডারগড় গ্রামের সিতাংশু দের জানান, রানা সেনের স্ত্রীর বিরুদ্ধে নানান অভিযোগ করে তাকে সামাজিক ধর্মীয় নিয়ম মেনে ঘরে উঠার কথা বলেন। একঘরে করে রাখার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বিষয়টি স্পষ্ট সদুত্তোর না দিয়ে এড়িয়ে যান।

টিলাগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো: আব্দুল মালিক জানান, তিনি বিষয়টি অবগত আছেন এবং বিশেষ কাজে ঢাকায় থাকার কারণে এলাকায় এসে ঘটনাটি খতিয়ে দেখবেন বলেও জানান।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২ - ২০২৪
Theme Customized By BreakingNews