- নির্বাচিত, ব্রেকিং নিউজ, মৌলভীবাজার, স্লাইডার

পানচাষকে কৃষিকাজের অন্তর্ভূক্ত করার দাবি কুলাউড়ার খাসিয়া ও গারো সম্প্রদায়ের

এইবেলা, কুলাউড়া ০৩ নভেম্বর : : -একজন কৃষক যেমন কৃষিকাজ করে, আমরাও তেমনি পান চাষ করে জীবিকা নির্বাহ করি। পরিবারের ভরণ পোষণ চালাই। তাহলে কেন পানচাষকে কৃষিকাজ হিসেবে গণ্য করা হবে না। কৃষিকাজ হিসেবে গণ্য করার পাশাপাশি কৃষিক্ষেত্রে কৃষকরা যে সকল সরকারি সুযোগ সুবিধা পায়, তেমনি পানচাষীরাও কৃষি সুযোগ সুবিধার দাবিদার। কথাটি ক্ষোভের সাথে বলেন কুলাউড়া উপজেলার বরমচাল ইউনিয়নের আমছড়ি পানপুঞ্জির হেডম্যান নুটলি লামিন (৫০)।
কুলাউড়া উপজেলার কর্মধা, বরমচাল ও সদর ইউনিয়নে ৩৯টি পানপুঞ্জিতে দেড়সহ¯্রাধিক পরিবারে প্রায় ১০ হাজার খাসিয়া ও গারো সম্প্রদায়ের লোকজনের বসবাস। যাদের একমাত্র আয়ের উৎস পানজুম বা পানচাষ। এই পানচাষের মাধ্যমে খাসিয়া ও গারো সম্প্রদায়ের লোকজন তাদের জীবিকা নির্বাহ করেন। শুধু জীবিকা নির্বাহ নয়, পরিবারের শিশু সন্তানদের পড়ালেখার খরচও যোগান দেন।
স্থানীয় প্রশাসনের কার্যক্রম ও সেবাপ্রাপ্তি বিষয়ক এক সেমিনারে খাসিয়া নেতা জেমসন লামিন, আইপিডিএস কর্মকর্তা জয়ন্ত লরেন্স রাকসাম ও অফিস ইনচার্জ অরিজেন খংলা জানান, পানতো কৃষি পন্য। তারা পানচাষকে কৃষিকাজ হিসেবে গণ্য করার পাশাপাশি কৃষিক্ষেত্রে সরকারি সুযোগ সুবিধা পানচাষীদেরও প্রদানের দাবি জানান। পাহাড়ে বসবাসরত কুলাউড়ার এই বিশাল জনগোষ্টি সরকারের কৃষিক্ষেত্রে দেয়া সুযোগ সুবিধা বঞ্চিত।
কুবরাজ (কুলাউড়া, বড়লেখা, রাজনগর ও জুড়ী উপজেলা) আন্ত:পুঞ্জি সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মিস ফ্লোরা বাবলী তালাং বলেন, পানচাষ খাসিয়া কিংবা গারো সম্প্রদায়ের লোকজনের একমাত্র আয়ের উৎসই হচ্ছে পান। সরকারি সুযোগ সুবিধার পাশাপাশি পানচাষের জন্য সহজ শর্তে কৃষি ঋণ সুবিধা প্রদানেরও দাবি জানান।
বরমচাল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইছহাক চৌধুরী ইমরান জানান, পাহাড়ী জনগোষ্টি কৃষিক্ষেত্রে সরকারি সুযোগ সুবিধা বঞ্চিতের বিষয়টি তিনি উপজেলা পরিষদের সভায় উত্থাপন করবেন। একটা জনগোষ্টিকে বাদ দিয়ে সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়ন হবে না। এব্যাপারে সরকারের পক্ষ থেকে একটা ইতিবাচক সুরাহা হবে বলে তিনি জানান।

khasi 2
এব্যাপারে কুলাউড়া উপজেলা কৃষি অফিসার মো. শাহ নেওয়াজ জানান, পানও একটা কৃষি পন্য। তবে এটা একটা অর্থনৈতিক ফসল। খাসিয়ারা চাইলে পান চাষ ও রোগবালাইয়ের উপর আমরা তাদেও প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করতে পারি। কৃষকরা কৃষি উপকরণের ক্ষেত্রে মাঝে মধ্যে সহায়তা পায়। একেবারে ফ্রি তাদেরতো কিছুই দয়ো হয় না। সুতরাং খাসিয়াদের পানচাষের বেলায় সরকারি সহায়তার কোন সুযোগ নাই। #

রিপোর্ট- আব্দুল আহাদ

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *