বড়লেখায় প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ৬ : মামলা করায় হুমকি বড়লেখায় প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ৬ : মামলা করায় হুমকি – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ১০:৫০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কাষ্টমসে জমা না দিয়েই একটি বড় মহিষ ব্যাটালিয়নে পাঠালো বিজিবি বড়লেখায় অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে অপপ্রচার ও হয়রানীর প্রতিবাদে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা কুলাউড়া জামিয়া মুহাম্মাদিয়া দারুস সুন্নাহ আহমদাবাদ মাদরাসার সাফল্য সীমান্তে আটক বড় মহিষটি গেলো বিজিবির ব্যাটালিয়নে ! বড়লেখায় অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে অপপ্রচার ও হয়রানীর প্রতিবাদে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা কুলাউড়ায় জুয়া খেলার সময় হাতেনাতে ৭ জুয়াড়ি গ্রেফতার হাকালুকির হাওরখাল জলমহালে সুপ্রিম কোর্টের স্থিতিবস্থার নির্দেশ : ৫ জনের বিরুদ্ধে রুলনিশি জারি বড়লেখায় হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সস্মুখ থেকে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার মৌলভীবাজারে প্রধান শিক্ষক সমিতির জেলা কমিটি গঠন : সভাপতি জহর সম্পাদক সিরাজুল কমলগঞ্জে পানি সংকটে ৬শ’ হেক্টর জমিতে এখনো বোরো চাষাবাদ ব্যাহত হতাশ কৃষকরা

বড়লেখায় প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ৬ : মামলা করায় হুমকি

  • বুধবার, ৫ আগস্ট, ২০২০

এইবেলা, বড়লেখা ::

বড়লেখায় মসজিদের পুকুরপাড়ে ছাগল ঢুকাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় ৬ ব্যক্তি আহত হয়েছেন। এদের দুইজনের অবস্থা আশংকাজনক। গত ৫ দিন ধরে তারা সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন। এ ঘটনায় থানায় মামলা করায় আসামীরা বাদী পক্ষকে প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জানা গেছে, উপজেলার তালিমপুর ইউনিয়নের গোপালপুর গ্রামের জামে মসজিদের পুকুরপাড়ে স্থানীয় খালেদ আহমদের ছাগল ঢুকে পড়ে। এর জের ধরে খালেদের ভাই আনোয়ার হোসেনের সাথে আব্দুল মালিক বচন, কয়েছ উদ্দিন, আজিম উদ্দিন ও হেলাল উদ্দিনের তর্কবিতর্ক হয়। তর্কাতর্কির ঘটনায় ঈদের নামাজ শেষে পরিকল্পিতভাবে প্রতিপক্ষের লোকজন হামলা চালালে আনোয়ার হোসেন, খালেদ আহমদ, সাহেদ আহমদ, ফয়সল আহমদ, আজিজুর রহমান লুলু ও চান মিয়া গুরুতর আহত হন। তাদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। আনোয়ার হোসেন ও খালেদ আহমদের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাদেরকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। গত ৫ দিন ধরে সেখানে তারা মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন বলে পারিবারিক সুত্র জানিয়েছে।

হামলার ঘটনায় আহত ফয়সল আহমদ প্রতিপক্ষের ১২ জনের বিরুদ্ধে গত ৩ আগষ্ট থানায় মামলা করেন।

তিনি অভিযোগ করেন, মামলা করায় আসামী কয়েছ উদ্দিন, মামুন আহমদ, বিলাল আহমদ, জুয়েল আহমদ, হেলাল উদ্দিন, আব্দুল মালিক বচন, আছাব উদ্দিন প্রমুখ তাকেসহ আহত পক্ষের লোকজনকে প্রাণ নাশের হুমকি-ধমকি দিচ্ছে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা থানার এসআই সুব্রত কুমার দাস জানান, আসামীদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে। তারা কেউ এলাকায় নেই। হুমকি-ধমকির বিষয়টি কেউ জানায়নি। বাদিপক্ষ জানালে পুলিশ আইনগত ব্যবস্থা নিবে।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews