মে ১২, ২০১৭
Home » অর্থ ও বাণিজ্য » হাকালুকি হাওর তীরের বন্যার্ত স্বজনদের পাশে ঢাকাস্থ কুলাউড়া সমিতি

হাকালুকি হাওর তীরের বন্যার্ত স্বজনদের পাশে ঢাকাস্থ কুলাউড়া সমিতি

কৃষক ও জেলে পরিবারের ২ শতাধিক শিক্ষার্থীদের আর্থিক সহায়তা

এইবেলা ডেক্স, কুলাউড়া, ১২ মে ::  হাকালুকি হাওর তীরের বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত স্বজনদের পাশে দাড়িয়েছে ঢাকাস্থ কুলাউড়া উপজেলা সমিতি।

তারা দু’টি ধাপে কুলাউড়া উপজেলার বরমচাল, ভাটেরা, ভুকশিমইল ও জয়চন্ডী ইউনিয়নের কৃষক ও জেলে পরিবারের অধিক ক্ষতিগ্রস্ত ২ শতাধিক শিক্ষার্থীদের আর্থিক সহায়তা দিয়েছে।

এ উপলক্ষে বুধবার (১০ মে) ও শুক্রবার (১২ মে) সহায়তা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ঢাকাস্থ কুলাউড়া উপজেলা সমিতির সভাপতি ও বানিজ্যমন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব এম আব্দুর রউফ। অনুষ্ঠানে যাবার পথে সচিব স্ব-চোক্ষে হাকালুকি হাওরের ক্ষতির পরিমান দেখে আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়েন।

বিশেষ অতিথি ছিলেন কুলাউড়া উপজেলা চেয়ারম্যান আসম কামরুল ইসলাম, কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা চৌধুরী মোঃ গোলাম রাব্বী, ঢাকাস্থ কুলাউড়া সমিতির সাধারন সম্পাদক এডভোকেট জসিম উদ্দিন আহমেদ সুমন, সহ সাধারন সম্পাদক কুতুব উদ্দিন সোহেল, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শিমুল আলী, উপজেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা আবুল বাশার,

বরমচাল ইউপির চেয়ারম্যান আব্দুল আহবাব চৌধুরী, জয়চন্ডী ইউপির চেয়ারম্যান কমর উদ্দিন আহমদ কমরু, ভুকশিমইল ইউপির চেয়ারম্যান আজিজুর রহমান মনির, ভাটেরা ইউপির চেয়ারম্যান সৈয়দ একেএম নজরুল ইসলাম, জয়চন্ডী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুর রব মাহবুব, সাধারণ সম্পাদক ফজজুল আউয়াল, ইউপি সদস্য আজমল আলী, জালালাবাদ ছাত্র কল্যাণ সমিতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারন সম্পাদক আবুল হাসান।

Kulaura Onudan pic 01

প্রধান অতিথির বক্তব্যে অতিরিক্ত সচিব আব্দুর রউফ বলেন, বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণা অনুযায়ী কোন মানুষ না খেয়ে মরবে না। সুনামগঞ্জের হাওরে প্রধানমন্ত্রী এবং হাকালুকি হাওরে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এসেছেন এমনটি স্মরন করে ক্ষতিগ্রস্তদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনারা নিজেদের অসহায় ভাববেন না। আপনাদের পাশে সবাই আছে। সরকারের পাশাপাশি সমাজের বিত্তবানদেরকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়ার আহবান জানান তিনি।

কুলাউড়া উপজেলা সমিতি ঢাকাস্থর সাধারন সম্পাদক এডভোকেট জসিম উদ্দিন আহমেদ সুমন বলেন, আমরা আপনাদের সাহায্য করতে আসিনি।আপনাদের এ ক্ষতি পুষনে আমাদের পক্ষে সম্ভবনা। তারপরও আমারা এসেছি আপনাদের পাশে কিছুক্ষণ থেকে সমবেদনা জ্ঞাপন করতে। জালালাবাদ সমিতির পক্ষ থেকে  ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক ও জেলে পরিবারের পাশে কিছু দিনের মধ্যে আবারো  আসবেন বলে তিনি বক্তব্যে উল্লেখ করেন।