বড়লেখায় ২ হাজার গ্যাস গ্রাহকের চরম দুর্ভোগ বড়লেখায় ২ হাজার গ্যাস গ্রাহকের চরম দুর্ভোগ – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ০৩:৪৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বড়লেখায় ঢলের পানিতে ডুবে স্কুলছাত্রীর মৃত্যু স্পেনে যুবলীগ কাতালোনিয়া শাখার উদ্যোগে ঈদ পুনর্মিলনী ও আলোচনা মৌলভীবাজারে বন্যার পানিতে ডুবে ২ জনের মৃত্যু কুলাউড়ায় বন্যা আশ্রয় কেন্দ্র পরিদর্শণ করলেন মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক বড়লেখায় জেলা প্রশাসকের বন্যাদুর্গত এলাকা পরিদর্শন ও খাদ্যসামগ্রী বিতরণ সিলেটে ৮ জুলাই পর্যন্ত এইচএসসি পরীক্ষা স্থগিত কুলাউড়ায় লক্ষাধিক মানুষ পানি বন্দি, বাড়ছে পানি, বাড়ছে দুর্ভোগ! দুর্যোগ মোকাবেলায় বিশ্বে বাংলাদেশ রোলমডেল : দুর্যোগ ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী হাকালুকি হাওরপারে বন্যার অবণতি-বড়লেখায় ২৫২ গ্রাম প্লাবিত, আশ্রয় কেন্দ্রে ২২০ পরিবার, লাখো মানুষ পানিবন্দি মৌলভীবাজারে বন্যা কবলিত ৪৩২ গ্রাম, পানিবন্দি প্রায় ২ লাখ মানুষ

বড়লেখায় ২ হাজার গ্যাস গ্রাহকের চরম দুর্ভোগ

  • শুক্রবার, ১৭ জুলাই, ২০২০

আব্দুর রব, বড়লেখা :

বড়লেখায় পল্লীবিদ্যুতের ৩৩ হাজার ভল্টের মেইন লাইনের একটি খুঁটি উচ্চ চাপের গ্যাস সরবরাহ পাইপের ওপর পুতায় বৃহস্পতিবার বিকেলে গ্যাস পাইপ ছিদ্র হয়ে বিদ্যুৎ লাইনে মারাত্মক বিষ্ফোরণ ঘটে। এতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।

এলাকাটি নির্জন হওয়ায় মারাত্মক দুর্ঘটনার কবল থেকে রক্ষা পায় এলাকাবাসী। তবে গ্যাস ও বিদ্যুৎ বিষ্ফোরণের কারণে প্রচন্ড গরমে অর্ধলক্ষ বিদ্যুৎ গ্রাহককে প্রায় ১০ ঘন্টা বিদ্যুৎহীন থাকতে হয়। রাত ৩টায় বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক হলেও বৃহস্পতিবার রাত ১টা থেকে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে দেয়া হয়। এতে উপজেলার দুই সহস্রাধিক আবাসিক ও বাণিজ্যিক গ্যাস গ্রাহক মারাত্মক দুর্ভোগের শিকার হন। বিনানোটিশে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করায় বিশেষ করে দুই শতাধিক বাণিজ্যিক গ্যাস গ্রাহক লাখ লাখ টাকার ক্ষতির সম্মুখিন হয়েছেন।

পল্লীবিদ্যুতের খুঁটি স্থাপনকারী ঠিকাদারের গাফিলতিতে বিভিন্ন স্থানে গ্যাস ও বিদ্যুৎ বিষ্ফোরণে মারাত্মক দুর্ঘটনার আশংকা রয়েছে। অনাকাঙ্খিত দুর্ঘটনা এড়াতে গ্যাস পাইপের ওপর পুতা বৈদ্যুতিক খুঁটি জরুরী ভিত্তিতে সরানোর জন্য বৃহস্পতিবার জালালাবাদ গ্যাস ট্রান্সমিসন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন সিস্টেম লি: এর সহকারী প্রকৌশলী সফিকুর রহমান পলøীবিদ্যুতের ডিজিএম’কে চিটি দিয়েছেন।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টায় কুলাউড়া-বড়লেখা সওজ রাস্তার পশ্চিম হাতলিয়া নামক স্থানে পল্লীবিদ্যুতের ৩৩ হাজার ভল্ট লাইনের একটি খুঁটিতে মারাত্মক বিষ্ফোরণ ঘটে। মুহূর্তে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটলে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়। পল্লীবিদ্যুতের লোকজন ও দমকল বাহিনী চেষ্ট চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণ করেন।

অনুসন্ধানে দেখা যায়, বৈদ্যুতিক খুঁটিটি জালালাবাদ গ্যাস ট্রান্সমিসন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন সিস্টেম লি: এর উচ্চ চাপের একটি গ্যাস পাইপের ওপর পুতা থাকায় পাইপ লিকেজ হয়ে খুঁটির ভেতর দিয়ে গ্যাস ওপরে উঠতে থাকে। খুঁটির ওপরে বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইনের স্পার্কিংস্থলে পড়ে আগুনের সুত্রপাত ঘটে। রাত ৮টার দিকে মেরামত করে বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক করা হয়।

দ্বিতীয় দফা বিষ্ফোরণ ঘটায় আবারো বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করে দেয়া হয়। রাত ১টায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে দেয়ায় বিপাকে পড়েন দুই সহ্রসাধিক আবাসিক ও বাণিজ্যিক গ্যাস গ্রাহক। শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকায় দুই সহস্রাধিক গ্যাস গ্রাহক পড়েন মহা বিপাকে। দুই শতাধিক বাণিজ্যিক গ্যাস গ্রাহক লাখ লাখ টাকার ক্ষতির সম্মুখিন হন।

জালালাবাদ গ্যাস ট্রান্সমিসন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন সিস্টেম লি: এর ব্যবস্থাপক আব্দুল মুকিত জানান, পলøীবিদ্যুৎ অনেক জায়গায় গ্যাসের পাইপের ওপর বিদ্যুতের খুঁটি পুতেছে। এতে প্রায়ই বিষ্ফোরণ ঘটছে। পশ্চিম হাতলিয়ায় বিষ্ফোরণ ও অগ্নিকান্ডের ঘটনায় ঝুঁকি এড়াতে বৃহস্পতিবার রাত ১ টায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করেন। শুক্রবার সকাল থেকে তিনি উপস্থিত থেকে মেরামত কাজ তদারকি করছেন। আশা করছেন সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে লাইন চালু করা সম্ভব হবে।

তিনি আরো জানান, গ্যাস পাইপের ওপর পুতা বৈদ্যুতিক খুঁটি জরুরী ভিত্তিতে সরিয়ে নেয়ার জন্য জালালাবাদ গ্যাস ট্রান্সমিসন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন সিস্টেম লি: এর পক্ষ থেকে পল্লীবিদ্যুতের উপ-মহাব্যবস্থাপককে বৃহস্পতিবার চিটি দেয়া হয়েছে।

এব্যাপারে পল্লীবিদ্যুতের ডিজিএম মো. ইমাজুদ্দিন সরদার জানান, ঠিকাদাররা খুঁটি পুতার সময় নানা গাফিলতি করেছে। এতে নানা দুর্ঘটনাও ঘটছে। গ্যাসের পাইপের ওপর পুতা খুঁটিগুলো দ্রুত শিপ্টিংয়ের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবেন।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২ - ২০২৪
Theme Customized By BreakingNews